প্রতিনিয়ত অকাল মৃত্যুকে ডেকে আনছি যার মাধ্যমে!

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
আল্ট্রা-প্রসেসড খাবারে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি, ছবি: সংগৃহীত

আল্ট্রা-প্রসেসড খাবারে বাড়ছে স্বাস্থ্যঝুঁকি, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

একদম শিশু থেকে শুরু করে করে বয়োবৃদ্ধ পর্যন্ত সকলেই প্রতিদিন বিভিন্ন ধরনের ফাস্ট ফুড খাবার ও প্রসেসড খাবার গ্রহণ করছি।

মুখরোচক এই খাবারগুলো এড়িয়ে যাওয়া যেন প্রায় অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। চিকেন নাগেট, আইসক্রিম ও সকালের নাশতার সিরিয়ালের মতো খাবারগুলো হলো আল্ট্রা-প্রসেসড ফুড। যতটাই স্বাদু এই খাবারগুলো, ঠিক ততটাই ক্ষতিকর আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য। শুধু ক্ষতিকর বললে কমিয়ে বলা হবে। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছে, এমন ধরনের আল্ট্রা-প্রসেসড খাবারগুলোই হলো অকাল মৃত্যুর কারণ!

ফ্রান্স ও স্পেনের গবেষকেরা তাদের পরীক্ষা থেকে দেখেছে, এ ধরনের খাবার খাওয়ার প্রবণতা বর্তমান সময়ে বেড়ে গেছে তুলনামূলক অনেক বেশি। তাদের গবেষণার ফলাফল থেকে আল্ট্রা-প্রসেসড খাবারের সাথে অকাল মৃত্যুর সরাসরি সম্পর্ক ও প্রমাণ পাওয়া না গেলেও, এটা সুনিশ্চিতভাবেই বলা যায় যে- এমন ধরনের খাবার এ সময়ের মানুষ অনেক বেশি খাচ্ছে এবং যার নেতিবাচক প্রভাব প্রতিনিয়ত দেখা দিচ্ছে স্বাস্থ্যের উপরে।

কী এই আল্ট্রা-প্রসেসড খাবার?

প্রসেসড খাবারের ধারণাটি আসে, খাদ্য প্রস্তুত ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানগুলো কীভাবে খাদ্য উপাদান ক্রেতাদের জন্য তৈরি করতে ও উপস্থাপন করছে তার উপরে। সে অনুসারে মূলত তিনটি প্রকারভেদ রয়েছে খাবারে।

সর্বনিম্ন বিভাগ হলো, আনপ্রসেসড অথবা মিনিমালি প্রসেসড খাবার। যেমন- ফল, সবজি, দুধ, মাংস, ডাল ও শস্য, ডিম ইত্যাদি।

দ্বিতীয় ক্যাটাগরি বা বিভাগ হলো প্রসেসড খাবার, যেগুলোতে স্বাদ ও মেয়াদ বর্ধনের জন্য লবণ, তেল, চিনি যোগ করা হয় ও ফার্মেনটেশন করতে হয়। এমন খাবারগুলো হলো- পনির, বেকন, পাউরুটি প্রভৃতি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/30/1559202753968.jpg

এরপরেই আসে আল্ট্রা-প্রসেসড খাবার, যা সাবস্টেনশিয়াল ইনডাস্ট্রিয়াল প্রসেসিং এর ভেতর দিয়ে প্যাকেটজাত হয় এবং এই সকল পণ্যের প্যাকেটের উপাদান সমূহের তালিকায় প্রিজার্ভেটিভ, সুইটনার, কৃত্তিম রঙসহ অস্বাস্থ্যকর উপাদান উল্লেখিত থাকে।

বিবিসি নিউজের বরাত দিয়ে স্পেনের ইউনিভার্সিটি অফ নাভারার প্রফেসর মাইরা বেশ-র‍্যাস্ট্রল্লো জানান, যে সকল প্যাকেটজাত খাদ্য উপাদানের প্যাকেটে পাঁচটি উপাদানের বেশি উল্লেখ করা থাকে, সেগুলোকেই আল্ট্রা-প্রসেসড খাবার ধরা হয়।

এখন আসা যাক এ সম্পর্কিত গবেষণা ও পরীক্ষার বিষয়ে। প্রথম পরীক্ষাটি হয় স্পেনের নাভারা ইউনিভার্সিটিতে। যে গবেষণার জন্য প্রায় ১৯,৮৯৯ জন মানুষের খাদ্যাভ্যাস এক দশকের বেশি সময় ধরে পরিলক্ষিত করা হয়ে আসছিলো। এই গবেষণা চলাকালীন সময়েই ৩৩৫ জন মৃত্যুবরণ করেন। যার মাঝে প্রতি দশজন লিস্ট প্রসেসড খাবার গ্রহণ করতো এবং ১৬ জন আল্ট্রা-প্রসেসড খাবার গ্রহণ করতো।

দ্বিতীয় গবেষণাটি হয় ফ্রান্সের ইউনিভার্সিটি অফ প্যারিসে। যেখানে ১০৫,১৫৯ জনের দুইবেলার খাদ্যাভ্যাস বিগত পাঁচ বছর ধরে মনিটরিং করা হয়। তাদের গবেষণায় দেখা গেছে, হৃদপিণ্ডের অতিরিক্ত বাজে অবস্থা হয় এই সকল আল্ট্রা-প্রসেসড খাবার খাওয়ার জন্য।

বিবিসি নিউজের বরাত দিয়ে ডা. মাথিল্ডে টউভিয়ের জানান, পুরো বিশ্বব্যাপী আল্ট্রা-প্রসেসড খাবারের ব্যাপ্তির ফলে বাড়ছে হৃদরোগসহ অন্যান্য রোগের প্রাদুর্ভাব। অতিরিক্ত আল্ট্রা-প্রসেসড খাবার গ্রহণের প্রভাব শুধু এই প্রজন্ম নয়, আগামী প্রজন্মের উপরেও পড়বে।

আরও জানান, বিগত বছর থেকে চলতি বছরে ক্যানসার আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এর সাথে আল্ট্রা-প্রসেসড খাবারের সম্পর্ক আছে বলে প্রায় শতভাব নিশ্চিত তিনি।

আরও পড়ুন: প্রযুক্তি যেভাবে স্বাস্থ্যহানি ঘটাচ্ছে!

আরও পড়ুন: পরিচিত বদভ্যাসেই দেখা দেয় কিডনির সমস্যা

আপনার মতামত লিখুন :