মেয়ের বিয়ে দিয়ে ওএসডি হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ডা. মো. শাহ আলম

ডা. মো. শাহ আলম

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস সংক্রামণ ঠেকাতে সরকারের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জনসমাগম করে মেয়ের বিয়ে দেওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা. মো. শাহ আলমকে ওএসডি (বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) করা হয়েছে।

রোববার (২২ মার্চ) রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব শারমিন আক্তার জাহান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে তাকে ওএসডি করা হয়। একই প্রজ্ঞাপনে নতুন সিভিল সার্জন হিসেবে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সহকারী পরিচালক (ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেলথ) ডা. মোহাম্মদ একরাম উল্লাহকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পদায়ন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: করোনা: ঘটা করে সিভিল সার্জনের মেয়ের বিয়ে

এর আগে গত শুক্রবার (২০ মার্চ) ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার মাছিহাতা ইউনিয়নের চিনাইর-চাপুইর গ্রামের বাসিন্দা মোশারফ হোসেন মোল্লার ছেলে প্রকৌশলী মঈনুল হোসেনের সঙ্গে পারিবারিকভাবে সিভিল সার্জনের চিকিৎসক মেয়ে ডা. শাননিন আলম মমোর বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

প্রজ্ঞাপন পত্র

এতে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া নারেল হাসপাতালের বেশ কয়েকজন চিকিৎসক, জেলার বিভিন্ন ক্লিনিকের ডেন্টাল চিকিৎসকরা, ওষুধ কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের কয়েকজন কর্মচারী, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তারা অংশ দেন।

করোনা নিয়ে দেশের এমন সময় সরকারি নির্দেশনা না মেনে বিয়ের অনুষ্ঠান আয়োজন করায় সিভিল সার্জন শাহ আলমকে নিয়ে জেলাজুড়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে। তবে সিভিল সার্জন শাহ আলম বিয়েতে জনসমাগম ঘটানোর বিষয়টি অস্বীকার করে ঘরোয়া পরিবেশে মেয়ের বিয়ে দিয়েছেন বলে দাবি করেন।

আপনার মতামত লিখুন :