৩ হাজার ৭৩২ হাজি বাড়ী ও ট্রেন ভাড়ার উদ্বৃত্ত অর্থ ফেরত পাবেন

ইসলাম ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
হজ অফিস, আশকোনা, ঢাকা, ছবি: সংগৃহীত

হজ অফিস, আশকোনা, ঢাকা, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

২০১৯ সালে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পবিত্র হজ সম্পন্নকারী ৭ হাজার ১৫২ জনের মধ্যে ৩ হাজার ৭৩২ জন হাজির বাড়ী ও ট্রেন ভাড়ার উদ্বৃত্ত অর্থ ফেরত দেওয়া হবে।

আশকোনাস্থ হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম সাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ সম্পন্নকারী এসব হাজিদের বাড়ী ও ট্রেন ভাড়ার উদ্বৃত্ত অর্থ ফেরত দেওয়ার কথা জানা গেছে।

প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পবিত্র হজ সম্পন্নকারীদের মধ্যে ৮টি বাড়ীতে অবস্থানকারী হজযাত্রীদের বাড়ী ও ট্রেন ভাড়ার উদ্বৃত্ত অর্থ ফেরত দেওয়া হবে।

বাড়ীগুলো হলো- বাড়ী নং-১: রিহাব আল আখির (Rehab Al Akheer), বাড়ী নং-২: মানার আল খায়ের (Mannar Al Khair), বাড়ী নং-৩: মাসা আল হানি (Masa Al Hani), বাড়ী নং-৪: হোটেল হেরা (Hotel Hera), বাড়ী নং-৬: হোটেল সালিম হাজ্জা বারকাতি (Hotel Salem Hazza Barkati), বাড়ী নং-৯: হোটেল দিয়ার আল মাতার (Hotel Diyar Al Matar), বাড়ী নং-১০: হোটেল তালিয়া আল রাওয়া (Hotel Talia Al Rawaya) ও বাড়ী নং-১৩: আইমান আল হিজরা (Ayman Al Hijrah)।

হজের সময় এসব বাড়ীতে অবস্থানকারী হাজিদের মূল পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি নিয়ে ১১ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে হজ অফিস, ঢাকায় যোগাযোগপূর্বক প্রাপ্য অর্থ সংগ্রহ করতে হবে।

হাজিদের বাড়ী ও ট্রেন ভাড়ার উদ্বৃত্ত অর্থ ফেরত দেওয়া প্রসঙ্গে হজ অফিসের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন, ‘প্রতি বছরই হজ শেষে হাজিদের বাড়ী ও ট্রেন ভাড়ার উদ্বৃত্ত অর্থ ফেরত দেওয়া হয়। আগে টাকাটা ফেরত দেওয়া হতো মক্কাতেই, এবার ঢাকা থেকে ফেরত দেওয়া হচ্ছে। মূলত সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীদের বাড়ী ভাড়ার অর্থ নেওয়া হয় হজ প্যাকেজে একই রেটে। কিন্তু পরে এক মানের বাড়ী না পাওয়ায় ভিন্ন ভিন্ন বাড়ীতে তাদের থাকতে হয়, সে কারণে ভাড়ার তারতম্য হয়। তাই উদ্বৃত্ত অর্থ ফেরত দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া এবার আমরা সরকারি হজযাত্রীদের কাছ থেকে ট্রেন ভাড়া বাবদ সৌদি সরকারের প্রদেয় তালিকা মতে ৫২৫ রিয়াল করে নিয়েছিলাম। কিন্তু হজের সময় সৌদি সরকার আমাদের হাজিদের কাছ থেকে ট্রেন ভাড়া বাবাদ ২৬২ রিয়াল করে নেয়। সেই উদ্বৃত্ত টাকাটা ফেরত দেওয়া হচ্ছে।’

বাড়ীভেদে ফেরত দেওয়া টাকার পরিমাণ হলো- বাড়ী নং-১: ৫ হাজার ৯০৬ টাকা, বাড়ী নং-২: ১২ হাজার ৭৬৮ টাকা, বাড়ী নং-৩: ৫ হাজার ৯০৬ টাকা, বাড়ী নং-৪: ৮ হাজার ৯৮৮ টাকা, বাড়ী নং-৬: ৩ হাজার ৩৭৯ টাকা, বাড়ী নং-৯: ২ হাজার ২৫০ টাকা, বাড়ী নং-১০: ৮ হাজার ৭১৮ টাকা, ও বাড়ী নং-১৩: ১৫ হাজার ১৩১ টাকা।

উল্লেখ্য, সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় চলতি বছর সর্বমোট ১ লাখ ২৭ হাজার ১৫২ জন বাংলাদেশি হজপালনের জন্য সৌদি আরব যান। তন্মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭ হাজার ১৫২ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার হজযাত্রী ছিলেন।

বিজ্ঞপ্তি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

আপনার মতামত লিখুন :