একনের সমস্যা কমাতে অ্যালোভেরা

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সচরাচর আমরা যে ভুলটি করে থাকি সেটা হলো সাধারণ ব্রণ বা পিম্পলের সমস্যার সাথে একনের সমস্যাটিকে মিলিয়ে ফেলি। ত্বকে পিম্পল দেখা দেয় কোন শারীরিক সমস্যার লক্ষণ হিসেবে। কম ঘুম, অপর্যাপ্ত পানি পান, পুষ্টিকর খাদ্যের অভাব বা পিরিয়ডকালীন সময়ের দরুন পিম্পল দেখা দেয়। যা কিছুদিনের মাঝে নিজ থেকেই ভালো হয়ে যায়।

অন্যদিকে একনের (Acne) সমস্যাটি আলাদাভাবে একটি বিশেষ চর্মরোগ। চুল ও ত্বকের ফলিকলে ব্যাকটেরিয়া দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার ফলে এবং তেলগ্রন্থির অতিরিক্ত তেল নিঃসরণের ফলে মুখের ত্বকে লালচে ছোট-বড় ব্রণের মতো দেখা দেয়। যা সহজে ভালো হতে চায় না।

একনের সমস্যায় চর্মরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ খুবই জরুরি। তবে ঘরোয়াভাবে ত্বকের পরিযর্চা করতে চাইলে বেছে নিতে হবে একেবারেই সাধারণ ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াবিহীন প্রাকৃতিক উপাদান। এমনই একটি উপাদান হলো অ্যালোভেরা পাতার জেল। একনে প্রবণ ত্বকের যত্নের জন্য অ্যালো জেলের কিছু বিশেষ ও উপকারী ব্যবহারের ধরণ আজকের ফিচারে তুলে আনা হলো।

বিশুদ্ধ অ্যালোভেরা জেল

অ্যালোভেরা পাতা কেটে ও ছেঁচে তার ভেতর থেকে জেল বের করতে হবে। চামচের সাহায্যে জেলটি থেঁতলে নিতে হবে। এই অ্যালো জেল ত্বকের আক্রান্ত স্থানে দিয়ে ঘণ্টাখানেক রেখে স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানিতে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। প্রতি একদিন অন্তর এই সাধারণ নিয়মে অ্যালো জেল ব্যবহার করতে হবে।

অ্যালোভেরা, মধু ও দারুচিনি গুঁড়া

aloe

গবেষণার তথ্য মতে মধুতে একনে তৈরিকারী ব্যাকটেরিয়া- প্রপাইনিব্যাকটেরিয়াম একনেস (Propionibacterium acnes) ও স্ট্যাফিলোকক্কাস অরাস (Staphylococcus aureus) ধ্বংসকারী উপাদান আছে। অন্যদিকে দারুচিনি গুঁড়াতে থাকা প্রদাহ বিরোধী উপাদান ত্বকের প্রদাহকে প্রতিরোধ করে। ফলে অ্যালো জেল, মধু ও দারুচিনি গুঁড়ার মিশ্রণ একনের সমস্যায় খুব ভালো কাজ করে।

এই মিশ্রণটি তৈরির জন্য দুই টেবিল চামচ বিশুদ্ধ অ্যালো জেল, চা চা চামচ মধু ও আধা চা চামচ দারুচিনি গুঁড়া একসাথে মিশিয়ে ত্বকের আক্রান্ত স্থানে আলতোভাবে ম্যাসাজ করে আধা ঘন্টা রেখে দিতে হবে। এরপর কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। সপ্তাহে দুই-তিন বার ব্যবহার করতে হবে এই মিশ্রণটি।

অ্যালো জেল ও টি ট্রি অয়েল

বেশ কয়েকটি পরীক্ষা থেকে দেখা গেছে একনের ধরণ ভেদে বিশুদ্ধ টি ট্রি অয়েল একনের সমস্যা ও প্রদাহ কমাতে ৫-১৭ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকরি হয়। ব্যবহারের জন্য অলিভ অয়েলের সাথে ২-৩ ফোঁটা টি ত্রি অয়েল মিশিয়ে এর সাথে এক টেবিল চামচ অ্যালো জেল মিশিয়ে নিতে হবে। তৈরিকৃত মিশ্রণটি ত্বকের আক্রান্ত স্থানে ম্যাসাজ করে পনের মিনিট রেখে এরপর ধুয়ে ফেলতে হবে। প্রতি দুই দিন পরপর এই মিশ্রণটি ব্যবহার করতে হবে।

অ্যালো জেল, চিনি ও তেলের স্ক্রাব

ত্বকের উপরিভাগে জমে থাকা ধুলাবালি ও মরা চামড়া থেকেও একনের সমস্যাটি বৃদ্ধি পায়। ফলে ত্বককে পরিষ্কার রাখা ও স্ক্রাব ব্যবহার করা একনে প্রবণ ত্বকের জন্য খুবই জরুরি। সেক্ষেত্রে অ্যালোভেরার জেলের স্ক্রাব ব্যবহার একইসাথে ত্বককে পরিষ্কার রাখবে এবং ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখবে। এই স্ক্রাবটি তৈরির জন্য ১/৪ কাপ অ্যালোভেরা পাতার জেল, ১/২ কাপ জোজবা তেল ও ১/২ কাপ ব্রাউন সুগার মিশিয়ে নিতে হবে। মিশ্রণটি এমনভাবে তৈরি করতে হবে যেন চিনি সম্পূর্ণ গলে না যায়। স্ক্রাব তৈরি হয়ে গেলে পুরো মুখে আলতোভাবে স্ক্রাবটি ম্যাসাজ করতে হবে। অন্তত দশ মিনিট ম্যাসাজ করে এরপর কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। এই স্ক্রাবটি সপ্তাহে একবার ব্যবহারই যথেষ্ট।

আরও পড়ুন:

তৈলাক্ত ত্বকের যত্নে ঘরে তৈরি দুই ময়েশ্চারাইজার

টি ট্রি অয়েল ব্যবহারে সুরক্ষিত ত্বক

আপনার মতামত লিখুন :