আবারও পতন প্রবণতায় পুঁজিবাজার

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সপ্তাহের চতুর্থ কার্যদিবস বুধবার সূচক কমে শেষ হয়েছে এদিনের লেনদেন কার্যক্রম। অর্থাৎ গত কার্যদিবসে উভয় পুঁজিবাজারে সূচক বাড়লেও আজ আবার পতন প্রবণতায় ফিরেছে। এদিন ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ৪০ পয়েন্ট এবং সিএসইএক্স কমেছে ৫৪ পয়েন্ট।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩২৪ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড। গত কার্যদিবসের হয়েছিল ৩২৮ কোটি ৫ লাখ টাকা। আর সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৫০ লাখ টাকা। গত কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ১৩ কোটি ৪৯ লাখ টাকা।

ডিএসই ও সিএসইর ওয়েবসাইট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

ডিএসই

এদিন ডিএসইতে লেনদেনের শুরুতে সূচক বাড়ে। লেনদেনের শুরু হয় সাড়ে ১০টায়, শুরুতেই সূচক বেড়ে যায়। প্রথম ৫ মিনিটেই ডিএসইএক্স সূচক বাড়ে ৫ পয়েন্ট। এরপর থেকে সূচক ধারাবাহিকভাবে কমতে থাকে। বেলা ১০টা ৪০ মিনিটে সূচক ৩ পয়েন্ট বাড়ে। এরপর সূচক নেতিবাচক হয়ে যায়। বেলা ১০টা ৪৫ মিনিটে সূচক ৫ পয়েন্ট কমে। বেলা ১০টা ৫০ মিনিটে সূচক ১৬ পয়েন্ট কমে। এরপর থেকে সূচক কমার প্রবণতা কমতে থাকে। বেলা ১০টা ৫৫ মিনিটে সূচক ১৪ পয়েন্ট কমে, বেলা ১১টায় ডিএসইএক্স সূচক ১১ পয়েন্ট কমে। বেলা ১২টায় সূচক ৪২ পয়েন্ট কমে। বেলা ১টায় ডিএসইএক্স সূচক ৩২ পয়েন্ট কমে। বেলা ২টায় সূচক ৫৭ পয়েন্ট কমে এবং বেলা আড়াইটায় লেনদেন শেষে ডিএসইএক্স সূচক ৪০ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৭৮১ পয়েন্টে অবস্থান করে।

অন্যদিকে, ডিএসই-৩০ সূচক ১৮ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৬৮৫ পয়েন্টে এবং ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৯৯ পয়েন্টে। এদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩২৪ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড।

লেনদেন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ৬৫টির, কমেছে ২৫৯টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টি কোম্পানির শেয়ারের দাম।

বুধবার দাম বৃদ্ধির ভিত্তিতে ডিএসই’র শীর্ষ দশ কোম্পানির তালিকায় আছে- বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন, ন্যাশনাল টিউবস, সামিট পাওয়ার, গ্রামীণ ফোন, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকস, ফরচুন সু, মুন্নু স্টাফলারস, স্কয়ার ফার্মা, প্যারামউন্ট ইনস্যুরেন্স এবং মুন্নু সিরামিকস।

সিএসই

অন্যদিকে, লেনদেন শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসইএক্স ৫৪ পয়েন্ট কমে ৮ হাজার ৮৪৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। সিএসই-৩০ সূচক ৫৮ পয়েন্ট কমে ১২ হাজার ৮৯০ পয়েন্টে এবং সিএএসপিআই সূচক ৯১ পয়েন্ট কমে ১৪ হাজার ৫৫৫ পয়েন্টে অবস্থান করে।

লেনদেন শেষে সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

এদিন দাম বাড়ার ভিত্তিতে সিএসই’র শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো- মার্কেন্টাইল ইনস্যুরেন্স, পিপলস ইনস্যুরেন্স, প্যামাউন্ট ইনস্যুরেন্স, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক, নাহী অ্যালুমিনিয়াম, বাংলাদেশ জেনারেল ইনস্যুরেন্স, অ্যাপেক্স ফুটওয়্যার, রিপাবলিক ইনস্যুরেন্স, ইউনাইটেড এয়ার এবং কেটিএল।

আপনার মতামত লিখুন :