দাবানল থেকে বন্যপ্রাণীদের বাঁচাতে ঘরে এনে আশ্রয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
দাবানলের মুখে মোগো চিড়িয়াখানা, ছবি: সংগৃহীত

দাবানলের মুখে মোগো চিড়িয়াখানা, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দাবানলে পুড়ছে অস্ট্রেলিয়া। এর ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে হাজার হাজার মানুষ। পুড়ে গেছে ঘর-বাড়ি ও হাজার হাজার একর বনাঞ্চল। দাবানলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে অনেক প্রাণী।

এদিকে দাবানলের মুখে পড়েছে নিউ সাউথ ওয়েলস'র চিড়িয়াখানা মোগো। চিড়িয়াখানাটিতে রয়েছে জেব্রা, গন্ডার, জিরাফ, বানর, পান্ডা ও বাঘসহ দুইশরও বেশি অধিক বন্যপ্রাণী। আর এসব প্রাণীদের দাবানল থেকে বাঁচাতে অধিকাংশ প্রাণীদের নিজের বাড়িতে নিয়ে আশ্রয় দিয়েছেন চিড়িয়াখানাটির পরিচালক ছাদ স্টাপেলস।

দাবানলের কারণে মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) অঞ্চলটি থেকে সকলকে নিরাপদ স্থানে চলে যেতে বলেন নিউ সাউথ ওয়েলস কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এসব প্রাণীদের ছেড়ে যেতে নারাজ ছিলো চিড়িয়াখানা কর্মকর্তারা।

আরও পড়ুন: অতি তাপমাত্রায় অস্ট্রেলিয়ায় জরুরি অবস্থা

চিড়িয়াখানাটির পরিচালক ছাদ স্টাপেলস বলেন, এখানখার পরিস্থিতি অনেকটা রণক্ষেত্রের মতো। চিড়িয়াখানাটির প্রাণীগুলো কেবলমাত্র বেঁচে গিয়েছে কারণ সেখানে একটি সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা ছিল। প্রথমে চিড়িয়াখানার কর্মকর্তারা সবকিছু সরিয়ে নিয়ে যায়। এরপর তারা প্রাণীদের উদ্ধারে নেমে পড়েন।

বড় বলে সরানো যাচ্ছে না জিরাফগুলোকে, ছবি: সংগৃহীত

প্রায় সকল প্রাণীগুলোকে স্থানীয় সময় রাতে সরিয়ে নেওয়া হয়।

স্টাপলেস আরও বলেন, বর্তমানে প্রাণীগুলো আমার বাড়িতেই রয়েছে। সব প্রাণীকে আলাদা আলাদা রুমে রাখা হয়েছে। সেখানে তারা নিরাপদে রয়েছে। তবে সমস্যা হচ্ছে জিরাফ ও জেব্রাকে নিয়ে । তারা এতো বড় যে তাদের সরানো অসম্ভব হয়ে উঠে। তাই সেগুলোকে সেখানেই রাখা হয়।

এদিকে তাদের আগুন থেকে বাঁচানোর জন্য কয়েক শত লিটার পানি চিড়িয়াখানার পাশে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন: দাবানলে অস্ট্রেলিয়ার উপকূলবর্তী ২০০ বাড়ি পুড়ে ছাই