অপরিষ্কার থাকছে প্রাত্যহিক ব্যবহার্য যে জিনিসগুলো

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নানান কাজে প্রতিদিন ব্যবহার করা হচ্ছে, প্রয়োজনীয় এমন বেশ কিছু জিনিসের প্রতি মোটেও খেয়াল রাখা হয় না আমাদের। প্রতিদিন যেভাবে ঘর মোছা হয় কিংবা জামাকাপড় পরিষ্কার করা হয়, ঠিক সেভাবেই নির্দিষ্ট কিছু জিনিসও পরিষ্কার করা প্রয়োজন নিয়মিত। নইলে শারীরিক অসুস্থতার প্রাদুর্ভাব দেখা দিতে থাকে ঘনঘন।

এমন কিছু জিনিসের নাম তুলে ধরা হলো যা প্রতিদিন ব্যবহার করা হলেও, প্রতিদিন পরিষ্কার করার বিষয়ে খেয়াল থাকে না কারোরই।

ময়লা মোছার কাপড়

ঘরের বিভিন্ন আসবাবপত্র কিংবা রান্নাঘরের তেল-মশলা পরিষ্কার করার জন্য যে কাপড়টি ব্যবহার করা হয় সেটা শেষ কবে ধোয়া হয়েছে মনে আছে কি? অথচ এই কাপড়টি সবচেয়ে বেশি পরিষ্কার রাখা প্রয়োজন। ধুলা-ময়লাযুক্ত এই কাপড়ে ব্যাকটেরিয়া তো বটেই, থাকে ভাইরাসের বিচরণও। একই কাপড় বারংবার ব্যবহারের ফলে, পরিষ্কার হবার বদলে ব্যাকটেরিয়া ছড়ায় অনেক বেশি। তাই প্রতিদিন ব্যবহার শেষে গরম পানি সাবান দিয়ে ধুয়ে শুকিয়ে নিতে হবে কাপড়টি।

ঝাড়ু, মপ, ব্রাশ প্রভৃতি

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/13/1539419976032.jpg

ঘরের মেঝে পরিষ্কার রাখার জন্য যে সকল জিনিস ব্যবহার করা হয়, সেগুলো পরিষ্কার করার কথা হয়তো কখনোই আমাদের মাথাতে কাজ করে না। মপ বা ব্রাশ নিয়মিত ব্যবহার করা হলে সেগুলোও ময়লা হয়ে যায়। ময়লার সঙ্গে জীবাণুর সংক্রমণও ঘটে এই সকল জিনিসে। যা স্বাস্থ্যের জন্য হুমকির কারণ হয়ে যেতে পারে। যে কারণে প্রতিদিন সম্ভব না হলেও প্রতি সপ্তাহে অন্তত দুই-তিন বার ঝাড়ু, ব্রাশ, মপ, স্পঞ্জ জাতীয় জিনিসগুলো গরম পানিতে জীবাণুনাশক পণ্য মিশিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।

সুইচ

সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর কিংবা বাথরুমে যাওয়ার সময় অবধারিতভাবেই যে জিনিসটি ব্যবহার করা হয় সেটা হলো সুইচ। লাইট কিংবা ফ্যানের সুইচ অন-অফ করার জন্য সারাদিনে কতবার ব্যবহার করা হয় সেটা নিশ্চয় গুণে রাখা হয় না। কিন্তু কখনো কি এই সুইচগুলো পরিষ্কার করার কথা ভেবেছেন? উত্তর নিশ্চয় হবে- না। অথচ নিত্যদিন বহুবারের ব্যবহার্য এই জিনিসটিতে আনাগোনা থাকে অজানা বহু ব্যাকটেরিয়া ও জীবাণুর। হাতের স্পর্শে যা খুব সহজেই একজনের শরীর থেকে অন্যজনের শরীরে ছড়িয়ে পড়তে পারে। চেষ্টা করতে হবে পরিষ্কার কাপড়ের সাহায্যে সুইচ ও সুইচবোর্ড নিয়মিত পরিষ্কার করার।

টিভি, এসি ও অন্যান্য ইলেকট্রিক পণ্যের রিমোট কন্ট্রোল

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/13/1539419960507.jpg

প্রতিদিন অসংখ্যবার ব্যবহার করা এই যন্ত্রটি হাত বদলের সঙ্গে জীবাণুও অদল-বদল করে ফেলে। শুনতে ভালো না লাগলেই এটাই সত্যি! যে কারণে সচেতন হয়ে প্রতিদিন ঘরের বিভিন্ন ইলেকট্রনিক পণ্যের রিমোট কন্ট্রোলারগুলো পরিষ্কার করতে হবে।

টুথব্রাশ

প্রতিদিন দুই বেলা যে জিনিসটি দিয়ে দাঁত পরিষ্কার করা হচ্ছে সেটাতেই যদি ই. কোলাইয়ের মতো ব্যাকটেরিয়া থাকে, তবে নিশ্চিতভাবে তা দারুণ দুশ্চিন্তার বিষয়। কিন্তু ঘটনা একেবারে সত্যি। যে কারণে প্রতিদিন টুথব্রাশের ব্যবহার শেষে গরম পানি ও লবণের মিশ্রণে চুবিয়ে রাখতে হবে আধা ঘণ্টার মতো।

আপনার মতামত লিখুন :