ত্বকের পরিচর্যায় বেসনে তৈরি ফেস প্যাক

লাইফস্টাইল ডেস্ক, বার্তা২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

এ সময়ে সবার ঘরেই পাওয়া যাবে বেসন। ইফতারের বিভিন্ন ধরনের তেলেভাজা খাবার তৈরিতে বেসন অপরিহার্য একটি উপাদান। পরিচিত এই জিনিসটিই ত্বকের পরিচর্যায় দারুণ কার্যকরি এবং উপকারী। বিশেষত ত্বকের মরা চামড়া ও লোমকূপের ভেতর থেকে থেকে ময়লা দূর করতে ভালো কাজ করে। দেখে নিন বেসনে তৈরি তিনটি ভিন্ন ফেস প্যাকের বিবরণ।

অ্যালোভেরা ও বেসনের ফেস প্যাক

ফেস

অ্যালোভেরা পাতার জেলে থাকা পলিস্যাকারাইড ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বকের জন্য খুবই উপকারী উপাদান। বেসনের সাথে অ্যালোভেরা মিশিয়ে ব্যবহার করলে তার উপকারিতা পাওয়া যাবে সর্বোচ্চ। শুষ্ক, তৈলাক্ত, মিশ্র কিংবা স্বাভাবিক- সকল ধরনের ত্বকের সাথেই মানিয়ে যাবে এই ফেস প্যাকটি। ব্যবহারের জন্য এক চা চামচ বেসন ও এক চা চামচ অ্যালোভেরা পাতার জেল প্রয়োজন হবে।

এই দুইটি উপাদান একসাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে মুখের ত্বকে এপ্লাই করতে হবে। ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ত্বক ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার ম্যাসাজ করে নিতে হবে।

মুলতানি মাটি ও বেসনের ফেস প্যাক

ফেস

ত্বকের যত্নে প্রাকৃতিক উপাদান মুলতানি মাটির ব্যবহার বহু পুরনো। মুলতানি মাটি ত্বকের বাড়তি তেল ও ময়লা দূর করতে খুবই ভালো কাজ করে এবং লোমকূপকে ভেতর থেকে পরিষ্কার করে। মিশ্র ও তৈলাক্ত ত্বকের জন্য মুলতানি মাটি ব্যবহার করলে সবচেয়ে বেশি উপকার পাওয়া যায়। ব্যবহারের জন্য প্রয়োজন হবে দুই চা চামচ মুলতানি মাটি, এক চা চামচ বেসন ও এক চা চামচ গোলাপজল।

সকল উপাদান মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করে ত্বকে আলতোভাবে ম্যাসাজ করে ১৫ মিনিটের জন্য রেখে দিতে হবে। এরপর মুখ ধুয়ে ৭-৮ ফোঁটা নারিকেল তেল মুখে ম্যাসাজ করে নিতে হবে।

কলা ও বেসনের ফেস প্যাক

পুষ্টি সমৃদ্ধ মিষ্টি এই ফলটি ত্বককে ভেতর থেকে আর্দ্রতা যোগাতে এবং ত্বককে কোমল রাখতে কাজ করে। যাদের ত্বক শুষ্ক, তাদের জন্য এই ফেস প্যাকটি ব্যবহার করা হবে সবচেয়ে উৎকৃষ্ট। ব্যবহারের জন্য প্রয়োজন হবে ৪-৫ টুকরা পাকা কলার টুকরা, দুই চা চামচ বেসন ও দুই চা চামচ দুধ।

সকল উপাদান মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে মুখে ম্যাসাজ করে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এরপর কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন :