loader
অপ্রচলিত ‘গোল্ডেন-মিল্ক’ এর অজানা যত গুণ!

গ্রামাঞ্চলের দিকে গরম দুধের সাথে কাঁচা হলুদ কিংবা হলুদ গুঁড়া মিশিয়ে পান করার প্রচলন থাকলেও, শহরের দিকে এই পানীয় পানের প্রচলন তেমন একটা নেই বললেই চলে। হলুদ-দুধ পান করলে গায়ের রঙ উজ্জ্বল হয়- লোকমুখে চালু এই ধারণাটি আদতে সত্য কিনা সেটা নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না। তবে এই পানীয়ের অসাধারণ কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে একদম নিশ্চিতভাবেই সবাইকে জানানো যেতে পারে।

আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা শাস্ত্রে হাজার বছর ধরে বিভিন্ন রোগের প্রতিকার স্বরূপ ব্যবহৃত হয়ে আসছে হলুদ। হলুদে থাকে নায়াসিন, ভিটামিন-সি, ই, কে, পটাশিয়াম, কপার, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম ও জিংক। যা এই প্রাকৃতিক উপাদানকে এক অনন্য উপকারী উপদান করে তুলেছে।

আরো পড়ুন: স্বাস্থ্যকর গুণে ভরপুর গাঁদা ফুল

গুণে ভরপুর এই হলুদের সাথে দুধ মিশিয়ে তৈরি করা হয় হলুদ-দুধ, যাকে বলা হয়ে থাকে গোল্ডেন মিল্ক। আজকের ফিচারে চোখ বুলিয়ে জেনে নিন দারুন এই পানীয়ের অসাধারণ কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা।  

ঠাণ্ডার সমস্যা কমায়

নাক থেকে ক্রমাগত পানি পড়া কিংবা নাক বন্ধ হয়ে থাকা, খুশখুশে কাশির সমস্যা ও গলাব্যথা দেখা দিলে এক গ্লাস উষ্ণ হলুদ-দুধ পান করে নিতে হবে। শীত হোক বা গ্রীষ্মকাল, সকল ঋতুতেই কমন ঠাণ্ডার সমস্যায় ভুগতে হয়। সেক্ষেত্রে যেকোন ওষুধের চাইতেও ভালো উপকারী পানীয় হিসেবে কাজ করবে হলুদ মিশ্রিত দুধ। হলুদের অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি-ভাইরাল উপাদান সমূহ ঠাণ্ডার সমস্যা কমাতে সাহায্য করে।

শরীরের ব্যথা কমিয়ে প্রশান্তি আনে

হাড়ের জোড়ার ব্যথার প্রভাব কমাতে সাহায্য করে হলুদ-দুধ। বিশেষ করে খেলোয়াড়দের জন্য এই পানীয় খুব উপকারী।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/10/1533902362498.jpg

লিভার রাখে সুস্থ

আপনি যদি লিভারের সমস্যায় ভুগে থাকেন, তবে এখন থেকেই নিয়মিত হলুদ-দুধ পান করা শুরু করা প্রয়োজন। এই পানীয় রক্তের বিষাক্ত পদার্থকে দূর করে। ফলে লিভার সুস্থভাবে কাজ করতে পারে।

ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি প্রতিহত করে

বর্তমান সময়ের অন্যতম আশঙ্কাজনক রোগ হলো ক্যান্সার। শরীরে যদি একবার ক্যান্সার দানা বাঁধে, তাকে দমিয়ে রাখা বেশ কষ্টকর হয়ে যায়। ক্যান্সার খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে শরীরে, ফলে সমস্যাও বৃদ্ধি পেতে থাকে। হলুদ আশ্চর্যজনকভাবে ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধিকে প্রতিহত করে। ফলে ক্যান্সার বৃদ্ধি পেতে পারে না। ব্রেস্ট, ফুসফুস, কোলন ও প্রস্টেট ক্যান্সারের ক্ষেত্রে হলুদ বেশি কার্যকরি।

আরো পড়ুন: কেন খাবেন আদা?

পিরিয়ডের কষ্টকর ব্যথা কমায়

অনেক নারীর জন্যেই পিরিয়ড একটি আতংকের নাম। পিরিয়ডের প্রথম কয়দিন যদি তলপেটে প্রচন্ড ব্যথাভাব অনুভূত হয় তবে পান করতে হবে হলুদ-দুধ।

দূর করবে অনিদ্রা

হলুধ-দুধে রয়েছে ট্রিপটোফেন। যা ঘুম তৈরিকারি এক ধরনের অ্যামিনো অ্যাসিড। দ্রুত ঘুম আসার জন্য শরীরে প্রয়োজন হয় অ্যামিনো অ্যাসিডের। তাই বুঝতেই পারছেন, অনিদ্রাজনিত সমস্যার ক্ষেত্রে সমাধানটাও খুব সহজ।

Author: ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল

barta24.com is a digital news outlet

© 2018, Copyrights Barta24.com

Emails:

[email protected]

[email protected]

Editor in Chief: Alamgir Hossain

Email: [email protected]

+880 173 0717 025

+880 173 0717 026

8/1 New Eskaton Road, Gausnagar, Dhaka-1000, Bangladesh