কানে ঝুলছে মাস্ক, নাক-মুখ খোলা

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, পীরগাছা (রংপুর)
মাস্ক থাকলেও মুখে নেই, ছবি: বার্তা২৪.কম

মাস্ক থাকলেও মুখে নেই, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

পীরগাছায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে চলমান পরিস্থিতিতে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত সর্বত্র জনশূন্য থাকলেও হাটবাজারগুলোতে জনসমাগম একদমই কমেনি। বিকেল হলেই লোকজনের আনাগোনা বাড়তে থাকে এখানে।

পুলিশ ও সেনাবাহিনীর টহল আগের তুলনায় বৃদ্ধি পেয়েছে। হাটবাজারে মাস্ক ছাড়া তাদের সামনে পড়লে বিভিন্ন প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হচ্ছে। ফলে এখন সকলকে মাস্ক সঙ্গে রাখতে দেখা যাচ্ছে। তবে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর টহল দল আসলেই কেবল নাক ও মুখ ঢাকা হচ্ছে।

রোববার (৫ এপ্রিল) সরেজমিনে দেখা যায়, হাটবাজারে দোকানি ও ক্রেতাদের এক কানে মাস্ক ঝুলছে। নাক ও মুখ সম্পূর্ণ খোলা। মাস্ক না থাকলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পিটুনি খেতে হতে পারে এই ভয়ে সবাই সঙ্গে মাস্ক রাখছেন।

শনিবার বিকেলে উপজেলার কান্দি, পাওটানা ও ভোলানাথ হাটে গিয়েও এ চিত্র দেখা যায়। হাটগুলোতে জনসমাগম কমাতে পুলিশ ও সেনাবাহিনী নিয়মিত টহল দিচ্ছে। কিন্তু পুলিশ ও সেনাবাহিনীর গাড়ি আসতে দেখলেই লোকজন দৌড়ে পালিয়ে যাচ্ছেন। গাড়ি চলে গেলে আবার ফিরে এসে যে যার মতো গল্পগুজব ও আড্ডায় মেতে থাকছেন মানুষজন।

ভোলানাথ বাজারে দোকানি আব্দুর রহমান বার্তা২৪.কমকে বলেন, অভ্যাস নেই তো, মাস্ক পরে ক্রেতার সঙ্গে কথা বলতে সমস্যা হয়। জোরে কথা বললেও ক্রেতা শুনতে চায় না। তাই বিক্রির সময় মাস্ক নিচে নামিয়ে মুখ খুলে রাখি।

আরেক দোকানি মজিবর রহমান বার্তা২৪.কমকে বলেন, মাস্ক পড়লে দম বন্ধ হয়ে যায়। মাস্ক না থাকলে পুলিশ বিক্রি করতে দেয় না। তাই মাস্ক সাথে রাখি।

কান্দির হাটের অতুল চন্দ্র বার্তা২৪.কমকে বলেন, এখন মাস্ক না থাকলে বিপদ মনে করছে সবাই। তবে করোনাভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে নয়, হাটবাজারে প্রশাসনের ভয়ে মাস্ক নিয়ে আসছেন সবাই।

আপনার মতামত লিখুন :