ব্যাটিং ব্যর্থতায় চট্টগ্রাম টেস্টেও হারল বাংলাদেশ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

টি-টোয়েন্টি সিরিজে ২-১ ব্যবধানে হার, ওয়ানডে সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জয়। এরপর টেস্ট সিরিজে এসে বাংলাদেশের প্রাপ্তির খাতাটা ‘শূন্য’। নেপথ্যে সেই ব্যাটিং ব্যর্থতা। সিলেট টেস্টের দুই ইনিংসে স্বাগতিকদের সংগ্রহ ছিল ১৮৮ ও ১৮২। সেই ব্যাটিং ব্যর্থতা পৌঁছায় সাগরিকাতেও। চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম ইনিংসেও শান্ত-লিটনদের সংগ্রহ দুইশয়ের নিচে, ১৭৮ রানের। দ্বিতীয় ইনিংসে এসে মুমিনুল-মিরাজের দৃঢ়তায় সিরিজে প্রথমবারের মতো তিনশ পেরোয় স্বাগতিকদের পুঁজি। তবে লক্ষ্যের পথে তা অনেকটাই দূরে। দ্বিতীয় ইনিংসে সবকটি উইকেট হারিয়ে ৩১৮ রানে থামে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। এতে ১৯২ রানে হেরে ২-০ ব্যবধানে সিরিজটা তুলে দেয় শ্রীলঙ্কার হাতে। 

স্কোরবোর্ডে ৭ উইকেটে ২৬৮ রান নিয়ে পঞ্চম ও শেষ দিনের খায় মাঠে নামে বাংলাদেশ। সেখানে মোটে আর ৫০ রান যোগ করে স্বাগতিকরা। দলীয় সর্বোচ্চ ৮১ রানে অপরাজিত ছিলেন অপরাজিত ছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। শেষ পর্যন্ত লড়ে যাওয়া এই ইনিংসে ১৪টি চার মারেন এই ডানহাতি ব্যাটার। এছাড়াও ৫০ রান করেন মুমিনুল। এদিকে দ্বিতীয় ইনিংসে লঙ্কানদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন লাহিরু কুমারা। 

এর আগে দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৫৩ রানের বিশাল লিড নিয়ে ব্যাট করতে নামে লঙ্কানরা। সেখানে এবার ব্যাট হাতে জ্বলে উঠলো না সফরকারীদের ব্যাট। তাতে অবশ্য বিন্দুমাত্র বিচলিত হতে হয়নি তাদের। কেননা, প্রথম ইনিংসে পাওয়া সেই বিশাল লিডেই যেন জয়ের ভিত গড়ে গিয়েছিল ধনঞ্জয়া ডি সিলভার দল। দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ১৫৭ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে দেয় লঙ্কানর।  এতে বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্যটা দাঁড়ায় ৫১১ রানের। সেখানে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন পেসার হাসান মাহমুদ।

সিলেটে পর চট্টগ্রামেও লঙ্কানদের জয়ের শুরু সেই টস দিয়েই। সেখানে শুরু দিনে ব্যাটিং ফ্রেন্ডলি উইকেটে আগে ব্যাট করতে নেমে একে এক ছয় ব্যাটারের হাফ সেঞ্চুরিতে পাঁচশ পেরোয় শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ। এর মধ্যে তিন ব্যাটার ফিরেছেন সেঞ্চুরির একদম দ্বারে এসে। সর্বোচ্চ ৯৩ রান আসে কুশল মেন্ডিসের ব্যাট থেকে। এছাড়া সিরিজে দারুণ ছন্দে থাকা কামিন্দু মেন্ডিস ছিলেন ৯২ রানে অপরাজিত। 

জবাবে প্রথম ইনিংসেই সেই ব্যাটিং দুর্দশা। আবার, আরও একবার! শুরুটা অবশ্য হয়েছিল আশাজাগানিয়া। ৯৬ রানেও ছিল ১ উইকেট। সেখান থেকে ১৭৮ রানে পৌঁছাতেই পুরো দল সাজঘরে। সর্বোচ্চ ৫৪ রান আসে ওপেনার জাকিরের ব্যাট থেকে। 

সিলেট টেস্টের দুই ইনিংসে ধনঞ্জয়ার সঙ্গে জুটি গড়ে জোড়া সেঞ্চুরি তুলেছিলেন কামিন্দু। পরে চট্টগ্রামের প্রথম ইনিংসেও ছিলেন টানা তৃতীয় সেঞ্চুরির দিকেই। তবে অপরপ্রান্তের সবাই সাজঘরে ফিরলে ৮ রানে আক্ষেপ থেকে যাই বাঁহাতি ব্যাটারের। দ্বিতীয় ইনিংসে এসে এবার ব্যাট হাতে ৯ রানে ফিরলেও বোলিংয়ে নেন ৩ উইকেট। এতে ম্যাচসেরার খেতাব যায় কামিন্দুর দখলেই। এদিকে সিরিজজুড়ে তার মোট রান ৩৬৭। জেতেন সিরিজসেরার খেতাবটাও। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর: (চট্টগ্রাম টেস্ট)

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: ৫৩১ (১৫৯ ওভার) (কুশল ৯৩, কামিন্দু ৯২*, করুনারত্নে ৮৬; সাকিব ৩/১১০, হাসান ২/৯২)

বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ১৭৮ (৬৮.৪ ওভার (জাকির ৫৪, মুমিনুল ৩৩; আসিথা ৪/৩৪, লাহিরু ২/১৯)

শ্রীলঙ্কা ২য় ইনিংস: ১৫৭/৭ ডি. (৪০ ওভার) (ম্যাথিউস ৫৬, মাদুশকা ৩৪; হাসান ৪/৩৫, খালিদ ২/৩৪)

বাংলাদেশ ২য় ইনিংস: ৩১৮ (৮৫ ওভার) (মিরাজ ৮১*, মুমিনুল ৫০, লিটন ৩৮, সাকিব ৩৬; ;লাহিরু ৪/৫০)

ফল: শ্রীলঙ্কা ১৯২ রানে জয়ী

সিরিজ: ২-০ ব্যবধানে জয়ী শ্রীলঙ্কা

ম্যাচসেরা: কামিন্দু মেন্ডিস

সিরিজসেরা: কামিন্দু মেন্ডিস 





   

রেকর্ড গড়ে ইউরোপা লিগের সেমিতে লেভারকুসেন 



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের এই মৌসুম শেষের আগেই একটা কথা যেন অনায়াসেই বলে দেওয়া যায়, বায়ার লেভারকুসেন, ‘রিমেম্বার দ্য নেইম।’ মনে না রেখেই বা উপায় আছে? চলতি আসরে লেভারকুসেনের ফর্ম এক কথায় দানবীয়। গেল সপ্তাহেই ক্লাবের ১১৯ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বুন্দেসলিগা শিরোপা জেতে ক্লাবটি। এবার জার্মান ক্লাব ফুটবলের ট্রেবলের দিকেই এগোচ্ছে জাভি আলোনসোর দলটি। 

গত রাতে ইউরোপ লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের ফিরতি লেগের ম্যাচে ওয়েস্ট হ্যামের বিপক্ষে ১-১ গোলের ড্রয়ে টুর্নামেন্টের সেমিতে পৌঁছেছে লেভারকুসেন। আগের লেগে ঘরের মাঠে ইংলিশ ক্লাবটির বিপক্ষে ২-০ ব্যবধানে জিতেছিল তারা। এতে দুই লেগ মিলিয়ে ব্যবধান দাঁড়ায় ৩-১ গোলের। 

এদিকে এই ড্রয়ে অনন্য একটি রেকর্ডও গড়েছে লেভারকুসেনের। গতকালের ম্যাচ দিয়ে এই আসরে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এখন পর্যন্তও টানা ৪৪ ম্যাচে অপরাজিত দলটি। ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লিগের কোনো ক্লাবের টানা এতো ম্যাচে অপরাজিত থাকার কীর্তি নেই। 

ওয়েস্ট হ্যামের মাঠে গত রাতের ম্যাচটির শুরুতেই অবশ্য ধাক্কার মুখোমুখি হতে হয় জার্মান ক্লাবটিকে। মিকেইল আন্তনিও গোলের ম্যাচের ১৩তম মিনিটেই এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। পিছিয়ে পড়ে সমতায় ফিরতি মরিয়া হলে উঠলেও কাঙ্খিক সেই ‘শট’ এর দেখা পাচ্ছিল না লেভারকুসেন। ম্যাচের ৮৮ মিনিতেও এগিয়ে ওয়েস্ট হ্যাম। দুই লেগ মিলিয়ে তখনও অবশ্য এগিয়ে লেভারকুসেন, তবে অনেকেই ভাবছিল দলটির অপরাজিত যাত্রা এই বুঝি শেষ! 

তবে ম্যাচের মূল সময়ের এক মিনিট বাকি থাকতে সেই কাঙ্ক্ষিত ‘শট’ এলো জেরেমি ফ্রিমপংয়ের থেকে। সমতায় লেভারকুসেন। বহাল থাকলো অপরাজিত থাকলো সঙ্গে সহজ ব্যবধানে সেমিতেও উঠল। 

রাতের আরেক ম্যাচে এসি মিলানকে ২-১ গোলে হারিয়েছে আরেক ইতালিয়ান ক্লাব রোমা। এতে ৩-১ এগ্রিগেটে সেমিতে পৌঁছেছে তারা। সেমিতে এই রোমার বিপক্ষেই ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে নামবে লেভারকুসেন। 

;

২৪০ বলের ম্যাচ শেষ ২ বলেই



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

 

টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। দুই ইনিংস মিলিয়ে ম্যাচটি নির্ধারিত থাকে ২০ ওভার করে ৪০ ওভারের। বলের হিসেবে ২৪০ বল। তবে এই ২৪০ বলের ম্যাচ এবার শেষ হলো স্রেফ ২ বলেই! তবে না, এই ২ বলে ম্যাচ নিস্পত্তি হয় নি। গত রাতের পাকিস্তানের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি ২ বলের পরই ভেস্তে গেছে বৃষ্টিতে। 

রাওয়ালপিন্ডিতে এদিন ম্যাচ শুরুর আগ থেকেই নামে বৃষ্টি। অনেকটা সময় পেরিয়ে বৃষ্টি থামলে শুরু হলেও তা কমে আসে ইনিংস প্রতি ৫ ওভারে। টসে জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নামে কিউইরা। সেখানে প্রথম ওভার করতে যান শাহিন শাহ আফ্রিদি। দ্বিতীয় বলে ওপেনার টিম রবিনসনকে বোল্ডও করেন। তবে ঠিক এর পরেই ফের নামে বৃষ্টি এবং শেষ পর্যন্ত ম্যাচটিকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন আম্পায়াররা। এর আগে ২ বল খেলে কিউইদের স্কোরবোর্ডে ছিল ১ উইকেটে ২ রান। 

এদিকে ম্যাচটি দিয়ে প্রায় চার বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরলেন মোহাম্মদ আমির। তবে ফেরার এই ম্যাচে একটি বলও করতে পারলেন না এই বাঁহাতি তারকা পেসার। আমির এর আগে সবশেষ টি-টোয়েন্টি খেলেছিলেন ২০২২ সালের ৩০ আগস্ট, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। সেই বছরের ডিসেম্বরেই আচমকা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলেছিলেন এই বাঁহাতি পেসার। তবে প্রায় চার বছর পর অবসর ভেঙে ফিরলেন দলে, সেই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট দিয়েই।

ম্যাচটি দিয়ে অভিষেক হয়েছে পাকিস্তানের তিন ক্রিকেটারের। আমিরের ফেরার মতো উসমান খান, আবরার আহমেদ ও মোহাম্মদ ইরফানের অভিষেক স্মৃতি হিসেবে থাকলো স্রেফ কয়েক মিনিটের ফিল্ডিং। 

চলতি বছরের জুনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবেই মূলত পাঁচ ম্যাচের এই টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছে দল দুটি। যদিও আইপিএলে ব্যস্ত থাকায় পাকিস্তান সফরে আসেননি কিউইদের মূল সারির অনেক ক্রিকেটার। 

আগামী ২০ ও ২১ এপ্রিল এই রাওয়ালপিন্ডিতেই গড়াবে সিরিজের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচটি। পরে সিরিজের শেষ দুই ম্যাচ যথাক্রমে ২৫ ও ২৭ এপ্রিল, লাহোরে। 

;

সমর্থকদের কারণে মোটা অঙ্কের জরিমানা বার্সার 



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে ম্যাচটি পিএসজির মাঠে ৩-২ ব্যবধানে জেতার পর সেমির স্বপ্নে বেশ ভালোভাবেই দেখছিল বার্সেলোনা। তবে ফিরতি লেগে ঘরের মাঠে ম্যাচটিতে ৪-১ ব্যবধানে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয়ে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেয় কাতালানরা। সেই হতাশার দুদিন না পেরোতেই আরও এক দুঃসংবাদ পায় স্প্যানিশ ক্লাবটি। গত সপ্তাহে পিএসজির মাঠের সেই ম্যাচটিতে বার্সা সমর্থকদের বর্ণবাদী আচরণসহ একাধিক শৃঙ্খলাভঙ্গের ঘটনা সূত্র ধরে স্প্যানিশ জায়ান্টদের গুণতে হচ্ছে মোটা অঙ্কের জরিমানা। 

তিনটি কারণ দর্শীয়ে বার্সাকে ৩২ হাজার ইউরো (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩৭ লাখ ৪৪ হাজার টাকা) জরিমানা করেছে ইউরোপীয় ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফা। 

পিএসজির মাঠ পার্ক দ্য প্রিন্সেসে বার্সা সমর্থকদের করা বর্ণবাদী আচরণেই মূলত এই জরিমানা। এই কারণে হয়েছে ২৫ হাজার ইউরো জরিমানা। স্পেনের গণমাধ্যম মার্কার সূত্রমতে, বাকি দুটি কারণ স্টেডিয়ামের আসন নষ্ট ও আতশবাজি পোড়ানো। এই দুই কারণে যথাক্রমে জরিমান ৫ হাজার ও ২ হাজার ইউরো। 

এদিকে কেবল জরিমানাই নয় পাশাপাশি শাস্তিও ভোগ করতে হচ্ছে বার্সাকে। উয়েফার যেকোনো প্রতিযোগিতায় তাদের পরের ম্যাচের অ্যাওয়ে টিকিট নিজেদের সমর্থকদের কাছে বিক্রি করতে পারবে না কাতালান ক্লাবটি। এছাড়া পিএসজির স্টেডিয়ামে ক্ষয়ক্ষতি বিষয়টি ফ্রেঞ্চ ক্লাবের সঙ্গে মীমাংসা করতে বার্সাকে এক মাসের সমক্য বেঁধে দিয়েছে উয়েফা।  

;

আইপিএলে চেন্নাইয়ের ম্যাচ ছাড়াও টিভিতে যা থাকছে আজ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আইপিএলে দিনের একমাত্র ম্যাচে লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে মাঠে নামবে মুস্তাফিজুর রহমানের চেন্নাই সুপার কিংস। এছাড়াও টিভিতে যা যা থাকছে।

 

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ

মোহামেডান-ব্রাদার্স

সকাল ৯টা, বিসিবি ইউটিউব চ্যানেল

গাজী গ্রুপ-সিটি ক্লাব

সকাল ৯টা, বিসিবি ইউটিউব চ্যানেল

রূপগঞ্জ টাইগার্স-পারটেক্স

সকাল ৯টা, বিসিবি ইউটিউব চ্যানেল

 

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল

আবাহনী-শেখ জামাল

বিকেল ৩টা ৪৫ মিনিট, টি স্পোর্টস

 

আইপিএল

লক্ষ্ণৌ-চেন্নাই

রাত ৮টা, টি স্পোর্টস ও গাজী টিভি

 

সৌদি প্রো লিগ

আল নাসর-আল ফাইহা

রাত ৯টা, সনি স্পোর্টস ২

;