সিরিয়াল রেপিস্ট মজনু!

  কুর্মিটোলায় ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ধর্ষক মজনু, ছবি: বার্তা২৪.কম

ধর্ষক মজনু, ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনার সঙ্গে জড়িত মজনু (৩০) এর আগেও একাধিক ধর্ষণ করেছে বলে জানিয়েছেন র‍্যাব। 

বুধবার (৮ জানুয়ারি) র‍্যাবের মুখপাত্র সারওয়ার বিন কাশেম এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান।

তিনি বলেন, মজনু একজন সিরিয়াল রেপিস্ট। এর আগেও তিনি এই কাজ করেছেন। রাস্তায় প্রতিবন্ধী নারী, ভিক্ষুকদের ধর্ষণ করত মজনু।

র‍্যাবের এই মুখপাত্র বলেন, ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় মজনু আগে থেকেই ওঁৎ পেতে ছিল ঘটনাস্থলে। মেয়েটিকে জোরপূর্বক সেখান থেকে ধরে নিয়ে যায় সে। এরপর ঝোপের এক পাশে পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়। এর আগেও একই জায়গায় কয়েকজন নারীকে ধর্ষণ করে সে। 

এর আগে মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) রাতে ধর্ষক সন্দেহে ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। পরদিন সকালে ভিকটিম নিশ্চিত করার পরই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক দেখানো হয়।

উল্লেখ্য, গত ৫ জানুয়ারি সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হন।

জানা যায়, বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে শেওড়া যাচ্ছিলেন ওই ছাত্রী। সন্ধ্যা ৭টার দিকে তিনি কুর্মিটোলায় বাস থেকে নামার পর এক ব্যক্তি তার মুখ চেপে ধরে পাশের নির্জন স্থানে নিয়ে যান। সেখানে তাকে অজ্ঞান করে ধর্ষণ ও শারীরিক নির্যাতন করেন।

রাত ১০টার দিকে জ্ঞান ফিরলে তিনি বিষয়টি বুঝতে পারেন। পরে সেখান থেকে অটোরিকশায় করে বাসায় ফেরার পর রাত ১২টার দিকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়।

এর আগে মঙ্গলবার (৭ জানুয়ারি) রাতে ধর্ষক সন্দেহে ওই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। পরদিন সকালে ভিকটিম নিশ্চিত করার পরই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক দেখানো হয়।

আপনার মতামত লিখুন :

  কুর্মিটোলায় ঢাবি ছাত্রী ধর্ষণ