আরপিও সংশোধনী বিল পাস হলে ইসির ক্ষমতা খর্ব হবে: টিআইবি



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতীয় সংসদে উত্থাপিত গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের (আরপিও) সংশোধনী বিল পাস হলে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ক্ষমতা আরও খর্ব করবে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

প্রস্তাবিত সংশোধনী পাস করা হলে কমিশনের কাছে নির্বাচনী আইনের লঙ্ঘনের কারণে যৌক্তিক বিবেচিত হলে যেকোনো নির্বাচনী এলাকায় চলমান নির্বাচন বাতিলের যে ক্ষমতা বিদ্যমান আইনে রয়েছে, তা কেড়ে নেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেছে সংস্থাটি।

শুক্রবার (৯ জুন) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে টিআইবি বলেছে, গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে জানা যায়, জাতীয় সংসদে উত্থাপিত সংশোধিত আরপিও অনুযায়ী এই ক্ষমতা হারাতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন।

উল্লেখ্য, বিদ্যমান গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের ৯১(ক) ধারায় বলা আছে, নির্বাচন কমিশন যদি এই মর্মে সন্তুষ্ট হয় যে নির্বাচনে বলপ্রয়োগ, ভীতি প্রদর্শন এবং চাপ সৃষ্টিসহ বিভিন্ন বিরাজমান অপকর্মের কারণে যুক্তিযুক্ত, ন্যায়সঙ্গত এবং আইনানুগভাবে নির্বাচন পরিচালনা নিশ্চিত করতে সক্ষম হবেন না, তালে যেকোনো ভোটকেন্দ্র [বা, ক্ষেত্রমতে, সম্পূর্ণ নির্বাচনী এলাকায়] নির্বাচনের যেকোনো পর্যায়ে ভোট গ্রহণসহ নির্বাচনী কার্যক্রম বন্ধ করতে পারবে। প্রস্তাবিত সংশোধনীতে ‘যেকোনো ভোটকেন্দ্র বা, ক্ষেত্রমতে, সম্পূর্ণ নির্বাচনী এলাকায় নির্বাচনের যেকোনো পর্যায়ে ভোট গ্রহণসহ নির্বাচনী কার্যক্রম বন্ধ করতে পারবে’, এই বিধানটিকে সুকৌশলে বাতিল করে শুধুমাত্র সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ (পোলিং) বাতিল করার মধ্যে কমিশনের ক্ষমতাকে সীমাবদ্ধ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে এই সংশোধনীটি আইনে পরিণত হলে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে কমিশনকর্তৃক নির্বাচনী এলাকাভিত্তিক নির্বাচন বন্ধ করার ক্ষমতা থাকবে না।

বিষয়টিকে নির্বাচনী ব্যবস্থায় ‘মড়ার ওপর খাড়ার ঘা’ উল্লেখ করে টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, গত বছর অক্টোবরে সিসিটিভি ক্যামেরায় নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করে অনিয়মের প্রমাণ পেয়ে গাইবান্ধা-৫ আসনের উপনির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেছিল কমিশন। কমিশনের এই পদক্ষেপ ক্ষমতাসীন দলের দুশ্চিন্তার কারণ হতে পারে মর্মে পর্যবেক্ষকদের অনেকের মধ্যে যে ধারণা সৃষ্টি হয়েছিল, এই সংশোধনী তার যথার্থতাই প্রতীয়মান করে। সংশোধনীতে প্রস্তাবিত ‘ইলেকশন’-এর স্থলে ‘পোলিং’ শুধু শব্দগত পরিবর্তন নয়, এর ব্যাপকতা আরো অনেক বেশি। এই বিল পাসের মাধ্যমে কমিশনের ক্ষমতা খর্ব করা হলে তা দেশে অবাধ, সুষ্ঠু, অংশগ্রহণমূলক ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের সম্ভাবনা সম্পর্কে আস্থাহীনতার সংকটকে আরো ঘনীভূত করবে।

টিআইবির নির্বাহী পরিচালক বলেন, গাইবান্ধা-৫ এর মতো দুয়েকটি ব্যতিক্রম ছাড়া নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে সক্ষম হবে এমন প্রত্যাশার পেছনে যুক্তি যেখানে একান্তই বিরল; বিশেষ করে নির্বাচনকালীন সরকার, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিরপেক্ষ ও স্বার্থের দ্বন্দ্বমুক্ত ভূমিকার সম্ভাবনা যেখানে মরিচীকার মতো, সেখানে এই সংশোধনী কমিশনের বিদ্যমান আইনগত সক্ষমতা যতটুকুই রয়েছে তাকেও নিজেদের স্বার্থে আরও গণ্ডিবদ্ধ করার উদ্যোগ ছাড়া কিছুই নয়। নির্বাচনী অনিয়ম রোধে কমিশনের ক্ষমতা এভাবে খর্ব করা অগণতান্ত্রিক ও অসাংবিধানিক। শুধু তাই নয়, প্রস্তাবিত সংশোধনীতে ঋণখেলাপী ও বিলখেলাপীদের জন্য সুযোগ বাড়ানো হয়েছে। বিদ্যমান আদেশে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সাত দিন আগে ব্যাংকঋণ ও বিভিন্ন পরিষেবার বিল পরিশোধের অনুলিপি জমা দেয়ার বিধান থাকলেও, সংশোধনীতে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার আগের দিন পর্যন্ত সে সুযোগ রাখা হয়েছে। অবস্থাদৃষ্টে, ঋণখেলাপী ও বিলখেলাপীদের নির্বাচনে উৎসাহিত করা হচ্ছে- এমন ধারণা জোরালো হওয়া মোটেই অমূলক নয়।

উল্লিখিত সংশোধনী প্রস্তাবটি বাতিলের আহ্বান জানিয়েছে টিআইবি। পাশাপাশি অবাধ, সুষ্ঠু, অংশগ্রহণমূলক ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার চর্চার স্বার্থে নির্বাচনকালীন সরকার, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিরপেক্ষ ও স্বার্থের দ্বন্দ্বমুক্ত ভূমিকা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় আইনি ও প্রাতিষ্ঠানিক সংস্কারের সুনির্দিষ্ট উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছে সংস্থাটি।

কেমন থাকবে আজকের আবহাওয়া?



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীসহ খুলনা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সেই সঙ্গে খুলনা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে।

বুধবার (২৪ জুলাই) রাতে দেওয়া আবহাওয়ার সবশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বৃহস্পতিবারের (২৫ জুলাই) আবহাওয়া নিয়ে এমন তথ্য দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়েছে, মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে। এ অবস্থায় দেশের সব বিভাগে বৃষ্টিপাতের কথা বলেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। তবে তিন বিভাগে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

এ সময়ে সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

বুধবার রাত পর্যন্ত তার আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ ৭১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে কুতুবদিয়ায়। ঢাকায় রেকর্ড করা হয়েছে ৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত।

;

বৃষ্টিতে ঢাকার বায়ুতে স্বস্তি, মান ‘মাঝারি’ পর্যায়ে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীতে গতকাল রাতে বৃষ্টি হওয়াতে সুখবর মিলেছে ঢাকার বায়ুতে। বায়ুমান বিষয়ক ওয়েবসাইট আইকিউএয়ারের তথ্যানুযায়ী ঢাকার বাতাসের মান আজ ‘মাঝারি’ পর্যায়ে রয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) সকালে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক বায়ুমান বিষয়ক ওয়েবসাইট আইকিউএয়ারে দেখা গেছে, ঢাকার বাতাস ৯৫ স্কোর নিয়ে মানসূচকে আছে। বায়ু মানের এই স্কোরকে বলা হয়েছে মডারেট বা সহনীয়।

বিশ্বে দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় আজ ইরাকের রাজধানী বাগদাদ ২০০ স্কোর নিয়ে শীর্ষে এবং পাকিস্তানের লাহোর ১৭৮ স্কোর নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা ১৫৬ স্কোর নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। প্রতিবেশী দেশ ভারতের দিল্লি আজ ১১৩ স্কোর নিয়ে ৮ নম্বরে অবস্থান করছে।

সাধারণত, একিউআই স্কোর ৫১ থেকে ১০০ এর মধ্যে থাকলে তাকে ‘মাঝারি’ বা ‘গ্রহণযোগ্য’ পর্যায় হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ১০১ থেকে ১৫০ এর মধ্যে হলে বাতাসের মান 'সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর', ১৫১ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে ‘অস্বাস্থ্যকর’ বলে মনে করা হয়। ২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে 'খুব অস্বাস্থ্যকর' বলা হয়, ৩০১+ একিউআই স্কোরকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে।

বাংলাদেশে একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের ৫টি বৈশিষ্ট্যের ওপর ভিত্তি করে। সেগুলো হলো- বস্তুকণা (পিএম১০ ও পিএম২.৫), এনও২, সিও, এসও২ ও ওজোন (ও৩)।

দীর্ঘদিন ধরে বায়ু দূষণে ভুগছে ঢাকা। এর বাতাসের গুণমান সাধারণত শীতকালে অস্বাস্থ্যকর হয়ে যায় এবং বর্ষাকালে কিছুটা উন্নত হয়।

;

কুমিল্লায় পুলিশের ৩ মামলায় আসামি ৭ হাজারের অধিক



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কুমিল্লা
কুমিল্লায় পুলিশের ৩ মামলায় আসামি ৭ হাজারের অধিক

কুমিল্লায় পুলিশের ৩ মামলায় আসামি ৭ হাজারের অধিক

  • Font increase
  • Font Decrease

কুমিল্লায় কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, গাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডে পুলিশের পক্ষ থেকে তিনটি মামলা করা হয়েছে। এসব মামলায় এ পর্যন্ত শতাধিক আসামি গ্রেফতার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) সকালে বার্তা২৪.কম-কে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন।

তিনি বলেন, কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানায় পুলিশ বাদি হয়ে করা ৩টি মামলায় এজাহারনামীয় ও অজ্ঞাতনামা মিলিয়ে মোট ৭ হাজারের অধিক জনকে আসামি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত শতাধিক আসামি গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, গ্রেফতারকৃতদের আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। জড়িতদের ধরতে প্রতিদিনই সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে যাচ্ছি।

প্রসঙ্গ, কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীরা কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন কোটবাড়ী নন্দনপুর এলাকায় পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার পুলিশ সদস্যরা বাদী হয়ে ওই তিনটি মামলা দায়ের করেন।

;

সায়েদাবাদ থেকে ছেড়ে যাচ্ছে দূরপাল্লার বাস



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

কোটা সংস্কার আন্দোলন ঘিরে সৃষ্ট পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে দেশজুড়ে চলছে কারফিউ। এমন অবস্থার মধ্যেও আজ ভোর থেকেই সায়েদাবাদ ও গোলাপবাগ কাউন্টার থেকে দূরপাল্লার বাস ছেড়ে যেতে দেখা যায়। 

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) সরেজমিনে সায়েদাবাদ ও গোলাপবাগ কাউন্টারে এমন চিত্রের দেখা মেলে। 

সরেজমিনে গতকালকের থেকে আজ যাত্রী উপস্থিতি ও বাস ছাড়ার সংখ্যা বেশি দেখা যায়। গতকাল বেশ কিছু কোম্পানির টিকিট কাউন্টার বন্ধ থাকলেও আজ সবগুলো কাউন্টার খোলা রয়েছে।

কুমিল্লাগামী যাত্রী রাফসান বলেন, কারফিউ থাকলেও দূরপাল্লায় যাচ্ছে বাস। এতে স্বস্তি নিয়ে বাড়ি ফেরা যাচ্ছে। সঠিক সময়েই বাস ছাড়তেছে। 

ঢাকা-নোয়াখালী-মাইজদী-কুমিল্লা-লাকসাম অঞ্চলে চলাচল করা লালসবুজ পরিবহনের কাউন্টার মাস্টার মনির বলেন, গতকাল থেকে আজ যাত্রীর চাপ একটু বেশি। সবগুলো কাউন্টার খোলা রয়েছে। সকাল থেকেই বাস ছেড়ে যাচ্ছে।

হানিফ পরিবহনের কাউন্টার মাস্টার ইকবাল বলেন, ভোর থেকে এখন পর্যন্ত দূরপাল্লার উদ্দেশ্যে মোট ৮টি বাস ছেড়ে যায়। আজ সারাদিন বাস চলবে। গতকালও ভোর থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বাস চলাচল করেছে।

;