নাকে বসে যাচ্ছে চশমার দাগ!

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চোখের সমস্যার জন্য চশমা ব্যবহার করা খুব একটা আরামদায়ক নয় মোটেও। ক্ষেত্র বিশেষে যাদের নিয়মিত চশমা পরতে হয় তাদের জন্য চশমা বড় একটি ঝামেলার নাম। কন্টাক্ট লেন্স ব্যবহারের অপশন থাকলেও নিয়মিত ব্যবহারের জন্য তা খুব একটা সুবিধাজনক নয়।

নিয়মিত লম্বা সময়ের জন্য চশমা ব্যবহারের অন্যতম একটি সমস্যা হলো নাকের উপরিভাগের অংশে দাগ পড়ে যাওয়া। নাকের যা অংশটিতে চশমা থাকে, সেখানে কালচে, বাদামী রঙ ধারণ করে। এমন সমস্যাটি দেখা দেওয়াই স্বাভাবিক। দীর্ঘদিন চশমা ব্যবহারের ফলে যে দাগ দেখা যায়, তা কিন্তু সহজে চলে যাবে না। তবে সঠিক প্রাকৃতিক উপাদানের ব্যবহারে দ্রুত ফল পাওয়া যাবে।

অ্যালোভেরা জেল

অ্যালো

সৌন্দর্যচর্চায় প্রাকৃতিক অ্যালোভেরা জেল দারুণ জনপ্রিয় এক উপাদান। ত্বকের পরিচর্যা তো বটেই ত্বকের ক্ষতদাগ বা ত্বকের কালচেভাবকে কমাতে খুব ভালো কাজ করে এই পাতার জেল।

ব্যবহারের জন্য অ্যালোভেরা পাতার জেল তুলে নাকের দাগযুক্ত অংশে ম্যাসাজ করে আধা ঘন্টার জন্য রেখে দিতে হবে। এরপর ঠাণ্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। দুই সপ্তাহের জন্য প্রতিদিন দুইবার ব্যবহার করতে হবে অ্যালোভেরা।

আলু

আলুতে থাকা চমৎকার ব্লিচিং উপাদান ত্বকের দাগ ও লালচেভাবকে দূর করতে কাজ করে। চশমা ব্যবহারের ফলে নাকের দাগকে দূর করতেও আলু খুব ভালো কাজ করবে। এর জন্য একটি আলু গ্রেট করে তার রস নিংড়ে নিতে হবে। ১৫-২০ মিনিট অপেক্ষা করে শুকিয়ে এরপর মুখ স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানিতে ধুয়ে নিতে হবে। পনের দিন পর্যন্ত প্রতিদিন একবারের জন্য এই মিশ্রণটি ব্যবহার করতে হবে। এরপর একদিন অন্তর অন্তর ব্যবহার করতে হবে।

মধু

ত্বকের পরিচর্যায় মধুর ব্যবহার নতুন কিছু নয়। আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে বহুল ব্যবহৃত প্রাকৃতিক এই উপাদানটির প্রদাহ বিরোধী ধর্ম ত্বকের সসমস্যায় দ্রুত কাজ করে। নাকের দাগকে কমাতে প্রয়োজন হবে এক চা চামচ মধু ও এক টেবিল চামচ দুধ। এই দুইটি উপাদান একসাথে মিশিয়ে নাকের দাগযুক্ত স্থানে ম্যাসাজ করে আধা ঘন্টা রেখে দিয়ে এরপর ধুয়ে ফেলতে হবে। টানা এক সপ্তাহ প্রতিদিন দুই বার এই মিশ্রণ ব্যবহারে লক্ষণীয় পরিবর্তন দেখা যাবে।

কমলালেবুর খোসা

Orange Peel

বহু ক্রিম, ময়েশ্চারাইজার, ফেস মাস্ক ও স্ক্রাবেই ব্যবহৃত হয় কমলালেবুর খোসা গুঁড়া। মূলত এতে থাকা ত্বক উজ্জ্বলকারক উপাদান ত্বকের দাগকে হালকা করতে কাজ করে বলে এই উপাদানটির ব্যবহারের প্রচলন রয়েছে। নাক চশমা ব্যবহারের দাগ দূর করার জন্যেও চমৎকার কাজ করবে এই খোসার গুঁড়া। ব্যবহারের জন্য প্রয়োজন হবে এক চা চামচ কমলালেবুর খোসা গুঁড়া ও এক টেবিল চামচ দুধ। এই দুইটি উপাদান একসাথে মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করতে হবে। এই পেস্টটি নাকের দাগযুক্ত স্থানে ম্যাসাজ করে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এরপর ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে নিতে হবে। এই মিশ্রণটি প্রতি এক দিন অন্তর ব্যবহার করতে হবে।

আপনার মতামত লিখুন :