দেবিদ্বারে করোনা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে ২ হাজার শ্রমিক

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুমিল্লা
করোনা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে ২ হাজার শ্রমিক, ছবি: বার্তা২৪.কম

করোনা ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে ২ হাজার শ্রমিক, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

কুমিল্লার দেবিদ্বারে সরকারি আদেশের কোনো তোয়াক্কা না করে সাদাত জুট ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান চালু রাখা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানটিতে করোনার ঝুঁকি নিয়ে পৃথক তিনটি শিফটে প্রতিদিন কাজ করছে ২ হাজারের বেশি নারী-পুরুষ শ্রমিক।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন উপজেলার জাফরপুর এলাকার ওই মিলটি চললেও পাশ্ববর্তী আরও ৩টি জুট মিল বন্ধ রয়েছে। প্রতিদিন তিনটি শিফটে ৭শ করে প্রায় ২১০০ শ্রমিক মিলটিতে কাজ করলেও কর্তৃপক্ষ শ্রমিকদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় নেয়নি কোনো ব্যবস্থা। এছাড়াও জুট মিলটির প্রধান ফটকে দাঁড়িয়ে থাকা নিরাপত্তা কর্মীরা খুব কাছ থেকে শ্রমিকদের দেহ তল্লাশি করছেন। কেউই কোনো মাস্ক ও গ্লোভস ব্যবহার করছেন না।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে একাধিক শ্রমিক জানায়, করোনাভাইরাস সম্পর্কেই তাদের কোনো ধারণা নেই। মিল খোলা, তাই তাদের আসতে বলা হয়েছে। কারন না আসলেতো বেতন পাবো না।

সাদাত জুট মিলের শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি মো.নুরুল ইসলাম জানান, সরকার জুট মিল বন্ধ রাখতে বলেনি। মিল কর্তৃপক্ষ ১ এপ্রিল থেকে বন্ধ রাখবে। সে পর্যন্ত মিলে প্রতিদিন কাজ চলবে।

মিলের কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন জানান, ৩১ মার্চ কাজ শেষে শ্রমিকদের বেতন দিয়ে মিল বন্ধ করা হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আহাম্মদ কবির জানান, যেখানে ২ জন লোক এক সাথে জড়ো হতে সরকার নিষেধ করেছে, সেখানে ২ হাজারের বেশি লোকের সমাগম অবশ্যই ঝুঁকিপুর্ণ। বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করা হবে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :