আমার পৃথিবী তুমি গো মা, ছবিতে দেখুন ২০ তারকার ‘মা দিবস’



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
মায়ের সঙ্গে মিম, ইমরান, রুনা খান ও চঞ্চল চৌধুরী /  ছবি : ফেসবুক

মায়ের সঙ্গে মিম, ইমরান, রুনা খান ও চঞ্চল চৌধুরী / ছবি : ফেসবুক

  • Font increase
  • Font Decrease

সন্তানের জন্য মায়ের ত্যাগেরও কোন বর্ননা হয় না। আর মায়ের প্রতি প্রতিটি মানুষের আবেগ অনুভূতির কথা নতুন করে বলার কিছু নেই। তাই তো মায়ের প্রতি ভালোবাসা, কৃতজ্ঞতা প্রতি ক্ষণের জন্যই সমান। তারপরও বিশ্ব মা দিবস বলে একটা কথা আছে। যেদিন সন্তানরা আলাদা করে মাকে উদযাপন করেন। আজ সেই দিন। শোবিজ তারকাদের সোশ্যাল মিডিয়া তাই ভরে উঠেছে মায়েদের ছবিতে। দেখে নেওয়া যাক জনপ্রিয় তারকাদের তেমনি কিছু ছবি...

ছবি : ফেসবুক

প্রখ্যাত অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী তার মায়ের সঙ্গে ছবিটি পোস্ট করে লিখেছেন, “মা”, এর চেয়ে বড় আশ্রয় নেই, এর চেয়ে বড় পৃথিবী নেই। সকল মা আমাদের প্রার্থনায় থাকুক’

ছবি : ফেসবুক

বলিউড সুপারস্টার কাজল তার মা বরেণ্য অভিনেত্রী তানুজার সঙ্গে ছবিটি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘মায়েরা চরিত্র গড়ে তোলেন! অন্তত আমি এটাই শুনেছি... চিন্তা করো না মা.. আমরা আমাদের সুখের ঐতিহ্য নিয়ে চলবো এবং অবশ্যই কৌতুকে আমাদের মাথা খুলে হাসার ঐতিহ্য শুধুমাত্র তুমি এবং আমি পাই...’

ছবি : ফেসবুক

বড়পর্দার অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম তার মায়ের সঙ্গে ছবিটি দুদিন আগেই পোস্ট করেছেন। সেদিন ছিল তার মায়ের জন্মদিন। মিম লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন আমার হৃদয়ের রানী। আমি তোমাকে প্রতিটি বছরের সাথে আরো ভালোবাসি। আমি প্রার্থনা করি প্রভুর আশীর্বাদ আজ এবং প্রতিদিন তোমার উপর বর্ষিত হোক। সবাই দোয়া করবেন আমার সুন্দর মাকে।’

ছবি : ফেসবুক

ছোটপর্দার সুপারস্টার মেহজাবীন চৌধুরী তার মায়ের সঙ্গে ছবিটি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আমাদের পরিবারের হৃদয়। শুভ মা দিবস মা।’

ছবি : ফেসবুক

জনপ্রিয় নির্মাতা আশফাক নিপুন তার মা এবং স্ত্রীর (কণ্ঠশিল্পী এলিটা করিম) সঙ্গে ছবিটি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘এই দুইজন খুব সুন্দর মায়ের জন্য মা দিবস সবচেয়ে আনন্দের! আমাদের নষ্ট করার জন্য ধন্যবাদ কিন্তু আমাদের সবচেয়ে ভালো যত্ন নেওয়ার জন্য। ভালোবাসি তোমাকে’

ছবি : ফেসবুক

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী রুনা খান মায়ের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘তার সাথে আমার বয়সের পার্থক্য কুড়ি বছর। প্রথম ছবিটা আমি ক্লাস সেভেনে পড়াকালীন সময়ে তোলা। সে সময় সবাই আমাদের দুজনকে দেখে বলতো, ‘তোমরা কি দুজন বোন?’ আমি বুড়ো হয়ে গেলাম, সে এখনো তরুনী! বয়সের সাথে সাথে তার সৌন্দর্য-তারুণ্য বাড়ছে! ধৈর্য, মানবিকতা, আধুনিকতায় তোমার মত স্বশিক্ষিত্ব মানুষ আমি জীবনে খুব কম দেখেছি। তুমি মানবিক-রুচিবোধসম্পন্ন-উদার-অপূর্ব সুন্দর মানুষ আম্মা। সুস্থ থাকো, এমনই সুন্দর থাকো, ভালোবাসা। হ্যাপী মাদারস ডে আম্মা।’

ছবি : ফেসবুক

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী দিলশাদ নাহার কনা তার গাওয়া একটি গানের লিংক শেয়ার দিয়ে লিখেছেন, ‘‘আমি বুড়ো হয়ে গেলেও, মা'র কোলে গিয়ে শোবো / মা কপালে রাখবে হাত, সব ক্লান্তিগুলো ধোব।’ বিশ্ব মা দিবসে আমার ছোট্ট শ্রদ্ধাঞ্জলী। গানটির গীতিকার ও সুরকার বাংলাদেশের জীবন্ত কিংবদন্তী প্রিন্স মাহমুদ।’’

ছবি : ফেসবুক

জনপ্রিয় গায়ক ইমরান মাহমুদুল তার মায়ের সঙ্গে ছবিটি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘পৃথিবীর সকল মা ভালো থাকুক।’

ছবি : ফেসবুক

এ সময়ের অন্যতম ব্যস্ত সংগীতশিল্পী সোমনূর মনির কোনাল তার মায়ের সঙ্গে ছবিটি প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘বিশ্ব মা দিবসের অনেক শুভেচ্ছা মা। আমার পৃথিবী তুমি গো মা। আমার অস্তিত্ব, আমার নিঃশ্বাস, আমার শান্তি, আমার বেহেস্ত, আমার বেঁচে থাকার কারণ তুমি মা। মা, তুমি আমার আগে, জেওনাগো মরে। হ্যাপী মাদারস ডে কুইন আম্মু।’

ছবি : ফেসবুক

ছোটপর্দার মেধাবী অভিনেত্রী সাবিলা নূর লিখেছেন, ‘হ্যাপী মাদারস ডে আম্মু এন্ড হ্যাপী মাদারস ডে টু অল দ্য মাদারস ইন দ্য ওয়ার্ল্ড’।

ছবি : ফেসবুক

তারুণ্যের হার্টথ্রব অভিনেত্রী সাফা কবির লিখেছেন, ‘আমার কাছে কোন শব্দ নেই যা দিয়ে বুঝাতে পারবো তুমি আমার মা হওয়ায় আমি কতোটা সৌভাগ্যবান! আর আজতো আরও অনেক স্পেশ্যাল একটি দিন। আজ আমি যা কিছু করতে পেরেছি তার সবটাই আমার বাবা মায়ের জন্য। আজ খুব আবেগপ্রবণ লাগছে যখন আমার মাকে একটি সম্মানজনক পুরস্কার গ্রহণ করতে দেখেছি। এটা আমাকে আরও পরিশ্রম করতে উৎসাহ দিয়েছে। ধন্যবাদ আরটিভিকে আমার মাকে এই সম্মান দেওয়ার জন্য।’

ছবি : ফেসবুক

জনপ্রিয় চিত্রনায়ক বাপ্পী চৌধুরী মা হারিয়েছেন অল্প কিছুদিন হলো। স্বাভাবিকভাবেই এবারের মা দিবস তার জন্য ভীষণ কষ্টের। যা মেনে নেওয়া কঠিন। তিনি এই সাদাকালো ছবিটি পোস্ট করে শুধুই লিখেছেন, ‘আম্মা...’

ছবি : ফেসবুক

জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পূজা চেরীরও মা মারা গিয়েছেন কিছুদিন আগে। মাকে ছেড়ে প্রথম মা দিবস কাটানো তাই মেয়ের জন্য ভীষণ কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাইতো পূজা পর পর দুটি পোস্টের মাধ্যমে মাকে স্মরণ করেছেন। তিনি মায়ের সঙ্গে এই ছবিটি দিয়ে একটি পোস্টে লিখেছেন, ‘ভালো থাকুক পৃথিবীর সকল মা। মামুনি দেখেছো, তুমি কি পচা কাজ করেছ? সকালে ঘুম থেকে উঠেই আজ চোখ থেকে জল পড়তে দিলে! সারাজীবনই তো এই জল পড়বে গো মা। কি করে থামাবো? উফ খুব কষ্ট হচ্ছে মামুনি। আর লিখতে পারছি না। বুকটা ফেটে যাচ্ছে। ভালো থেকো মামুনি আর মনে রেখো তোমার হাতে লাঠিটা অনেক মিস করি, অনেক অনেক অনেক। হ্যাপী মাদার’স ডে।’
পূজা আরেকটি পোস্টে লিখেছেন, ‘আমি তো এতো ভেঙ্গে পড়ার মতো মেয়ে না। তবে আজকে কেনো এতো ভেঙ্গে পড়ছি!’

ছবি : ফেসবুক

হাফ স্টপ ডাউনের প্রযোজক মাহজাবীন রেজা চৌধুরী ছবিটি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘শুভ মা দিবস’।

ছবি : ফেসবুক

ছোটপর্দার চাহিদাসম্পন্ন অভিনেতা ফারহান আহমেদ জোভান এই ছবিটি শেয়ার করে লিখেছেন, ‘আজ আমার জীবনের খুব বিশেষ একটা দিন। মা একটি মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার পেয়েছেন। তার চোখের অভিমান আমাকে বুঝিয়ে দিল যে ‘হ্যাঁ’, হয়তো এত বছরের কঠোর পরিশ্রমের পর আমি কিছু অর্জন করেছি। এই স্বীকৃতির জন্য আরটিভিকে ধন্যবাদ।’

ছবি : ফেসবুক

জনপ্রিয় অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী পারসা ইভানা তার মা ও ছোট ভাইয়ের সঙ্গে এই ছবিটি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘হ্যাপী মাদারস ডে আম্মু।’

ছবি : ফেসবুক

স্টেজ মাতানো শিল্পী জাকিয়া সুলতানা কর্ণিয়া ছবিটি পোস্ট করে শুধুই এটুকু লিখেছেন, ‘আমার মা’

ছবি : ফেসবুক

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত গায়িকা আতিয়া আনিসা লিখেছেন, ‘আজ এবং প্রতিদিন আমাদের চমৎকার মাকে উদযাপন করা উচিত, কারণ তারা আমাদের জগতটাকে এতো সুন্দরভাবে গড়ে দিয়েছেন। হ্যাপী মাদারস ডে আম্মু। আই লাভ ইউ।’

ছবি : ফেসবুক

জনপ্রিয় উপস্থাপক ছবিটি পোস্ট করে মৌসুমী মৌ লিখেছেন, ‘আমার মা আমার পৃথিবী! জগতের সকল মায়েরা ভালো থাকুক। মা দিবসের শুভেচ্ছা আম্মু!’

ছবি : ফেসবুক

ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত বাঙালি অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী তার মায়ের সঙ্গে এই ছবিটি দিয়ে ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আমার সুপারহিরোকে শুভ মা দিবস! সবকিছুর জন্য ধন্যবাদ...আজকের দিনটা শুধু তোমাকে উদযাপন করার ব্যাপার! তোমাকে ভালোবাসি।’

ছবি : ফেসবুক

বাংলাদেশের গুণী অভিনেত্রী গোলাম ফরিদা ছন্দা তার মায়ের সঙ্গে বেশকিছু ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘আজ বিশ্ব মা দিবস। মা কে কখনও কোন দিনে বা ক্ষনে আবদ্ধ করা যায় না। মা তার আপন মহিমায়, আপন গতিতেই সমস্ত সময়ের অধিশ্বর। তবুও এই বিশেষ দিনে আমার মা , আমার শাশুড়ি মা এবং আমি মা সহ পৃথিবীর সকল মা কে জানাই স্বশ্রদ্ধ প্রনতি।’

   

বন্ধুত্ব থেকে বিয়ে, প্রেমের পর্ব ছিল না: সালহা নাদিয়া



মাসিদ রণ, সিনিয়র নিউজরুম এডিটর, বার্তা২৪.কম
বিয়ের সাজে সালমান ও নাদিয়া

বিয়ের সাজে সালমান ও নাদিয়া

  • Font increase
  • Font Decrease

ছোটপর্দার জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী সালহা খানম নাদিয়া গতকাল (২১ জুন শুক্রবার) বিয়ে করেছেন। পাত্র সালমান আরাফাতও একই পেশার মানুষ। এরইমধ্যে বিয়ের অনেক ছবি ফেসবুকে প্রকাশ করেছেন এই নব দম্পতি। কখন কিভাবে বিয়েটা হলো এ নিয়ে প্রথমবার গণমাধ্যমের (বার্তা২৪.কম) সঙ্গে কথা বলেছেন নাদিয়া। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন মাসিদ রণ

সুদর্শন বর আর সুন্দরী কনেকে দারুণ মানিয়েছে

অভিনন্দন, নতুন জীবন শুরু করলেন...


ধন্যবাদ। আসলেই বিয়ের পর জীবনটা নতুন মনে হচ্ছে। এখনো বিশ্বাস করতে পারছি না যে আমি বিবাহিতা, যেন স্বপ্নের ঘোরে আছি। মাত্রই ঢাকায় ফিরলাম (আজ দুপুরে)। ক’টা দিন বলতে গেলে নির্ঘুম কেটেছে বিয়ের নানা আয়োজন নিয়ে। গায়ে হলুদ, সঙ্গীত, হলি খেলা- কিছুই বাদ দেইনি। তবে সবটাই হয়েছে ছোট্ট পরিসরে। এখন নিজের বাসায়, একটু আরাম করে ঘুমাবো।

গতকাল চার হাত এক হয় তাদের

সরাসরি নিজের বাড়িতে আসলেন, শ্বশুরবাড়িতে গেলেন না?


না, আসলে আমাদের তো কেবল আকদ হয়েছে। নিকাহ, গায়ে হলুদ ও সঙ্গীতের অনুষ্ঠানটি করেছি ঢাকার বাইরের একটি রিসোর্টে। আমার একটু ইচ্ছে ছিল ডেস্টিনেশন ওয়েডিং করার। কিন্তু পরিবারের সবাইকে নিয়ে দেশের বাইরে যাওয়াটা মুশকিল বলে দেশের মধ্যেই ডেস্টিনেশন ওয়েডিংয়ের ফিলটা নিলাম। একেবারে দুই পরিবারের ক্লোজ আত্মীয়-স্বজনই ছিলেন অনুষ্ঠানে।

দুই পরিবারের সঙ্গে বর-কনে

যেহেতু এখন কেবল নিকাহ পর্ব সম্পন্ন হয়েছে তাই এখনি আমি শ্বশুরবাড়িতে যাইনি। এখনও আমরা আগের মতোই যার যার বাসায় থাকছি। এরমধ্যে আসা-যাওয়া, ঘোরাঘুরি হবে। কিন্তু বছরের শেষ নাগাদ রিসেপশন অনুষ্ঠান করার পর একসঙ্গে থাকার জায়গার বন্দোবস্ত করব। ইচ্ছে আছে রিসেপশনে আমার সব আত্মীয়-স্বজন এবং শোবিজের বন্ধু বান্ধব, সহকর্মীদের আমন্ত্রণ জানাবো।

হোলির রঙে নাদিয়া

ঘোরাঘুরির কথা বলছিলেন। হানিমুন করতে কোথায় যাচ্ছেন?


এখন আসলে ভিসা করতে গেলে দেরী হয়ে যাবে। বিয়ে যেহেতু ছোট্ট পরিসরে হয়েছে তাই হানিমুনটাও সেভাবেই করতে চাই। বড় অনুষ্ঠান করার পর সবকিছু বড়ভাবে করবো। তাই এখন দেশের মধ্যেই হানিমুন করার পরিকল্পনা করেছি। সেক্ষেত্রে দুজন মিলে কক্সবাজার যাবো শিগগিরই। তাছাড়া কক্সবাজার আমর খুব প্রিয়, সালমানেরও। আমি এতোবার শুটিংয়ে কক্সবাজার গেছি, কিন্তু মন ভরে না, আরও যেতে ইচ্ছে করে। পৃথিবীর সর্ববৃহৎ সমূদ্র সৈকত বলে কথা!

হানিমুনে কক্সবাজারে যাচ্ছেন এই নব দম্পতি

আপনি আর আপনার স্বামী তো বিজনেস পার্টনার। সেখান থেকেই কী বিয়ের দিকে গড়ালো সম্পর্ক?


না, বিজনেস পার্টনারতো অনেক পরের কথা। তার আগে থেকেই সে আমার কলিগ, এরপর ভালো বন্ধু হয়ে ওঠা এবং এক পর্যায়ে আমাদের দুই পরিবারের মধ্যে দারুণ সখ্যতা গড়ে ওঠা- এভাবেই সম্পর্কটা এ পর্যন্ত গড়িয়েছে। 

শুটিং সেটে প্রথম পরিচয় দুজনের

সহজ করে বলতে গেলে, আমরা দুজনই যেহেতু শোবিজের সঙ্গে জড়িত, ফলে সহশিল্পী হিসেবেই শুটিং সেটে সালমানের সঙ্গে প্রথম পরিচয়। এরপর আস্তে আস্তে বন্ধুত্ব, তারপর বিজনেস পার্টনার, এরপর বিয়ে।

বিয়ের পীড়িতে নাদিয়া ও সালমান

বন্ধুত্ব থেকে সরাসরি বিয়ে? মাঝে তাহলে প্রেমের অধ্যায় ছিল না বলছেন?


একদমই তাই বলছি। কারণ আমরা কখনো প্রেম করিনি। এ কথা হয়তো বললে কেউ বিশ্বাসই করবেন না, কিন্তু আসল সত্য এটাই। বলছিলাম না যে, আমাদের বন্ধুত্ব এতোটাই গাঢ় ছিল যে, একটা সময় দুই পরিবারের সবাই আমাদের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়েন। তার বাবা মার সঙ্গে আমার বাবা মাও কানেক্টেড হয়ে পড়েছিলেন।

পরিবারের সঙ্গে হোলি খেলছেন নাদিয়া ও সালমান

আমাকে আসলে অনেক বছর ধরেই বিয়ের জন্য জোরাজুরি করছিলো পরিবার থেকে। কিন্তু আমি বিয়ে নিয়ে বরাবরই খুব সচেতন ছিলাম। কখনোই চাইতাম না, কারও চাপে পড়ে বা মোহে পড়ে বিয়ে করে কোন ঝামেলায় জড়িয়ে পড়তে। কিন্তু সালমান আমার ভীষণ ভালো বন্ধু হওয়ায় আমাদের বিয়ের কথা যখন দুই পরিবার থেকে আসলো তখন আমার আছে এটা কমফোর্ট জোন মনে হয়েছে। আমার বাবা মা বলছিলেন, এতোদিন অনেক বাহানা করেছে, এবার তোমার মানসিকতার সঙ্গে মেলে এমন ছেলে পেয়েছি, তাদের পরিবারও খুব ভালো, তোমরা একে অপরের কেয়ার করো, এখানেই বিয়েটা করো। সালমানকেও তার বাবা মা একই কথাই বলেছেন হয়তো। পরবর্তীতে আমরা রাজী হয়ে যাই।

বিয়ের সাজে সালমান ও নাদিয়া

আপনি অনেক বছর ধরে প্রতিষ্ঠিত একজন তারকা। আর আপনার স্বামী কেবল শোবিজে নিজের জায়গা তৈরী করার লড়াই করছেন। এ বিষয়টি কী কখনোই সম্পর্কের মধ্যে আসেনি?


আমি অভিনেত্রী বা মডেল, সেটি তো আমার পেশা। তার আগে তো আমি একজন মানুষ। তাছাড়া আমি নিজেকে কখনোই সেলিব্রেটি মনে করি না। আমি সাধারন একটি মেয়ে যে পরিবার নিয়ে থাকতে সবসময় পছন্দ করে। আমি কখনোই চাইনি আমার স্বামী বিলিয়নিয়ার হোক। মোটকথা টাকা পয়সার পেছনে আমি কখনোই ছুটিনি। নিজের স্বাধীনতা রেখে কাজ করেছি, অতোটুকুই উপার্জন করেছি যতোটুকু একটি সুন্দর জীবনের জন্য দরকার।

হোলি খেলছেন নাদিয়া ও সালমান

তাই সব সময় জীবনসঙ্গী হিসেবে একজন ভালো ও শিক্ষিত মানুষ চেয়েছি। আর চেয়েছি এমন একজনকে জীবনে পাশে চাই যার সঙ্গে বন্ধুর মতো চলতে পারবো, কোনকিছু বলতে গেলে ভাবতে হবে না যে সে কি ভাববে? কিংবা বিয়ের পর নিজেকে বদলে অন্য একটা মানুষ হয়ে যেতে হবে এমন পরিবারও আমি চাইনি।

হোলি খেলছেন নাদিয়া ও সালমান

সালমানকে এখন পর্যন্ত যতোটা দেখেছি তাতে তাকে আমার খুব ভালো মনের একজন মানুষ মনে হয়েছে। সে একজন শিক্ষত ছেলে, মাস্টার্স কমপ্লিট করেছে। শোবিজে হয়তো অল্পদিন কাজ করছে, কিন্তু এর আগে সে অন্য পেশায় দক্ষতার প্রমাণ দিয়েছে। এছাড়া ফরিদপুরে তাদের পারিবারিক ব্যবসায়ও সে সময় দিয়ে থাকে। তার পরিবারও ভীষণ আন্তরিক। আমার শ্বশুর শাশুড়ি খুব সংস্কৃতিমনা। তারা আমার কোন ভালো নাটক দেখলে ফোন করে জানান। আমরা একসঙ্গে ঈদে আমর নাটক দেখেছি। জীবনটা ছোট্ট, ছোট ছোট আনন্দ নিয়ে এভাবেই যাতে কেটে যায় সেটাই একমাত্র চাওয়া।

;

সোনাক্ষী-জহিরের বিয়েতে ‘ধর্ম’ কতোটা বাধা হবে?



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
জাহির ইকবাল ও সোনাক্ষী সিনহা / ছবি : ইন্সটাগ্রাম

জাহির ইকবাল ও সোনাক্ষী সিনহা / ছবি : ইন্সটাগ্রাম

  • Font increase
  • Font Decrease

বলিউডপাড়ার গুঞ্জন সত্যি হলে রাত পোহালেই বিয়ের পীড়িতে বসবেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা। পাত্রও বলিউডের মানুষ, একজন উঠতি অভিনেতা। সোনাক্ষী সিনহা আর জাহির ইকবালের প্রেম নিয়ে কম লেখালেখি হয়নি গণমাধ্যমে!

একাধিক গণমাধ্যম এও বলছে, আগামীকাল রবিবার (২৩ জুন) বিয়ে করছেন তারা। এই জুটির ধর্মীয় পরিচয় আলাদা হওয়ায় শুরুতে শোনা যাচ্ছে নানা গুঞ্জন!

সোনাক্ষী সিনহা / ছবি : ইন্সটাগ্রাম

বিশেষ করে, অনেকের প্রশ্ন, মুসলিম পাত্র জাহিরকে বিয়ের পর কি সনাতনী সোনাক্ষী ধর্ম পরিবর্তন করে ইসলাম গ্রহণ করবেন? এসব প্রশ্নের খোলাখুলি উত্তর দিয়েছেন সোনাক্ষীর হবু শ্বশুর ইকবাল রতংশী।

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জাহিরের বাবা জানিয়েছেন, সোনাক্ষী ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করবেন না বিয়ের পর। একই সঙ্গে তিনি ফ্রি প্রেস জার্নালকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে জানিয়ে দিয়েছেন যে তারা সোনাক্ষী জাহিরের বিয়েতে না কোনো মুসলিম আচার পালন করবেন না হিন্দু আচার। সইসাবুদ করে বিয়ে করবেন তারা।

জাহির ইকবাল / ছবি : ইন্সটাগ্রাম

তিনি জোর দিয়ে আরও বলেন, ‘আমার ছেলে ধর্ম বদলাচ্ছে না এটা নিশ্চিত। এটা মনের মিলনের অনুষ্ঠান। ধর্মের এখানে কোনও কাজ নেই।’ তিনি জানিয়েছেন ঈশ্বর এক, হিন্দুরা ঠাকুর বলে আর মুসলিমরা আল্লাহ। ব্যাপারটা একই। তাই এসব নিয়ে তিনি ভাবিত নন। জানান তার আশীর্বাদ সবসময় জাহির এবং সোনাক্ষীর সঙ্গে থাকবে।

সোনাক্ষী সনাতনী অন্যদিকে বর জাহির মুসলিম- তাহলে কোন রীতিতে হবে তাদের বিয়ে? এ বিষয়ে দুই পরিবারের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়, জাহিরের বাড়িতে রবিবার (২৩ জুন) দুপুরে আইনি বিয়ে সারবেন তারা। ‘বিশেষ বিবাহ আইন ১৯৫৬’ অনুসারে হবে সেই বিয়ে।

সোনাক্ষী সিনহা / ছবি : ইন্সটাগ্রাম

এদিকে মেয়ের বিয়ে নিয়ে সোনাক্ষীর বাবা বর্ষিয়ান অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা টুঁ শব্দটি করেননি! তবে শেষ সময়ে এসে মেয়ের বিয়ের আয়োজনে খুব ভালোভাবেই যুক্ত হলেন। আনন্দ আয়োজনে পরিবারের সবাইকে নিয়ে অংশ নিচ্ছেন শত্রুঘ্ন! এমনকি শুক্রবার মেয়ের মেহেদী অনুষ্ঠানেও সক্রিয় ছিলেন তিনি।

শত্রুঘ্ন সিনহার এক ঘনিষ্ট বন্ধু শশী রঞ্জন ইটাইমসকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, সোনাক্ষী সিনহা যাকে ভালোবাসে তাকেই বিয়ে করতে চলেছেন। সকলেই অংশ নিচ্ছেন, শত্রুঘ্নর ভাই আসছে আমেরিকা থেকে। ওদের বিয়ের রেজিস্ট্রি জাহির ইকবালের বাড়িতে অনুষ্ঠিত হবে। এটা আমাদের সবার জন্য দারুণ আনন্দের একটা মুহূর্ত।

সোনাক্ষী সিনহা ও জাহির ইকবাল / ছবি : ইন্সটাগ্রাম

সাত বছর ধরে প্রেম করছেন সোনাক্ষী সিনহা ও জাহির ইকবাল। ২০২২ সালে ‘ডাবল এক্সএল’ ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন সোনাক্ষী ও জাহির। সালমান খানের এক পার্টিতে কাছাকাছি আসেন তারা। কাকতালীয়ভাবে সালমানের হাত ধরেই দুজনেই বলিউডে পা রাখেন।

;

ভক্তকে খুনের মামলায় জেলে কন্নড় সুপারস্টার



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
দর্শন থুগুদিপা

দর্শন থুগুদিপা

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের কন্নড় সিনেমার সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেতাদের একজন দর্শন থুগুদিপা। এক ভক্তকে নৃশংসভাবে হত্যা মামলায় এই তারকা অভিনেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত ৯ জুন বেঙ্গালুরু শহরের এক নালা থেকে রেণুকা স্বামী নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার আগের দিন কর্ণাটকের চিত্রদুর্গার বাড়ি থেকে তুলে এনে রেণুকাকে নৃশংসভাবে হত্যা করে লাশ নালায় ফেলে খুনিরা। সিনেমার কাহিনিকেও হার মানানো এই হত্যা মামলার তদন্ত করতে গিয়ে অভিনেতা দর্শনের নাম আসে।

ভক্তকে নৃশংসভাবে হত্যা মামলায় দর্শন থুগুদিপাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

রেণুকা এক ফার্মেসি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। ৩৩ বছর বয়সী রেণুকা চিত্রনায়ক দর্শনের একজন পাঁড় ভক্ত ছিলেন।

গত ১২ জুন অভিনেতা দর্শনকে গ্রেপ্তার করে বেঙ্গালুরু পুলিশ। তাকে গ্রেপ্তারের খবর প্রকাশ্যে আসার পর রীতিমতো হইচই পড়ে যায়।

দর্শনের কথিত প্রেমিকা ও কন্নড় অভিনেত্রী পবিত্র গৌড়া

অভিনেতা দর্শন কেন ভক্তকে খুন করতে গেলেন? ঘুরেফিরে এই প্রশ্নই সামনে আসছে। পুলিশের ধারণা, দর্শনের কথিত প্রেমিকা ও কন্নড় অভিনেত্রী পবিত্র গৌড়াকে ইনস্টাগ্রামে আপত্তিকর বার্তা পাঠিয়েছেন রেণুকা। এ কারণে ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে খুনের পরিকল্পনা করেন দর্শন!

এই হত্যা মামলায় এ পর্যন্ত অভিনেতা দর্শন, অভিনেত্রী পবিত্র গৌড়াসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে দর্শনসহ চারজনকে পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে। হেফাজতের মেয়াদ শেষে আজ শনিবার বিকেলে আদালতে তোলা হবে তাঁকে। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বেঙ্গালুরু কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হতে পারে।

দর্শন থুগুদিপা

অভিযোগের বিষয়ে দর্শন থুগুদিপার আইনজীবী রঙ্গনাথ রেড্ডি বিবিসিকে বলেন, ‘এটি একটি ভিত্তিহীন অভিযোগ। দর্শনের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে কোনো প্রমাণ নেই।’

৬০টির বেশি কন্নড় সিনেমায় অভিনয় করেছেন দর্শন। প্রতি সিনেমায় ২০০ থেকে ২৫০ মিলিয়ন রুপি পারিশ্রমিক নেন তিনি। কন্নড় সিনেমার একজন বড় তারকা হওয়ায় তার প্রচুর ভক্ত রয়েছে।

দর্শনের বিরুদ্ধে নির্যাতনের মামলা করেছিলেন স্ত্রী বিজয়ালক্ষ্মী

এর আগে ২০১১ সালে দর্শনের বিরুদ্ধে নির্যাতনের মামলা করেছিলেন স্ত্রী বিজয়ালক্ষ্মী। সেই মামলায় চার সপ্তাহ কারাগারে ছিলেন দর্শন। পরে স্ত্রী মামলা তুলে নেওয়ার পর ছাড়া পেয়েছিলেন।

;

দেখুন অভিনেত্রী চমকের বিয়ের দুটি সাজ



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বিয়ের সাজে চমক

বিয়ের সাজে চমক

  • Font increase
  • Font Decrease

অল্প সময়ে টিভি নাটকের ইন্ডাস্ট্রিতে জায়গা করে নিয়েছেন অভিনেত্রী রুকাইয়া জাহান চমক। সাবলিল অভিনয় এবং অপরূপা সুন্দরীতো তিনি বটেই! সঙ্গে যুক্ত হয়েছে তার বুদ্ধিদীপ্ত কথাবার্তা। মাঝে সহশিল্পীদের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে তৈরী করেছেন বিতর্ক। সব মিলিয়ে বর্তমানে টিভি পর্দার অন্যতম চর্চিত অভিনেত্রী চমক।

অনেকেই বলে থাকেন নায়িকারা বিয়ে করে ফেললে চাহিদা কমে যায়। বিশেষ করে চমকের মতো উঠতি অভিনেত্রীর বেলায় সে কথা আরও হলফ করে বলা হয়। তবে কিছু অভিনেত্রী বিয়ের পরও ভালো কাজের মাধ্যমে নিজের অবস্থান ধরে রাখতেও সক্ষম হয়েছেন। তা ভেবেই হয়তো পুরোপুরি জ্বলে ওঠার আগেই বিয়ের পীড়িতে বসলেন চমক।

স্বামীর সঙ্গে বিয়ের সাজে চমক

চমক এখন শ্রীলংকায়। সেখান থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে একের পর এক নতুন আপডেট দিচ্ছেন তার ব্যক্তিগত জীবনের। 

আংটি বদলের খবরটিই প্রথম প্রকাশ্যে আনেন চমক। এরপরই তিনি জানান তার শ্রীলংকা যাওয়ার খবর। সেখান থেকে নিজের গায়ে হলুদের ছবি প্রকাশ করেন। ফলে অনেকেই ধরে নিয়েছিলেন যে চমক বোধ হয় ডেস্টিনেশন ওয়েডিং করতে শ্রীলংকা গিয়েছেন। 

শ্রীলংকায় হানিমুনে গেছেন চমক

কিন্তু আজ চমক যে ছবিগুলো প্রকাশ করলেন তাতে আসল ঘটনাটি প্রকাশ হলো। মূলত এই অভিনেত্রীর বাগদান ও বিয়ে বাংলাদেশেই হয়েছে। এবং সেটি খুবই সাদামাটাভাবেই হয়েছে। জমক একটি লাল সুতি শাড়ি পরে বিয়ে করেছেন! তাও একটি মাদ্রাসায় গিয়ে।

নিকাহ অনুষ্ঠানে চমক

শুধু তাই নয়, তিনি জানিয়েছেন, মাত্র ৯ টাকা দেনমোহরে বিয়ে সেরেছেন এ অভিনেত্রী।

স্বামীর সঙ্গে বিয়ের সাজে চমক

শনিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি পোস্টে চমক লিখেছেন, ‘আমার জন্ম তারিখ ৯, তাই সংখ্যাটি আমার লাকি নাম্বার। কাজেই আমরা মাত্র নয় টাকা দেনমোহরের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। কারণ আমরা বিশ্বাস করি, অর্থ কখনও দাম্পত্য জীবনের ভিত্তি হতে পারে না। আমরা এটাও বিশ্বাস করি, আমাদের ভালোবাসা কিংবা একসঙ্গে থাকার হিসাবটা টাকা দিয়ে কখনও পরিমাপ করা যাবে না।’

মাদরাসার ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে বিয়ের খাবার সেরেছেন

ক্যাপশনে অভিনেত্রী আরও লিখেছেন, ‘খুবই সাদামাটাভাবে বিয়ের আয়োজন সারা হয়েছে। কয়েকজন আন্তরিক সুখী মানুষদের নিয়েই এই আয়োজন। মাদরাসার ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে খাবার সেরেছি। যতটা ছিমছাম রাখা যায় আরকি। আমাদের পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাদের প্রতি নিরন্তর ভালোবাসা রইলো।’

বিয়ের সাজে চমক

বিয়ে সাদামাটা করলেও হানিমুন কাটাতে বরকে নিয়ে তিনি শ্রীংলকায় অবস্থান করছেন এখন। এবং নিজের টাকাতেই এই হানিমুন করছেন বলে জানিয়েছেন গণমাধ্যমকে!

চমকের গায়ের দিন স্বামীর সঙ্গে হলুদের ছবি

জানা গেছে, চমকের বর আজমান নাসির পেশায় একজন ব্যবসায়ী। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ায়। ব্যবসার পাশাপাশি অভিনয়ও করেছেন তিনি। চমকের সঙ্গে তার স্বামীকে দেখা গেছে ‘দ্য লাস্ট হানিমুন’ নাটকে।

চমকের গায়ে হলুদের ছবি

উল্লেখ্য, চমক ২০১৭ সালে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় রানারআপ হয়ে শোবিজ অঙ্গনে পা রাখেন। লেখাপড়া শেষে ২০২০ সালে ছোট পর্দার অভিনয় শুরু করেন তিনি। কাজ করেছেন ওটিটিতেও।

;