তিন মাস পর অস্ট্রেলিয়ার দাবানল নিয়ন্ত্রণে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
তিন মাস পর অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের বৃহত্তম দাবানলটি নিয়ন্ত্রণে এসেছে, ছবি: সংগৃহীত

তিন মাস পর অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের বৃহত্তম দাবানলটি নিয়ন্ত্রণে এসেছে, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দীর্ঘ তিন মাস পর অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের বৃহত্তম দাবানলটি নিয়ন্ত্রণে এসেছে। সোমবার (১৩ জানুয়ারি) দেশটির দমকল বাহিনী এ তথ্য জানায়।

নিউ সাউথ ওয়েলসের দমকলকর্মীরা জানায়, সিডনির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় অঞ্চলের গস্পার্স পর্বতের বৃহত্তম দাবানল (মেগাব্লেজ) নিয়ন্ত্রণে এসেছে। দীর্ঘ তিন মাস ধরে জ্বলছিল দাবানলটি।

তারা আরও জানায়, আবহাওয়া আদ্র রয়েছে। যার ফলে দাবানল নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে তারা।

এদিকে অঞ্চলটিতে পরবর্তী সপ্তাহে ৫০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে জানিয়েছে দেশটির আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়া পূর্বাভাসটি সত্য হলে এটি সবচেয়ে বড় উপহার হবে বলে জানিয়েছে নিউ সাউথ ওয়েলসের স্থানীয় দমকল বাহিনী।

নিউ সাউথ ওয়েলসের বৃহত্তম দাবানল নিয়ন্ত্রণে, ছবি: সংগৃহীত

সোমবার গস্পার্স পর্বত পরিদর্শনে গিয়েছেন নিউ সাউথ ওয়েলসের স্থানীয় দমকল বাহিনীর কমিশনার শেন ফিটসিম্মনস। তিনি বলেন, অঞ্চলটিতে এখনো আগুন জ্বলছে। কিন্তু তা খুব সামান্য।

তবে এখন পর্যন্ত পুরো অস্ট্রেলিয়ায় ডজেন খানেক দাবানল জ্বলছে যা এখনো নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

গস্পার্স পর্বতের ৮ লাখ হেক্টর বনভূমি আগুনে পুড়ে গেছে। যা ইউরোপের দেশ অস্ট্রিয়া থেকেও বড়।

সর্বশেষ পাঁচ মাস ধরে চলে আসা অস্ট্রেলিয়ার দাবানলে এখন পর্যন্ত প্রায় এক বিলিয়ন প্রাণী মারা গেছে। 

দেশটির পরিবেশমন্ত্রী সুসান লে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে জানিয়েছেন, দেশের কিছু কিছু অঞ্চলে আবার কোয়ালাকে বিপন্ন হিসাবে ঘোষণা করা হতে পারে।

দাবানলে পুড়ে গেছে ক্যাঙ্গারু, ছবি: সংগৃহীত 

এদিকে দাবানল নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় সমালোচনার মুখে পড়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। একটি পরিসংখ্যানে দেখা যায়, ৫৯ শতাংশ ভোটার তার কার্যক্রমে খুশি নয়। আর ৩৭ শতাংশ ভোটার সন্তুষ্ট রয়েছে।

দাবানল নিয়ন্ত্রণে মরিসন সেনাবাহিনী মোতায়েন করেছেন। এছাড়া কয়েক বিলিয়ন ডলারের সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

আপনার মতামত লিখুন :