সহায়তা পেয়ে দোকান বন্ধ রাখছেন তারা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা ২৪.কম, যশোর
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

চায়ের দোকানে যাতে জনসমাগম না ঘটে, সেজন্য দোকানিদের খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন যশোরের দেয়াড়া ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান। খাদ্য সহায়তা পেয়ে দোকান বন্ধ রেখেছেন সাড়ে তিনশ চা বিক্রেতা।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রোধে ২৬ মার্চ থেকে সরকার জনসমাগম বন্ধ ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে নির্দেশনা জারি করে। কিন্তু গ্রামের হতদরিদ্র মানুষ এই নির্দেশনা পালন করছেন না। পরিবারের সদস্যদের মুখে দুমুঠো খাদ্য তুলে দিতে তারা কাজে বের হচ্ছেন।

বিশেষ করে পাড়া-মহল্লার চা দোকানিরা দোকান খুলে বসে থাকছেন। আর সেখানে গিয়ে ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ। সেটা দেখে বার বার নির্দেশনা উপেক্ষা করে দোকানে আড্ডা দেয় গ্রামবাসী। তবে মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) ইউপি চেয়ারম্যানের সহযোগিতা পেয়ে দোকান বন্ধ রেখেছেন দোকানিরা।

ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান বার্তা ২৪.কম-কে বলেন, অনেক বলেও দোকানগুলো বন্ধ করা যাচ্ছিলো না। এখানে ভিড় জমায় সাধারণ মানুষ। এ কারণে ইউনিয়নের সাড়ে তিনশ’ চা দোকানিকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। ইউনিয়ন পরিষদের রাজস্ব আয়ের অর্থ ও জনপ্রতিনিধিদের অনুদানের অর্থে প্রত্যেক চা দোকানিকে পাঁচ কেজি চাল, দুই কেজি আলু, এক কেজি ডাল ও একটি করে সাবান দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে আবারও তাদের খাদ্য সহায়তা করা হবে।

আপনার মতামত লিখুন :