Alexa

আল্লাহর প্রতি ভয় ও ভরসা মুমিনের বৈশিষ্ট্য

আল্লাহর প্রতি ভয় ও ভরসা মুমিনের বৈশিষ্ট্য

আল্লাহর প্রতি ভয় ও ভরসা মুমিনের বৈশিষ্ট্য, ছবি: সংগৃহীত

তাকওয়া ও তাওয়াক্কুল মানে আল্লাহর ভয় ও ভরসা। ইসলামের পূর্ণাঙ্গতা অর্জন করে মহান আল্লাহর ভয়ে সব ধরনের গোনাহ থেকে বেঁচে থাকার নাম তাকওয়া। আর যে ব্যক্তি গোনাহ থেকে বেঁচে থাকেন তিনি মুত্তাকি বা আল্লাহভীরু। আর তাওয়াক্কুল অর্থ হলো- আল্লাহতায়ালাকে নিজের অভিভাবক বানিয়ে তার ওপর পরিপূর্ণভাবে ভরসা করা। আল্লাহতায়ালাকে সর্বশক্তিমান এবং সবকিছুর নিয়ন্তা বিশ্বাস করে তার ভয় ও ভরসা করলে আল্লাহ তাকে সফলতা দান করবেন এবং এর জন্য উত্তম প্রতিদান দেবেন।

এ দু’টি বিষয় অর্জন করতে পারলে আল্লাহতায়ালা দুনিয়া ও আখেরাতের সকল সমস্যা সমাধান করে দেবেন এবং আল্লাহতায়ালাই তার জন্য যথেষ্ট হয়ে যাবেন।

এ প্রসঙ্গে কোরআনে কারিমে ইরশাদ হয়েছে, ‘যে ব্যক্তি তাকওয়া অবলম্বন করবে, আল্লাহতায়ালাকে ভয় করবে আল্লাহ তার জন্য সমস্যা থেকে উত্তরণের পথ করে দেবেন। আর যে আল্লাহর ওপর ভরসা করবে আল্লাহই তার জন্য যথেষ্ট।’

তাওয়াক্কুলের সুফল সম্পর্কে হজরত ওমর ইবনে খাত্তাব (রা.) বলেছেন, ‘আমি হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) কে বলতে শুনেছি, তোমরা যদি সত্য সত্যই আল্লাহর ওপর ভরসা করো, তাহলে তিনি পাখিদের মতোই তোমাদের রিজিকের ব্যবস্থা করবেন। পাখিরা ভোরবেলা খালি পেটে বেরিয়ে যায় এবং সন্ধ্যাবেলা ভরা পেটে ফিরে আসে।’ –সুনানে তিরমিজি

পাখিরা অল্প সময়ের জন্যও খাদ্য সঞ্চয় করে না। তবুও আল্লাহতায়ালা প্রতিদিন তাদেরকে পেট ভরে রিজিক দিচ্ছেন।

তবে হাত-পা গুটিয়ে ঘরে বসে থাকার নাম আল্লাহর ওপর ভরসা নয়। বরং আল্লাহর দেওয়া উপায়-উপকরণ ও সুযোগ-সুবিধা সার্বিকভাবে কাজে লাগিয়ে ফলাফলের জন্য তার ওপর নির্ভর করার নামই হচ্ছে তাওয়াক্কুল।

হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) এবং তার সাহাবাদের তুলনায় আল্লাহতায়ালার ওপর অধিক তাওয়াক্কুলকারী পৃথিবীতে আর কেউ ছিলো না এবং থাকবেও না। অথচ তারাও জাগতিক উপায়-উপকরণ ছেড়ে দিয়ে ঘরে বসে থাকেননি। বরং তারা প্রথমে সামর্থ্যানুযায়ী জাগতিক ব্যবস্থা অবলম্বন করেছেন এরপর আল্লাহর ওপর ভরসা করেছেন। এক ব্যক্তি বলল, হে আল্লাহর রাসূল! আমি কি উট বেঁধে রেখে আল্লাহর ওপর ভরসা করব, নাকি বন্ধনমুক্ত রেখে? হজরত রাসূলুল্লাহ (সা.) বললেন, উট বেঁধে নাও, তারপর আল্লাহর ওপর ভরসা করো। -সুনানে তিরমিজি

এখানে জাগতিক উপায়-উপকরণ ব্যবহারের প্রতি ইঙ্গিত করা হয়েছে। সুতরাং পরিপূর্ণ মুমিন হতে হলে আমাদের আল্লাহর প্রতি ভয় ও ভরসা রাখতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন :