‘চিকিৎসকরা কাজ করুন, সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ফরিদপুর
সভায় বক্তব্য দিচ্ছেন ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন

সভায় বক্তব্য দিচ্ছেন ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন

  • Font increase
  • Font Decrease

চিকিৎসকদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য ও স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন এবং সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ‘দেশের প্রতি ও জনগণের প্রতি আপনাদের সেবা দেওয়ার যে প্রতিজ্ঞা রয়েছে, সেখানে দূরে থাকার কোনো সুযোগ নাই। চিকিৎসকরা দূরে থাকবেন না। আপনারা কাজ করুন যত ধরনের সুযোগ-সুবিধা লাগে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।’

গত কয়েকদিনে রোগীরা ঠিকমতো সেবা পাচ্ছে না এমন অভিযোগ আসলে গত সোমবার (৩০ মার্চ) সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ সার্বিক প্রস্তুতি পর্যালোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ‘করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ নিয়ে সমগ্র বিশ্বের সঙ্গে আমরা যে দুর্যোগের মধ্যে আছি তার প্রকৃতি অজানা। বিশ্বের কেউ সুস্পষ্টভাবে এ রোগের আক্রমণ, প্রভাব ইত্যাদি সম্পর্কে কেউ বলতে পারছে না। এরইমধ্যে এক সপ্তাহ পার হয়ে গেছে আমরা এ মহামারি মোকাবিলায় দৃঢ় অবস্থানের মধ্যে আছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ দুর্যোগ মোকাবিলায় এরইমধ্যে যেসব পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন, তাতে আমরা তুলনামূলক স্বস্তির জায়গায় রয়েছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন সরকারের নির্দেশ মোতাবেক এ মহামারি মোকাবিলায় সরকার গৃহীত পদক্ষেপ আমরা যথাযথভাবে মেনে চললে, করোনা ব্যাপক বিস্তার লাভ করতে পারবে না। এ জন্য প্রয়োজন সবার সম্মিলিত উদ্যোগ। আমরা যদি সরকারের নির্দেশ মোতাবেক জীবন যাপন করতে পারি তবে আমরা ঝুঁকিমুক্ত থাকতে পারব। এজন্য সবাইকে সচেতন হতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ ভাইরাস মোকাবিলায় ফরিদপুর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা সব সময় আপনাদের পাশে থাকবে। খাদ্যসহ যাবতীয় সহযোগিতা আমরা আপনাদের দিতে প্রস্তুত রয়েছি। জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন সহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে স্বাস্থ্য বিভাগ করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এ ভাইরাস যতদিন পর্যন্ত নির্মূল না হয় ততদিন আমি ফরিদপুরেই থাকব। যেকোনো প্রয়োজনে আমার দরজা আপনাদের জন্য উন্মুক্ত রয়েছে।’

সভার সভাপতি জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রশাসন সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। চিকিৎসা সেবাসহ কর্মহীন মানুষের খাদ্য প্রদানে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, ফরিদপুরে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর খবর এখন পযর্ন্ত পাওয়া যায়নি। তাছাড়া বিদেশ থেকে আগত ১ হাজার ৬শ ১৭ জনের সঙ্গরোধ (হোম কোয়ারেন্টাইন) নিশ্চিত করা হয়েছে। ইতোমধ্যে সঙ্গরোধের (হোম কোয়ারেন্টাইন) মেয়াদ শেষ হয়েছে ৮শ ৯৮ জনের। তারা সবাই সুস্থ আছেন।

সভায় আরও বক্তব্য দেন- পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বিপিএম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুর রাজ্জাক মোল্যা, পৌর মেয়র শেখ মাহতাব আলী মেথু, শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী বরকত ইবনে সালাম, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক এএইচএম ফোয়াদ, ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ ইমতিয়াজ হাসান রুবেল, সাংবাদিক পান্না বালা, ডায়াবেটিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর আ স ম জাহাঙ্গীর চৌধুরী টিটো, ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম, অধ্যক্ষ এস এম খবিরুল ইসলাম, সিভিল সার্জন মো. সিদ্দিকুর রহমান, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মাহফুজুর রহমান বুলু, ইমাম কল্যান ফাউন্ডশনের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক আওলাদ হোসেন বাবর প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :