বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে দৌড়ালেন শান্ত-মুশফিক-তানজিমরা



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম, দেশের ক্রিকেট যাত্রা শুরু হয়েছিল এই মাঠের মাধ্যমেই। ২০০৬ সালের আগে আন্তর্জাতিক অথবা ঘরোয়া ম্যাচের বেশিরভাগই গড়াতো এই মাঠে। এরপর এই মাঠ ফুটবলের জন্য বরাদ্দতা পায় এবং ক্রিকেটের নতুন ঠিকানা হিসেবে পরিচিতি পায় মিরপুরের শেরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম।

আজ অনেক বছর পর আবারও দেশের প্রথম সারির ক্রিকেটারদের দেখা পেল বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম। তবে ক্রিকেট খেলার মাধ্যমে নয়, বরং অ্যাথলেটিক্স ট্র্যাকে দৌড়ের মাধ্যমে। ফিটনেস টেস্টকে উদ্দেশ্য করেই মুলত এই আয়োজন।

মে মাসের শুরতেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে নামবে বাংলাদেশ, এরপরই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এই টুর্নামেন্টকে মাথায় রেখেই খেলোয়াড়দের ফিটনেস বিষয়ে বেশ সচেতন ক্রিকেট বোর্ড। তাই আজ (শনিবার) থেকে শুরু হয়েছে ক্রিকেটারদের ফিটনেস টেস্ট। যেখানে অংশ নেবেন সিরিজের জন্য বিবেচনায় থাকা ৩৫ জন ক্রিকেটার। ফিটনেস টেস্টের শুরুর ধাপটা হয়ে গেল বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের অ্যাথলেটিক্স ট্র্যাকে ১৬০০ মিটার দৌড়ের মাধ্যমে।

ভোর ৬টায় পৌঁছে ৪০০ মিটারের এই ট্র্যাকে মোট চারটি চক্কর মেরে দৌড় সম্পন্ন করেছেন টাইগার ক্রিকেটাররা। ১৬০০ মিটারের দৌড় শেষে ৪০ মিটারের স্প্রিন্টেও অংশ নেন সবাই। এরপর মিরপুরে যেয়ে জিম সেশন দিয়ে শেষ হবে আজকের ফিটনেস ট্রেনিংয়ের পর্ব। ট্রেনিংয়ের এই পর্বগুলো পর্যবেক্ষণ করছেন দলের নতুন ট্রেইনার নাথান কেলি।

এখনও আন্তর্জাতিক দলে খেলছেন এমন ক্রিকেটারদের মধ্যে এই ঐতিহাসিক বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ম্যাচ খেলেছেন এমন অভিজ্ঞতা আছে মাত্র দুইজনের, তারা হলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং মুশফিকুর রহিম। দীর্ঘ বছর পর এখানে আবারও এসে বেশ স্মৃতিচারণ করছেন তারা। গ্যালারির আশেপাশে তাকিয়ে এবং ঘুরে দেখছিলেন মাহমুদউল্লাহ।

জাতীয় দলের ম্যানেজার নাফিস ইকবালের খেলোয়াড়ি জীবনের শুরুটাও এখানে। তিনি পুরোনো স্মৃতি মনে করে বলেছেন, ‘সবকিছুই দেখি বদলে গেছে! কী স্টেডিয়াম ছিল রে ভাই। খেলার সময় গেট বন্ধ করে রাখা লাগত, কী মনে নাই ভাই?’

বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের মাহাত্ম্য উল্লেখ করে নাফীস আরও বলেন, ‘এখনকার প্রজন্ম হয়তো এখানে খেলেনি। কিন্তু এই স্টেডিয়ামের কথা নিশ্চয়ই শুনেছে। অনেকের জন্ম ২০০০ সালের আশপাশে তাই তাদের খেলার কথাও নয়। তবে আইকনিক স্টেডিয়াম যেহেতু, এটার গল্প নিশ্চয়ই শুনেছে। দেখুন, সাধারণত সকাল ছয়টায় ফিটনেস টেস্ট দেখতে এত মানুষের আশার কথা নয়। যেহেতু বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম, তাই সবাই এসেছে। সবার জন্যই দারুণ অভিজ্ঞতা এটা।‘

মুশফিকুর রহিম মজার ছলে বলেছেন, অ্যাথলেটদের মতো যেহেতু তারা দৌড়াবেন, সেহেতু তাদের জন্য পুরষ্কারের ব্যবস্থা থাকলে আরও ভালো হতো। বিসিবির এক কর্মকর্তাকে তিনি মজা করে জিজ্ঞেস করছিলেন, ‘পতাকা কই? পতাকা আনবেন না!’ 

   

বেঙ্গালুরুকে বাদ করে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে রাজস্থান



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

এবারের আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু প্লে-অফে খেলবে এমনটাই বেশিরভাগ সমর্থক আশা করছিল না। কারণ আসর শুরুর আট ম্যাচের মধ্যে সাতটিতেই হেরে পয়েন্ট তালিকার তলানিতে ছিল তারা, সবার আগে বাদ পড়বে কোহলিরা এমনটাই ধরে রেখেছিল সবাই। কিন্তু অনেক সমীকরণের বাঁধা পেরিয়ে প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে দেখিয়েছে বেঙ্গালুরু। যদিও শেষ পর্যন্ত ফাইনালে খেলার এবং শিরোপা জেতার স্বপ্ন থেকে আরও একবার বঞ্চিত থাকতে হয়েছে তাদের।

আইপিএলের প্লে-অফে এলিমিনেটর ম্যাচে বেঙ্গালুরুকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। আরও একবার খালি হাতেই বিদায় নিতে হলো বিরাট কোহলিকে। দ্বিতীয় কোয়ালিফাইয়ারে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে লড়বে রাজস্থান।

বুধবার রাতে আহমেদাবাদের মাঠে টসে জিতে শুরুতে বেঙ্গালুরুকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় রাজস্থান। ব্যাট হাতে এদিন জ্বলে উঠতে পারেননি কোহলিদের কেউই। নির্ধারিত ওভার শেষে তাদের দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ১৭২ রানে।

জবাবে ব্যাট হাতে নেমে সাবলীল সূচনা করেন রাজস্থানের দুই ওপেনার। যদিও বেশিক্ষণ উইকেটে টিকে থাকতে পারেননি তারাও। শেষে দলীয় প্রচেষ্টায় চার উইকেট এবং এক ওভার হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় রাজস্থান। রাজস্থানের এই জয়ে আরও একবার শিরোপা জয়ের স্বপ্নভঙ্গ হয় বেঙ্গালুরু সমর্থক ও বিরাট কোহলির।

২৪মে রাত ৮টায় দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে হায়দরাবাদের মুখোমুখি হবে রাজস্থান। তাদের মধ্যে যে জিতবে সে দল আগামী ২৬মে কলকাতার বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচের লড়াইয়ে নামবে।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

বেঙ্গালুরুঃ ১৭২/৮ (২০ ওভার); পাতিদার ৩৪, কোহলি ৩৩; আভেশ ৩-৪৪, অশ্বিন ২-১৯।

রাজস্থানঃ ১৭৪/৬ (১৯ ওভার); যশস্বী ৪৫, পরাগ ৩৬; সিরাজ ২-৩৩, কার্ন ১-১৯।

ফলাফলঃ রাজস্থান ৪ উইকেটে জয়ী।

ম্যাচসেরাঃ রবীচন্দ্রন অশ্বিন।

;

বাংলাদেশের ম্যাচ ছাড়াও টিভিতে যা থাকছে আজ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে আজ মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ম্যাচটি শুরু হবে রাত ৯টায়। এছাড়াও টিভিতে যা যা থাকছে। 

২য় টি-টোয়েন্টি

বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র

রাত ৯টা, নাগরিক টিভি

মেয়েদের ১ম ওয়ানডে

ইংল্যান্ড-পাকিস্তান

সন্ধ্যা ৬টা, সনি স্পোর্টস টেন ৫

সৌদি প্রো লিগ 

আল হিলাল-আল তাই

রাত ১২টা, সনি স্পোর্টস টেন ৩

আল রিয়াদ-আল নাসর

রাত ১২টা, সনি স্পোর্টস টেন ২

আল ইত্তিহাদ-দামাক

রাত ১২টা, সনি স্পোর্টস টেন ১

;

এলপিএলে মুস্তাফিজের দলের চুক্তি বাতিল, মালিক গ্রেপ্তার



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগের (এলপিএল) দল ডাম্বুলা থান্ডার্স কিনে নিয়েছিলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক তামিম রহমান। তবে টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ানোর আগেই শ্রীলঙ্কায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাকে। এছাড়া তার দল ডাম্বুলা থান্ডার্সের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করেছে এলপিএল কর্তৃপক্ষ।

ডাম্বুলা থান্ডার্সে খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের তারকা পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের। তাকে সরাসরি চুক্তিতে দলে ভিড়িয়েছিল তারা। দলটির সঙ্গে এলপিএল চুক্তি বাতিল করায় এখন তার খেলা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, আজ (বুধবার) কলম্বোতে ফ্লাইটে চড়ার আগে তাকে গ্রেপ্তার করে কলম্বো পুলিশ। তার বিরুদ্ধে এলপিএলে দুর্নীতি বা ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এবারের আসরে মুস্তাফিজ ছাড়াও ইব্রাহিম জাদরান, ইফতিখার আহমেদের মতো বিদেশী ক্রিকেটারদের দলে ভিড়িয়েছিল ডাম্বুলা। লঙ্কান ক্রিকেটারদের মধ্যে  ছিলেন দিলশান মাদুশঙ্কা, নুওয়ান থুশারা, আকিলা দানঞ্জয়া, দানুশকা গুনাথিলাকা, নুয়ান প্রদীপরা।

তামিম রহমানকে গ্রেপ্তার এবং ডাম্বুলার সঙ্গে চুক্তি বাতিলের বিষয়ে দেয়া এক বিবৃতিতে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট জানিয়েছে, ‘যদিও মিঃ রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগের সুনির্দিষ্ট বিষয়গুলি অস্পষ্ট, তবে লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগের সততা এবং মসৃণ কার্যকারিতা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এমন সিদ্ধান্তের লক্ষ্য হল এলপিএলের মূল্যবোধ এবং খ্যাতি বজায় রাখা, নিশ্চিত করা যে সমস্ত অংশগ্রহণকারীরা আচার-আচরণ এবং ক্রীড়াঙ্গনের সর্বোচ্চ মান মেনে চলবেন। এলপিএল ব্যবস্থাপনা কমিটি এই পরিণতি মোকাবেলা করার জন্য এবং আসন্ন মরসুমে ন্যূনতম ব্যাঘাত নিশ্চিত করার জন্য নিষ্ঠার সাথে কাজ করছে।’

;

অনূর্ধ্ব-১২ এশিয়ান টেনিসে ভারতের কাছে হার



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

নেপালে এশিয়া অনূর্ধ্ব-১২ দলগত টেনিস প্রতিযোগিতা ২০২৪ ইভেন্টের খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতিযোগিতায় স্বাগতিক নেপালসহ বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলংকা, মালদ্বীপ, ভূটান, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১২ বছরের বালক ও বালিকা খেলোয়াড় ও ক্যাপ্টেন অংশগ্রহণ করছে। প্রতিযোগিতার তৃতীয় দিনে বাংলাদেশের বালক ও বালিকা উভয় দল শক্তিশালী ভারত দলের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। তবে দুটি দলই ০-৩ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে হেরে যায়।

বালক এককের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের মোহাম্মদ হায়দার ০-৬, ০-৬ গেমে ভারতের মনোহর পুনিথ এর নিকট এবং মো: জোবায়ের ইসলাম ০-৬, ০-৬ গেমে ভারতের ছাল্লানি আরভ অক্ষয়কুমার এর নিকট পরাজিত হয়। দ্বৈতের খেলায় বাংলাদেশের মোহাম্মদ হায়দার ও মো: জোবায়ের জুটি ০-৬, ১-৬ গেমে ভারতের জর্জ যুভান ও মনোহর পুনিথ জুটির নিকট পরাজিত হলে বাংলাদেশ বালক দল ০-৩ ম্যাচে ভারতের নিকট পরাজিত হয়।

বালিকা এককের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের সারা আল জসিম ০-৬, ১-৬ গেমে ভারতের সৃষ্টি কিরন এর নিকট এবং দ্বিতীয় এককে বাংলাদেশের জান্নাত হাওলাদার  ০-৬, ০-৬ গেমে কাদিয়ান খুশির নিকট পরাজিত হয়। দ্বৈতের খেলায় বাংলাদেশ মাসতুরা আফরিন ও সারা আল জসিম জুটি ০-৬, ১-৬ গেমে সৃষ্টি  কিরন ও গালত সেরেনার নিকট পরাজিত হয়। ফলে বাংলাদেশ বালিকা দল ০-৩ ম্যাচে ভারতের নিকট পরাজিত হয়।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বাংলাদেশ বালক দল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এবং বাংলাদেশ বালিকা দল শ্রীলংকার বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। বাংলাদেশ বালক দল গ্রুপ-‘এ’ তে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে, ফলে গ্রুপ-‘বি’ এর চ্যাম্পিয়ন দল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। অপরদিকে বালিকা দল রাউন্ড রবীন লীগ পদ্ধতিতে ৩টি ম্যাচ খেলে ২টিতে (মালদ্বীপ ও নেপাল) জয় লাভ করে এবং ১টিতে (ভারত) পরাজিত হয়।

;