১০ দিনে দুই সহস্রাধিক মৃত্যু

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশে বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস শনাক্তে বা মৃত্যু প্রতিদিনই রেকর্ড ভাঙছে। ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে মৃত্যুর মিছিল। দেশে করোনায় এখন পর্যন্ত ১৮ হাজার ৪৯৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে শেষ দশ দিনেই (১২ জুলাই থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত) দুই হাজার ৭৯ জন করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার (২১ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য ঘেঁটে দেখা যায়, শেষের দুই হাজার রোগী মারা গেছেন মাত্র দশ দিনে। আজ করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৭৩ জনের মৃত্যুর খবর দেয় অধিদফতর।

এদিকে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এ বি এম খুরশিদ আলম বলেছেন, পবিত্র ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে মানুষের আনন্দ যেন বেদনায় পরিণত না হয়। সে ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, গত ৩১ মার্চ দেশে করোনায় মোট মৃত্যু ৯ হাজার ছাড়িয়েছিল। মৃত্যু ৮ হাজার থেকে ৯ হাজার ছাড়াতে সময় লেগেছিল ৬৭ দিন। ৯ হাজার থেকে মৃত্যু ১০ হাজারে পৌঁছাতে সময় লেগেছিল ১৫ দিন। আর ১০ হাজার থেকে ১১ হাজারে পৌঁছায় মাত্র ১০ দিনে।

এরপর ১১ মে করোনায় মৃত্যু ১২ হাজার ছাড়িয়ে যায়। মৃত্যু ১১ থেকে ১২ হাজার পৌঁছায় ১৬ দিনে। গত ১১ জুন করোনায় মৃত্যু ১৩ হাজার ছাড়ায়। মৃত্যুর সংখ্যা ১২ থেকে ১৩ হাজারে পৌঁছাতে সময় লাগে ৩১ দিন। গত ২৬ জুন করোনায় মৃত্যু ১৪ হাজারে পৌঁছায়। মৃত্যু ১৩ থেকে ১৪ হাজারে পৌঁছাতে সময় লাগে ১৫ দিন। গত ৪ জুলাই করোনায় মৃত্যু ১৫ হাজারে পৌঁছায়। মৃত্যু ১৪ থেকে ১৫ হাজারে পৌঁছাতে সময় লাগে ৮ দিন। আর মৃত্যু ১৫ থেকে ১৬ হাজারে পৌঁছাতে সময় লাগে মাত্র ৫ দিন। মৃত্যু ১৬ থেকে ১৭ হাজারে পৌঁছাতে সময় লাগে ১০ দিন। মৃত্যুর সংখ্যা ১৭ থেকে ১৮ হাজারে পৌঁছাতে সময় লাগে ৩ দিন।

দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত (কোভিড-১৯) প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। তার ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস