ফেনীতে শাশুড়িকে ডুপ্লেক্স বাড়ি বানিয়ে দেন মতিউর



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ফেনী
ডুপ্লেক্স বাড়ি

ডুপ্লেক্স বাড়ি

  • Font increase
  • Font Decrease

ছাগলকাণ্ডে ভাইরাল মুশফিকুর রহমান ইফাতের নানার বাড়ি ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের সোনাপুর এলাকায়। স্থানীয়রা বাড়িটিকে মিয়া বাড়ি হিসেবে চেনেন। দ্বিতীয় স্ত্রী শাম্মী আখতার শিবলীর অনুরোধেই ফেনীতে ১০ বছর আগে একটি বিলাসবহুল ডুপ্লেক্স বাড়ি বানিয়ে উপহার দিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য এবং কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট আপিল ট্রাইব্যুনালের প্রেসিডেন্ট মতিউর রহমান।

মতিউর রহমান ছেলে হিসেবে অস্বীকার করলেও মুশফিকুর রহমান ইফাত তারই ছেলে বলে নিশ্চিত করেছেন ইফাতের দুই মামা ও নিকটাত্মীয়রা। ইফাত ফেনী-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন হাজারীর ভাগিনা। ইফাতের মা শিবলী নিজাম হাজারীর মামাতো বোন।

ফেনীতে শ্বাশুড়িকে উপহার দেয়া বিলাসবহুল বাড়িটি জসিম উদ্দিন নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি দেখাশোনা করেন। তিনি বলেন, দীর্ঘ ১০ থেকে ১২ বছর ধরে তিনি বাড়িটি দেখাশোনা করছেন। সর্বশেষ গত দুই মাস আগেও এনবিআর কর্মকর্তা মতিউর রহমান, স্ত্রী শাম্মী আখতার শিবলী, ছেলে মুশফিকুর রহমান ইফাত ও শিবলীর মা বাড়িতে এসেছিলেন। কয়েকদিন থাকার পর আবার ঢাকায় ফিরে যান। মতিউর রহমানের শাশুড়ি ঢাকায় মেয়েদের বাসায় ও বাড়িতে আসা-যাওয়ার ওপর থাকেন। অন্য কোন বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি তিনি।

সরেজমিনে সোনাগাজী উপজেলার সোনাপুর এলাকায় মিয়া বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, দৃষ্টিনন্দন ডুপ্লেক্স বাড়িটির সকল দরজা বন্ধ। সেখানেই দেখা হয় মতিউর রহমানের দ্বিতীয় স্ত্রী শাম্মী আখতার শিবলীর জেঠাতো ভাই ও আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আজিজুল হক হিরণের সঙ্গে।

তিনি বলেন, এনবিআরের সদস্য মতিউর রহমান তার চাচাতো বোনের স্বামী। ইফাত তাদের সন্তান। শাম্মী আখতারের ছোট ভাই ঢাকাতে ব্যবসা করেন। বিভিন্ন সময় মতিউর স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে ফেনীর সোনাগাজীতে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে আসতেন বলেও জানান তিনি। তবে শাশুড়িকে মতিউরের বিলাসবহুল বাড়ি উপহারের বিষয়ে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যক্তি বলেন, গত বছর কোরবানির ঈদে মতিউরের ছেলে ইফাত কোটি টাকা ব্যয় করে ১৪টি গরু-ছাগল কিনেছিলেন। এর মধ্যে আটটি গরু ও দুটি ছাগল ঢাকায় কোরবানি দিয়েছেন। বাকি চারটি গরু নানার বাড়িতে নিজে এসে জবাই করে আত্মীয়-স্বজন ও গরিবদের মধ্যে বিতরণ করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, মতিউর রহমান ও তার শ্যালক নকিবের নামে ফেনী ও সোনাগাজীতে বেশ কিছু জমিজমা রয়েছে। যা মতিউরের স্ত্রী শাম্মী আখতারের জেঠাতো ভাই মো. আরিফুর রহমান তাদেরকে কিনে দিয়েছেন। তিনি এই সম্পত্তির দেখাশোনা করেন।

এ বিষয়ে মতিউরের স্ত্রী শাম্মী আখতারের জেঠাতো ভাই মো. আরিফুর রহমান বলেন, এনবিআর কর্মকর্তা মতিউর রহমান তার চাচাতো বোনের স্বামী। মুশফিকুর রহমান ইফাত তাদের একমাত্র সন্তান। শাম্মী আখতারের এক বোন ও এক ভাই রয়েছে।

তিনি বলেন, ২৫ বছর আগে মতিউরের সঙ্গে শাম্মী আখতারের বিয়ে হয়। বিয়ের এক বছর পর শাম্মী আখতারের বাবা অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা মিল্লাত মিয়া মারা যান। এরপর শাম্মীর অনুরোধে মতিউর শাশুড়ি, শালিকা লাভলী আক্তার ও শ্যালক মো. নকিবকে ঢাকায় নিয়ে যান। সেখানে লাভলীকে পড়ালেখা শেষে বিয়ে দেন। আর শ্যালক মো. নকিবকে বাসায় রেখে লেখাপড়া করান। সম্প্রতি নকিব চীন থেকে ফ্যাশন ডিজাইনের ওপর লেখাপড়া শেষ করে দেশে ফিরে এসে ব্যবসা ও চাকরি শুরু করেন। বর্তমানে তারা রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকায় নিজস্ব বাসায় থাকেন।

তিনি আরও বলেন, মতিউর হঠাৎ করে একটি ঝামেলায় জড়িয়ে পড়ায় তিনি নিজেকে নির্দোষ ও আড়াল করতে স্ত্রী-সন্তানদের অস্বীকার করছেন। তবে এটা অচিরেই সমাধান হয়ে যাবে। অন্যথায় ডিএনএ পরীক্ষা করলে ইফাতের বাবার পরিচয় পরিষ্কার হয়ে যাবে।

এর আগে, গত বুধবার (১৯ জুন) মুশফিকুর রহমান ইফাতের সঙ্গে নিজের কোনো আত্মীয় সম্পর্ক নেই বলে মন্তব্য করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সদস্য এবং কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট আপিলাত ট্রাইব্যুনালের প্রেসিডেন্ট মতিউর রহমান।

ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক অস্বীকার করে মতিউর রহমান বলেন, ইফাত নামের আমার কোনো ছেলে নেই। এমনকি আত্মীয় বা পরিচিতও নন। আমার একমাত্র ছেলে, তার নাম তৌফিকুর রহমান। একটি গোষ্ঠী আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছে। আমি এ বিষয়ে পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের সহায়তা চেয়ে আইনি পদক্ষেপে যাচ্ছি। সামাজিক মাধ্যমে তার ছবি ও নাম ব্যবহার করায় বিব্রত বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

তবে পরিবারটির ঘনিষ্ঠজনেরা বলছেন, ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার কারণে মতিউর রহমান ছেলেকে অস্বীকার করছেন। কারণ ১৫ লাখের ছাগলকে কেন্দ্র করে ভাইরাল হওয়ার পর ইফাতের দামি ব্র্যান্ডের ঘড়ি, গাড়ি, আলিশান জীবনযাপনের নানা বিবরণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ পাচ্ছে। সরকারি চাকরিজীবী বাবার বেতনের টাকা দিয়ে ছেলে কীভাবে এমন ব্যয়বহুল জীবনযাপন করতে পারে, তা নিয়েও নানা প্রশ্ন উঠতে থাকে। এ অবস্থায় পরিস্থিতি সামাল দিতে তিনি তাৎক্ষণিকভাবে ছেলের পরিচয় এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন।

উল্লেখ্য, সাদিক অ্যাগ্রো বিটল প্রজাতির একটি খাসিটির দাম ১৫ লাখ টাকা চেয়েছিল। পরে মতিউর পুত্র মুশফিকুর রহমান ইফাতের সঙ্গে ১২ লাখ টাকায় বিক্রির চুক্তি হয় তাদের। তবে খাসিটির মূল্য ও এর ক্রেতাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনার ‍সৃষ্টি হয়, মুহূর্তেই ভাইরাল হয় সেটি। এনবিআর কর্মকর্তা মতিউর রহমানকে তার বাবা পরিচয় দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিভিন্ন স্ট্যাটাসে চলছে আলোচনা-সমালোচনা।

বিকেলে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর সাম্প্রতিক চীন সফর নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন।

রোববার (১৪ জুলাই) বিকেল ৪টায় গণভবনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রীর উপপ্রেস সচিব এম এম ইমরুল কায়েস এ তথ্য জানিয়েছেন।

গত ৮ জুলাই বেইজিং সফর শুরু করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১১ জুলাই দেশে ফিরে আসার কথা ছিল তার। কিন্তু সফরসূচিতে পরিবর্তন এনে একদিন আগে দেশে ফেরেন (১০ জুলাই) প্রধানমন্ত্রী।

বেইজিংয়ে অবস্থানকালে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া চীনা প্রধানমন্ত্রী লি কিয়াংয়ের সঙ্গেও প্রতিনিধি পর্যায়ের দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে অংশ নেন।

সফরের শেষ দিন ১০ জুলাই বেইজিংয়ের গ্রেট হল অব দ্য পিপলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ও চীনের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে বৈঠকের পর দুই দেশ ২১টি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর করে এবং সাতটি প্রকল্পের ঘোষণা দেয়।

;

খিলগাঁওয়ে রেস্টুরেন্টে আগুন, দগ্ধ ২



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট বার্তা২৪.কম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর খিলগাঁওয়ে ‘খানাস’ নামে একটি রেস্টুরেন্টে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। এতে দুই জন আহত হয়েছেন।

শনিবার (১৩ জুলাই) রাত ৯টার দিকে রেস্টুরেন্টের রান্নাঘরে এ ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, অগ্নিকাণ্ডের পর পুরো ভবনের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়। আগুন নেভাতে গিয়ে দুইজন কিছুটা দগ্ধ হয়েছেন। আগুন লাগার খবর পেয়ে একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। কিন্তু তার আগেই আগুন নিয়ন্ত্রণে চলে আসে।

;

বান্দরবানে বৌদ্ধ ভিক্ষুর মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের দাবিতে মানববন্ধন



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বান্দরবান
বৌদ্ধ ভিক্ষুর মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের দাবিতে মানববন্ধন

বৌদ্ধ ভিক্ষুর মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের দাবিতে মানববন্ধন

  • Font increase
  • Font Decrease

বান্দরবানের কালাঘাটার আর্য ভ্রান্ত বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ড. এফ দীপংকর মহাথের (ধুতাঙ্গ ভান্তের) মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন তার শিষ্যরা। তাদের দাবি তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার (১৩ জুলাই) রাত ৯ টায় বন্দরবান শহরে প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন করা হয়।

সেখানে বক্তব্য দেন রাঙ্গামাটি মেডিকেল কলেজের শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মনোজ বড়ুয়া, অসীম বড়ুয়া, লায়ন নিপু কান্তি বড়ুয়া, ইউপি সদস্য বিরলার তঞ্চঙ্গ্যা, প্রকৌশলী শুভ বিকাশ বড়ুয়া ও বিশ্বজিৎ বড়ুয়া।

বক্তারা বলেন, দীপঙ্কর মহাথের অসাম্প্রদায়িক ব্যক্তি ছিলেন। তার মত ব্যক্তি আত্মহত্যা করতে পারেন না। এটা পরিকল্পিত একটা হত্যাকাণ্ড। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে হবে।

রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জেলা পুলিশ সুপার সৈকত শাহীন বলেন, এফ দীপঙ্কর মহাথের বিহারের কুটিরে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। এ ছাড়া মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে।

পুলিশ সুপার সৈকত শাহীন আরও বলেন, তার হাতের লেখা দুটি চিরকুট পাওয়া গেছে। ভিক্ষু দীপঙ্কর মহাথেরর রেখে যাওয়া চিরকুট ও পারিপার্শ্বিক অবস্থায় ধারণা করা হচ্ছে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তারপরও বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

জানা যায়, জেলা শহরের গোধারপাড়া থেকে আধা কিলোমিটার দূরে আর্যগুহা ধুতাঙ্গ বিমুক্তি বিহারে সকালে উপাসক-উপাসিকারা গেলে ধুতাঙ্গ ভান্তকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান। ধুতাঙ্গ ভান্তে একটি গুহায় ধ্যান করেন। ধ্যানের ওই গুহাকে ঘিরে কয়েক বছর আগে আর্যগুহা ধুতাঙ্গ বিমুক্তি বিহার গড়ে উঠেছে। ওই বিহারে তিনি শিষ্যসহ থাকতেন। বিহারটি জেলা শহরতলিতে হলেও রোয়াংছড়ি উপজেলার তারাছা ইউনিয়নে পড়েছে। বান্দরবান ছাড়াও রাঙামাটির বিলাইছড়ি ও চট্টগ্রামে আরও কয়েকটি স্থানে তাঁর বিহার রয়েছে।

এফ দীপঙ্কর মহাথের ২০১৬ সাল থেকে ওই বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। ৫২ বছর বয়সী এ ভান্তের বাড়ি চট্টগ্রাম জেলার ফটিকছড়ি উপজেলায়। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পালি বিষয়ের স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হয়ে স্বর্ণপদক পান। পরবর্তীতে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১২ সালে ‘অশোক শিলালিপি’র উপর তিনি পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

;

বরগুনায় ৮ কেজি গাঁজাসহ নারী আটক



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বরগুনা
গাঁজাসহ নারী আটক

গাঁজাসহ নারী আটক

  • Font increase
  • Font Decrease

বরগুনায় ৮ কেজি গাঁজাসহ মোসাম্মৎ কাকলি আক্তার (৩২) নামের এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৩ জুলাই) রাত আটটার দিকে বরগুনা-নিশানবাড়িয়া রুটে ক্রোক স্লুইজ এলাকার গ্রামীণ ব্যাংকের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন, বরগুনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মিজানুর রহমান। তিনি জানান,

আটককৃত, মোসাম্মৎ কাকলি (৩২) এম, বালিয়াতলী ইউনিয়নের মাইঠা গ্রামের বেল্লাল বয়াতির স্ত্রী।

বরগুনা সদর থানার, অফিসার ইনচার্জ মো. মিজানুর রহমান বার্তা২৪. কমকে বলেন, আমারা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি মাদক চালান হবে, সেই খবর পেয়ে পুলিশের একটি টিম নিয়ে অভিযান পরিচালনা করি, ৮ কেজি গাঁজাসহ এক নারী মাদক ব্যবসায়ী আটক করা হয়। তিনি আরো বলেন, তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হবে।

;