Alexa

মেকআপ ব্যবহারে মলিন ত্বক?

মেকআপ ব্যবহারে মলিন ত্বক?

মেকআপ পরবর্তী সময়ে ত্বকের সঠিক যত্ন খুবই জরুরি, ছবি: সংগৃহীত

যিনি একেবারেই সাজেন না, ঈদের সময়টিতেও আলতো ফেস পাউডার ও লিপস্টিক ব্যবহার করেন।

উৎসবের আমেজে সাজ সাজ রব শুধু চারপাশে নয়, নিজের মাঝেও বিরাজ করে।

ঈদের কয়েকটি দিন প্রায় প্রতি বেলাতেই মেকআপ পণ্য ব্যবহার করা হয়। পরপর কয়েকদিন মেকআপ ব্যবহারের ফলে খুব স্বাভাবিক নিয়মেই ত্বকের উপর নেতিবাচক প্রভাবের সৃষ্টি হয়। ত্বক তুলনামূলক খসখসে ও নিষ্প্রাণ হয়ে ওঠে। পাশাপাশি অনাকাঙ্ক্ষিত ব্রণের প্রাদুর্ভাবও দেখা দেয়।

এই সমস্যাগুলো দূরে রাখতে প্রয়োজন ত্বকের সঠিক পরিচর্যা ও যত্ন। বিশেষত ভারি মেকআপের পরবর্তী সময়ে ত্বক সঠিকভাবে পরিষ্কার করা খুবই জরুরি। আজকের ফিচারে ধাপে ধাপে তুলে ধরা হলো মেকআপ পরবর্তী সময়ে ত্বকের যত্নে কি করা প্রয়োজন।

ক্লিনজিং

ত্বককে প্রস্তুত করার জন্য অবশ্যই প্রথমে ভালো কোন ক্লিনজার দিয়ে মুখ, গলা ও ঘাড়ের ত্বক পরিষ্কার করে নিতে হবে।

এক্সফলিয়েটিং

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jun/08/1559976596919.jpg

সাধারণভাবে মুখের ত্বক ধোয়া হলেও ত্বকের গভীর থেকে ময়লা ও মেকআপের অবশিষ্টাংশ দূর করার জন্য এক্সফলিয়েট করা খুবই জরুরি। এক্সফলিয়েশনের জন্য বাজার থেকে কেনা অথবা ঘরে  তৈরি এক্সফলিয়েটর ব্যবহার করা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে মধু, লেবুর রস ও চিনি একসাথে মিশিয়ে নিতে হবে এবং খেয়াল রাখতে হবে চিনি যেন গলে না যায়। এই এক্সফলিয়েটর ত্বকের ভেতর থেকে ময়লা বের করে আনার পাশাপাশি ত্বকের উপকারেও কাজ করবে।

ময়েশ্চারাইজিং

এক্সফলিয়েশনের পর ত্বকে সঠিক ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করা খুবই জরুরি। মেকআপ ব্যবহারের ফলে এমনিতেও ত্বক শুষ্ক হয়ে ওঠে। এক্সফলিয়েশনের ফলে ত্বকের প্রাকৃতিক তেল অনেকটাই দূর হয়ে যায়। ফলে ত্বক তার স্বাভাবিক আর্দ্রতা হারায়। ময়েশ্চারাইজার হিসেবে অনেকেই বিভিন্ন ধরনের ক্রিম ব্যবহার করেন। তবে নারিকেল তেল, অলিভ অয়েল ও আমন্ড অয়েলও ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। ময়েশ্চারাইজার মুখে মিনিট পাঁচেক সময় নিয়ে ম্যাসাজ করে সারা রাত রেখে দিতে হবে।

সুদিং

ত্বকের স্বাভাবিক প্রকৃতি ফিরিয়ে আনতে সুদিং খুবই প্রয়োজনীয় একটি ধাপ। এ ধাপে ত্বক ময়েশ্চারাইজেশনের পরদিন সকালে তিনটি প্রাকৃতিক উপাদানে তৈরি ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে হবে। দই, হলুদ গুঁড়া ও মধুর সমন্বয়ে তৈরি এই ফেসপ্যাকটি ত্বককে নতুনভাবে তৈরি হতে, ত্বকের প্রদাহ, ইরিটেশন, ব্লেমিশ, ব্রণের প্রাদুর্ভাব দূর করতে কাজ করবে। এছাড়া মেকআপ পণ্যের ব্যবহারে ত্বকয়ে যদি কোন ক্ষতিকর প্রভাব তৈরির সম্ভবনা তাহকে সেটাও দূর করতে কাজ করে।

উপরোক্ত সকল ধাপ ঠিকঠাকভাবে শেষ করার পর কয়েকদিন ত্বককে রেস্টে রাখতে হবে। অর্থাৎ আর কোন ধাপের পুনরাবৃত্তির প্রয়োজন হবে না। ত্বক এ সময়ের মাঝে নিজ থেকেই আগের অবস্থায় ফিরে আসবে। তবে বাইরে বেশি যাওয়া হলে হালকা ঘরানার ক্লিনজিং দিয়ে মুখের ত্বক পরিষ্কার করে নিতে হবে এবং ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে।

আরও পড়ুন: ব্রণের প্রাদুর্ভাব কমবে ক্যাস্টর অয়েল ব্যবহারে

আরও পড়ুন: সৌন্দর্যচর্চায় মধুর চমৎকার চার ব্যবহার

আপনার মতামত লিখুন :