ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণের প্রতিবাদে ডাকসুর মোমবাতি প্রজ্বলন

  কুর্মিটোলায় ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণের প্রতিবাদে ডাকসুর মোমবাতি প্রজ্বলন, ছবি: বার্তা২৪.কম

ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণের প্রতিবাদে ডাকসুর মোমবাতি প্রজ্বলন, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রী ধর্ষণের প্রতিবাদে এবং এ ঘটনার বিচারের দাবিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মোমবাতি প্রজ্বলন করেছে ডাকসু।

সোমবার (৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ও এজিএস সাদ্দাম হোসাইনের নেতৃত্বে ডাকসুর নেতৃবৃন্দসহ সাধারণ শিক্ষার্থীরা মোমবাতি প্রজ্বলন করেন।

এ সময় গোলাম রাব্বানী বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। সে রকম বাংলাদেশও আইন সংস্কার করে বিধান প্রণয়ন দরকার।

সাদ্দাম হোসাইন বলেন, এ ঘটনার বিচার না হওয়া পর্যন্ত ডাকসুর নিপিড়ন বিরোধী মঞ্চ পিছু হটবে না। বিচারের দাবিতে আমরা আজ রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে স্মারকলিপি দেব।

এর আগে রোববার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার দিকে কুর্মিটোলা বাস স্টপেজে ধর্ষণের শিকার হন ঢাবির এক ছাত্রী।

জানা যায়, তিনি বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে শেওড়া যাচ্ছিলেন। সন্ধ্যা ৭টার দিকে তিনি কুর্মিটোলায় বাস থেকে নামার পর এক ব্যক্তি তার মুখ চেপে পাশের নির্জন স্থানে নিয়ে যান। সেখানে তাকে অজ্ঞান করে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করা হয়। পরে রাত ১০টার দিকে জ্ঞান ফিরলে তিনি বিষয়টি বুঝতে পেরে সেখান থেকে অটোরিকশায় করে বাসায় ফেরেন। এরপর রাত ১২টার দিকে মামাসহ অন্যান্য স্বজন তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করেন। পরে তাকে হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়।

 

আপনার মতামত লিখুন :

  কুর্মিটোলায় ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ