উৎসব যেন চুলের ক্ষতি না করে!

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চুল যদি এলোমেলো থাকে তবে পুরো সাজটাই নষ্ট হয়ে যায় একদম।

শাড়ির সাথে মানিয়ে খোঁপা কিংবা কুর্তির সাথে মিলিয়ে চুল কার্ল করে নেওয়ার জন্য চুলে হেয়ার স্টাইলিং প্রোডাক্ট ও তাপ ব্যবহারের প্রয়োজন হয়।

ফলে আসছে বৈশাখের সাজে ত্বকের পাশাপাশি স্বাভাবিকভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত হবে প্রিয় চুল। চুল যতই সুস্থ ও স্বাস্থ্যজ্জ্বল হোক না কেন, সর্বনিম্ন মাত্রায় হলেও চুলের উপরে বাড়তি তাপ ও কেমিক্যাল পণ্যের ব্যবহার নেতিবাচক প্রভাব ফেলে যায়।

কিন্তু তাই বলে কি উৎসবের দিনে চুল এলোমেলো থাকবে? সেটা নয় একেবারেই। চুলের স্টাইল করা তো হবেই। কিন্তু তার জন্য আগে থেকে কিছু বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। এতে খুব সহজেই চুলের ক্ষতির মাত্রা কমিয়ে আনা সম্ভব হবে। জেনে রাখুন এমন কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

তাপের দিকে খেয়াল রাখতে হবে

চুল কোকড়া কিংবা সোজা করার জন্য ব্যবহার করা হয় ইলেকট্রনিক হেয়ার কার্লার ও হেয়ার স্ট্রেইটনার। বাজারের এই ঘরানার ইলেকট্রনিক পণ্যগুলোর তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৪০০ ডিগ্রী পর্যন্তও উঠে থাকে। চুল যতই শক্ত ও ঘন হোক না কেন, এতো উচ্চ তাপমাত্রা ব্যবহারের প্রয়োজন হয় না কখনোই। মাঝারি তাপেই চুলের কাঙ্ক্ষিত ধরণ পাওয়া যায়। নতুবা অতিরিক্ত তাপে চুল পুড়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে।

ব্যবহার করুন হিট-প্রোটেকশন সিরাম

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/10/1554893442062.JPG

অনেকেই ইলেকট্রনিক পণ্য তথা কার্লার কিংবা স্ট্রেইটনার ব্যবহারের সময় চুলে পানি স্প্রে করে ভিজিয়ে নেন। এটা ভুল কিছু নয়। কিন্তু পানি ব্যবহারের পরেও বাড়তি তাপের মুখে চুল অরক্ষিত থাকে। সেক্ষেত্রে এমন পণ্য ব্যবহারের পূর্বে চুলে হিট-প্রোটেকশন সিরাম ব্যবহার করতে হবে। তাপ ব্যবহারের আগে চুলে সিরাম মাখিয়ে তার উপরে তাপ প্রয়োগ করতে হবে। এতে করে চুল তুলনামূলক সুরক্ষিত থাকবে।

হেয়ার প্যাকের ব্যবহার

তাপ কিংবা কেমিক্যাল পণ্যের ব্যবহার- যেই হোক না কেন, চুলের উপর ধকল পড়বেই। তাই চুলকে সময়ের আগে থেকেই প্রস্তুত করতে ও ক্ষতির মাত্রা কমাতে ব্যবহার করতে হবে হেয়ার প্যাক। অ্যালোভেরা জেল, মধু ও টকদইয়ের সংমিশ্রণে তৈরিকৃত পেস্ট চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত ভালোভাবে ম্যাসাজ করে আধা ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। এরপর হারবাল শ্যাম্পুতে চুল ধুয়ে নিতে হবে। এতে করে চুল দৃঢ় হবে।

নতুন হেয়ার কাট

বৈশাখের আগে চুলকে একটু গোছানো করতে দিতে পারেন হেয়ার কাট। চুল খুব বেশি ছোট করার প্রয়োজন নেই। নির্দিষ্ট মাত্রায় চুল কেটে নিলেও চুল বেশ খানিকটা সুন্দর ও পরিপাটি দেখাবে। চুলের আগা ছেঁটে নেওয়া, সামনের অল্প চুলে ব্যাংগস কাট কিংবা ফ্রন্ট লেয়ারেই চুলের আদল পাল্টে যাবে। এতে করে চুলে বাঁধার কিংবা চুলে তাপ প্রয়োগের প্রয়োজন হবে না।

আরও পড়ুন: চুলের বাড়তি পরিচর্যায় পাঁচ কন্ডিশনার

আরও পড়ুন: চুলের রুক্ষভাব দূর করবে চার উপাদান

আপনার মতামত লিখুন :