পূবালী ব্যাংক ও ইউনাইটেড ফাইন্যান্সের বন্ড অনুমোদন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

পূবালী ব্যাংক ও ইউনাইটেড ফাইন্যান্স লিমিটেডের ৮০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) কমিশনের ৭০৩তম সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ফলে প্রতিষ্ঠান দুটি পুঁজিবাজারে বন্ড ছেড়ে টাকা উত্তোলন করতে পারবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পূবালী ব্যাংকের ৭৫০ কোটি টাকার নন-কনভার্টেবল সাবঅর্ডিনেটেড ফ্লোটিং রেট বন্ড এবং ইউনাইটেড ফাইন্যান্সের ১০০ কোটি টাকার নন-কনভার্টেবল জিরো কুপন বন্ড অনুমোদন করেছে।

পূবালী ব্যাংকের বন্ডের মেয়াদ হবে ৭ বছর। এই বন্ডের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে- নন কনভার্টেবল, আনলিস্টেড সাবঅর্ডিনেটেড বন্ড। বন্ডটি ৭ বছরে পূর্ণ অবসায়ন হবে। যা শুধুমাত্র আর্থিক প্রতিষ্ঠান, করপোরেট বডি, ফান্ডস, ইনস্যুরেন্স কোম্পানি ইত্যাদি এবং যেকোনো যোগ্য ব্যক্তিদের প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে। এই বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ উত্তোলন করে পূবালী ব্যাংক কোম্পানির টায়ার-II ক্যাপিটাল বেস শক্তিশালী করবে। এই বন্ডের প্রতি ইউনিটের অবিহিত মূল্য ৭ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এই বন্ডের ট্রাস্টি হিসেবে গ্রিন ডেলটা ইনস্যুরেন্স কোম্পানি কাজ করছে।

এদিকে, ইউনাইটেড ফাইন্যান্সের ১০০ কোটি টাকার বন্ডের মেয়াদ হবে ৪ বছর। এই বন্ডের বৈশিষ্ট্য হচ্ছে নন-কনভার্টেবল, জিরো কুপন বন্ড। বন্ডটি ৪ বছরে পূর্ণ অবসায়ন হবে। যা প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী এবং উচ্চ সম্পদধারী ব্যক্তিদের (হাই নেট ওর্থ ইন্ডিভিজুয়্যালস) প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে। এই বন্ড ইস্যুর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ উত্তোলন করে কোম্পানিটি সম্ভাব্য অবকাঠামো ও এসএমই প্রকল্পে বিনিয়োগের জন্য অর্থায়ন ত্বরান্বিত করবে। এই বন্ডের প্রতি ইউনিটের অবিহিত মূল্য ২৫ লাখ টাকা। বন্ডের ট্রাস্টি হিসেবে এমটিবিএল ক্যাপিটাল এবং ম্যানডেটেড লিড অ্যারেঞ্জার হিসাবে ইস্টার্ন ব্যাংক কাজ করছে।

আপনার মতামত লিখুন :