জাতির কাছে ক্ষমা চাইলেন অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন, ছবি: সংগৃহীত

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দাবানলে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত যখন পুড়ে ছাই হয়ে যাচ্ছে, তখন ছুটি কাটাতে যুক্তরাষ্ট্রের দ্বীপ অঙ্গরাজ্য হাওয়াইয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী। আর এতে প্রচণ্ড সমালোচনার মুখে পড়েছেন স্কট মরিসন। পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাটাতে যাওয়ার জন্য অবশ্য জাতির কাছে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।

শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) তিনি বলেন, ‘এই সময়ে আমরা পরিবারের সঙ্গে ছুটি কাটাতে আসায় ভয়াবহ দাবানলের ক্ষতিগ্রস্তদের কারও প্রতি কোনো আঘাত দিয়ে থাকলে বা অপরাধ করলে আমি খুবই দুঃখিত।’

সিডনিভিত্তিক রেডিও ২জিবিকে মরিসন জানান, তিনি হাওয়াই রয়েছেন। দাবানল ও গত সপ্তাহে নিউজিল্যান্ডের আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাতের হালনাগাদ খবর নিয়মিত রাখছেন। ছুটি সংক্ষিপ্ত করে তিনি দেশে দ্রুত ফিরবেন বলেও জানান।

অস্ট্রেলিয়ার দাবানল, ছবি: বিবিসি

অঘোষিত ছুটি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী দেশের বাইরে চলে গেছেন-এমন খবরে দেশটির জনগণ ক্ষেপে যায়। অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর ছুটি নেয়ার সমালোচনা শুরে করেন। ব্যঙ্গাত্মক শিরোনামে পোস্টার-ফেস্টুন নিয়ে রাস্তায়ও নামেন অনেকে। জলবায়ু পরিবর্তনে মরিসন ও তার সরকার কাজ করছে না বলে অভিযোগ অনেক অস্ট্রেলীয় নাগরিকের।

তবে, কয়েকজন মন্ত্রী মরিসনের ছুটি নেওয়াকে যথাযথ হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

তাপদাহের ম্যাপের ছবি, ছবি: বিবিসি

অস্ট্রেলিয়ার জরুরি অবস্থা, উদ্ধারকাজ করতে হিমশিম খাচ্ছে উদ্ধারকর্মীরা। একই সঙ্গে উচ্চ তাপমাত্রায় চরম অস্বস্তিতে ভুগছে দেশটির জনগণ। বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ায় গড়ে তাপমাত্রা ছিলো ৪১ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন সাউথ অস্ট্রেলিয়ার লুলারবোরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৪৯ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

গত সেপ্টেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন অংশে দাবানলে আটজন নিহত হয়েছে, পুড়ে ছাই হয়ে গেছে সাতশ’র বেশি ঘর-বাড়ি ও লাখো লাখো হেক্টর বন-জঙ্গল।

আপনার মতামত লিখুন :