করোনা: ঘরে থাকতে চায় না শিশুরা

সোহেল মিয়া, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজবাড়ী
ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সারা বিশ্বে করোনাভাইরাস নিয়ে এক ধরনের আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনাভাইরাসকে বৈশ্বিক মহামারি বলে ঘোষণাও করেছেন। করোনাভাইরাসের প্রভাব থেকে বাদ পড়েনি বাংলাদেশও। দেশকে করোনা মুক্ত রাখতে সরকার বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

ইতোমধ্যে সরকার সব ধরনের জনসমাগম এড়াতে সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ ঘোষণা করেছেন। এছাড়া ১৭ মার্চ থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের সর্বস্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং কোচিং সেন্টার বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টার বন্ধ ঘোষণা করায় কোমলমতি শিক্ষার্থীদের এখন ঘরেই থাকতে হচ্ছে। কিন্তু চঞ্চল মনের অধিকারী এসব শিশুদের ঘরে আটকে রাখতে অভিভাবকদের চরম হিমশিম খেতে হচ্ছে।

মূলত সারা দিন ঘরের মধ্যে আটকা থাকতে চায় না শিশুরা। হৈ-হুল্লোড় আর বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডায় মেতে উঠতে চায় তারা।

রাজবাড়ী সদরের নাসির উদ্দিন, আরিফুল ইসলাম জানান, বয়স কম হওয়ার কারণে করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা সম্পর্কে শিশুরা কিছু জানে না। আর শিশুরাতো বাইরে বন্ধুদের সঙ্গে খেলাধুলা করতে অভ্যস্ত। তাই তাদের ঘরের মধ্যে আটকে রাখা যাচ্ছে না। একটু সুযোগ পেলে ঘর থেকে বাইরে বের হয় তারা।

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দির আল মাহমুদসহ একাধিক অভিভাবক বার্তা২৪.কমকে জানান, শিশুরা কোমলমতি। ওরা খেলাধুলা করতেই বেশি পছন্দ করে। ঘরের মধ্যে আটকা থাকতে চায় না। বাইরে যেতে নিষেধ করলে কান্নাকাটি করে। বিভিন্ন ধরনের খেলনা দিয়েও তাদের ঘরে আটকে রাখা সম্ভব হচ্ছে না।

আপনার মতামত লিখুন :