সৌদিতে বাংলাদেশি হজকর্মী নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

ইসলাম ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বাংলাদেশ হজ অফিস, মক্কা, ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ হজ অফিস, মক্কা, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বৈশ্বিক মহামারি করোনা পরিস্থিতির কারণে ২০২০ সালের হজ মৌসুমে বিভিন্ন পদে মক্কা মোকাররামা, মদিনা মোনাওয়ারা এবং জেদ্দার জন্য স্থানীয়ভাবে অস্থায়ী ভিত্তিতে নেওয়া হজকর্মীদের নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করেছে বাংলাদেশ হজ অফিস জেদ্দা।

হজ কাউন্সিলর মোহাম্মদ মাকসুদুর রহমান জানিয়েছেন, বাংলাদেশ থেকে আগত হাজি সাহেবানদের খেদমতের জন্য যে সব বাংলাদেশিরা আবেদন করছিলেন করোনাভাইরাসের সংক্রমণ তথা সৌদি আরবে চলমান কারফিউ পরিস্থিতির কারণে তাদের ইন্টারভিউ নির্ধারিত তারিখে গ্ৰহণ করা যাচ্ছে না।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ইন্টারভিউর তারিখ পুনঃনির্ধারণ করা হবে এবং সংশ্লিষ্ট সকলকে তা বিজ্ঞপ্তি ও মোবাইলে এসএমএস করে জানানো হবে।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে ৩০ জুলাই (৯ জিলহজ) পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৭ হাজার ১৯৮ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজার জন পবিত্র হজপালনে সৌদি আরব যাবেন।

সৌদি আরব করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ দিকে উমরা স্থগিত করে। সেই সঙ্গে দেশটি সকল আন্তর্জাতিক ফ্লাইট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে। মক্কা ও মদিনায় কারফিউ জারিসহ পুরো দেশে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। সৃষ্টি হয়ে হজ নিয়ে অনিশ্চয়তা।

সম্প্রতি সৌদি আরবের হজ ও উমরা বিষয়ক মন্ত্রী মুহম্মদ সালেহ বিন তাহের বেনতেন এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘সৌদি আরব নাগরিকদের সুরক্ষার ব্যাপারে কোনো আপোস করবে না। তাই করোনা পরিস্থিতি সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা না পাওয়া পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে হজের বিষয়ে আমরা কোনো চুক্তি স্বাক্ষর না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মুসলিম দেশগুলোকে অনুরোধ করা হয়েছে, এবার যেন তারা হজযাত্রা নিয়ে তাড়াহুড়ো না করেন। করোনা মহামারির গতি-প্রকৃতির ওপর নির্ভর করবে সিদ্ধান্ত। জনস্বাস্থ্যের বিষয়টি আমাদের কাছে সবার আগে প্রাধান্য পাবে।’

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সৌদি আরবে নতুন করে আরও ১৯১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৩৭০।

আপনার মতামত লিখুন :