যৌবন হারিয়ে নদী এখন কৃষিজমি

যৌবন হারিয়ে মানস নদী এখন কৃষিজমি

তোফায়েল হোসেন জাকির, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, গাইবান্ধা, বার্তা২৪.কম

ড্রেজিং না করার ফলে গাইবান্ধার মানস নদীটি যৌবন হারিয়ে এখন কৃষি জমিতে পরিণত হয়েছে। সম্প্রতি ধানের বীজতলায় ছেয়ে গেছে নদীর বুকে। চারিদিকে নজর কাড়ছে সবুজের সমারোহ। নাব্যতা সংকটে হারিয়ে ফেলেছে নদীটির গতিপথ।

গাইবান্ধা সদর উপজেলার দারিয়াপুর বন্দরের ঘেঁষে মানস নদীটি প্রবাহমান। এক সময়ের খরস্রোতা মানস নদীতে এখন রয়েছে শুধু এক হাঁটু পানি, কোথাও আবার তাও নেই। নদীতে নৌকা নেই। নেই মাঝির ভাটিয়ালি গান। এখন আর জেলের জাল পড়ে না নদীর বুকে। যৌবন হারিয়ে মানস নদী এখন মৃতপ্রায়।

সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব জুলফিকার চঞ্চল বলেন, ‘গাইবান্ধা সদর উপজেলার অধিকাংশ নদ-নদীর একই চিত্র। দিন দিন পানি শূন্যতা আর ড্রেজিং না হওয়ায় নদী হারিয়েছে নাব্যতা। ফিকে হয়ে বসেছে নদীর চিরচেনা যৌবন।’

মানস নদীর তীরবর্তী বাসিন্দা স্কুল শিক্ষক সাদেকুল ইসলাম বলেন, ‘এক সময় মানস নদী ছিল যৌবনে টউ টম্বুর কিন্তু বর্তমানে তা আর নেই। দীর্ঘদিন থেকে ড্রেজিং না করায় নদী তার গতিপথ হারিয়ে ফেলেছে।’

স্থানীয় হাজির বাজারের বাসিন্দা শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘এক সময় নদীতে জেলেরা মাছ ধরত, মাঝি-মাল্লারা গলা ছেড়ে ভাটিয়ালি গান গাইত। কী না মজাই হতো তখন। কিন্তু এখন আর তা চোখে পড়ে না।’

গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান জানান, ওই নদীটি ড্রেজিং করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট তাগাদা দেয়া হয়েছে। বরাদ্দ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা হবে।

ফিচার এর আরও খবর