‘করোনা যেভাবে বাড়ছে, হাসপাতালে রোগী রাখার জায়গা থাকবে না’

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রতিদিন যেভাবে করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে, এভাবে চলতে থাকলে দেশে কোনো হাসপাতালেই রোগী রাখার জায়গা থাকবে না বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেছেন, হাসপাতালগুলো প্রায় ভরে গেছে, এটা একটা দুর্যোগময় পরিস্থিতি হচ্ছে। আমাদের বুঝতে হবে হাসপাতালের বেড বাড়িয়ে আমরা কিন্তু রোগী সংকুলন করতে পারব না। যদি রোগী যেখানে উৎপত্তি হচ্ছে সেই উৎপত্তিস্থলগুলো যদি বন্ধ না করি, তাহলে বাড়তেই থাকবে।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সকালে ভার্চুয়াল মাধ্যমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন ১০টি আইসিইউ বেডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সব রোগীকে হাসপাতালে জায়গা দেওয়া সম্ভব নয়, অঙ্কুরেই বিনষ্ট করতে হবে করোনার উৎস। আমাদের মনে রাখতে হবে, মাস্ক ছাড়া আমাদের বেখেয়ালি চলাফেরা আগামীতে আরও বিপর্যয় নিয়ে আসবে। যেভাবে প্রতিদিন করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে, এভাবে চলতে থাকলে দেশে কোনো হাসপাতালেই রোগী রাখার জায়গা থাকবে না।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে, মাস্ক ছাড়া আমাদের বেখেয়ালি চলাফেরা আগামীতে আরও বিপর্যয় নিয়ে আসবে।

সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) একটি মার্কেটকে পুরোপুরি কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল করা হয়েছে। হাসপাতালটিতে মোট এক হাজার ২৫০টি করোনা ডেডিকেটেড শয্যা রয়েছে। এখানে ৫০টি আইসিইউ বেড ও ২০০টি এসডিও বেড রয়েছে। এর পাশাপাশি এক হাজারটি আইসোলেশন বেড রয়েছে।’

দেশে করোনা নিয়ন্ত্রণে সরকারি ১৮ নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর ১৮টি নির্দেশনার যথাযথ বাস্তবায়নসহ সব স্থানে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলতে না পারলে আগামীতে এই প্রকোপ ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে।’

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস