কর্মক্ষেত্রে দূরে থাকুক আত্ম-সন্দেহ

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
কাজ করতে হবে আত্মবিশ্বাসের সাথে, ছবি: সংগৃহীত

কাজ করতে হবে আত্মবিশ্বাসের সাথে, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আমাদের সবার মধ্যে সন্দেহ প্রবণতা রয়েছে এবং আমরা সবচেয়ে বেশি সন্দেহ করি নিজেদেরকেই।

আত্ম-সন্দেহের এই প্রবণতাটি প্রতিটি মানুষের সহজাত ধর্ম। দারুণ আত্মবিশ্বাসী মানুষটিও কোন না কোন সময়ে নিজের প্রতি, নিজের কাজ নিয়ে সন্দিহান হয়ে ওঠেন। আত্ম-সন্দেহের প্রবণতাটি পুরোপুরিভাবে দূর করা সম্ভব না হলেও, অভ্যাসের মাধ্যমে তা কমিয়ে আনা সম্ভব।

বিশেষত কর্মক্ষেত্রে আত্ম-সন্দেহ সবচেয়ে বেশি নেতিবাচক প্রভাব ফেলে দেয় ক্যারিয়ারে। আত্ম-সন্দেহের প্রভাব কর্মক্ষেত্রে নিজেকে পিছিয়ে দেয় অনেকটা। আপনিও যদি এমন আত্ম-সন্দেহে ভোগেন তবে আজকের ফিচারটি আপনার জন্যেই। জেনে রাখুন খুব সহজ কিছু অভ্যাস রপ্ত করার মাধ্যমে কীভাবে কর্মক্ষেত্রে আত্ম-সন্দেহ দূরে রাখবেন।

নেতিবাচক চিন্তার পরিবর্তে ইতিবাচক চিন্তা করা

যেকোন বিষয়কেই ইতিবাচকভাবে দেখার চেষ্টা করতে হবে। হয়তো আপনি অফিসে কোন কাজে অকৃতকার্য হয়েছেন। এই বিষয়টিকে নেতিবাচকভাবে না দেখে ইতিবাচকভাবে দেখা চেষ্টা করতে হবে। কাজটি আপনি ঠিকমতো করতে পারেননি- এমন ভাবনার পরিবর্তে ভাবুন, এই ভুল থেকে আপনি শিখতে পারছেন। সঠিকভাবে কাজ করার অভিজ্ঞতা লাভ করতে পারছেন।

লিখতে হবে নিজের নেতিবাচক চিন্তাগুলো

মাথার ভেতর খুব বেশি নেতিবাচক চিন্তা ঘুরাঘুরি করছে? আত্ম-সন্দেহের প্রবণতাও বৃদ্ধি পাচ্ছে সময়ের সাথে। তবে এক কাজ করুন। কাগজ-কলম নিয়ে বসে পড়ুন। মাথার ভেতর ঘুরতে থাকা নেতিবাচক চিন্তাগুলো লিখে ফেলুন। এতে করে আত্ম-সন্দেহের বাষ্প অনেকটাই কমে যাবে। লেখা শেষে বেশ কিছুক্ষণ পর নিজের লেখাগুলো পড়ুন। দেখবেন নিজের কাছেই অমূলক মনে হবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/08/1557302600100.jpg
নেতিবাচক চিন্তাগুলো লিখে ফেলতে হবে। 

 

কখনোই হার না মানা

আত্ম-সন্দেহ যতই প্রকট আকার ধারণ করুক না কেন, কখনোই তার সামনে হার স্বীকার করা যাবে না। সবসময় নিজের কাজের প্রতি ফোকাসড থাকতে হবে। কাজে ভুল হবে, বাধা আসবে, সমস্যা তৈরি হবে। কিন্তু এই সকল কারণের জন্য কোনভাবেই নিজেকে থামিয়ে রাখা যাবে না।

দুর্বলতা নয়, শক্তির দিকে মনোযোগ দিতে হবে

সবার মাঝেই কোন না কোন ক্ষেত্রে দুর্বলতা ও শক্তি রয়েছে। কেউ হয়তো লেখালেখি ভালো পারেন, কেউ হয়তো এডিটিং ভালো পারেন। আপনি কোন কাজটিতে ভালো সেটা শনাক্ত করুন। সেটাই আপনার শক্তি। ক্যারিয়ারের ক্ষেত্রে সেটা নিয়েই কাজ করার চেষ্টা করুন। দেখবেন আত্ম-সন্দেহ তৈরি হওয়ার কোন চান্স থাকবে না।

ইতিবাচক মনোভাব সম্পন্ন মানুষের সাথে কথা বলা

নিজের কাজ, ক্যারিয়ার, কর্মক্ষেত্র নিয়ে এমন মানুষের সাথে কথা বলার চেষ্টা করুন, যারা আপনাকে অনুপ্রাণিত করবে। আপনাকে ইতিবাচক ভাবনা ভাবতে সাহায্য করবে। এমন মানুষগুলো আপনার ভেতর থেকে আত্ম-সন্দেহ দূর করে আপনাকে আত্মবিশ্বাসী হওয়ার জন্য সাহায্য করবে। সেক্ষেত্রে আরও বলে রাখা ভালো, ইতিবাচক মানুষদের সাহচার্য যতটাই কাম্য নেতিবাচক মানুষদের থেকে নিজেকে ততটাই দূরে রাখতে হবে।

আরও পড়ুন: ক্যারিয়ারে সাফল্য আনতে চান?

আরও পড়ুন: কর্মোদ্দীপ্ত থাকতে সাহায্য করবে এই নিয়মগুলো!

আপনার মতামত লিখুন :