Alexa

সানস্ক্রিন ব্যবহারে কি ‘ভিটামিন-ডি’ বাধাপ্রাপ্ত হয়?

সানস্ক্রিন ব্যবহারে কি ‘ভিটামিন-ডি’ বাধাপ্রাপ্ত হয়?

সানস্ক্রিন ব্যবহারে রোদের ক্ষতিকর প্রভাব দূরে থাকে, ছবি: সংগৃহীত

শুধু গ্রীষ্মকালেই নয়, পুরো বছর জুড়েই বাইরে বের হওয়ার আগে সান্সক্রিন ব্যবহারের পরামর্শ দেওয়া হয় সবাইকে।

কারণটা হলো রোদের আলোর ক্ষতিকর আল্ট্রাভায়োলেট রে তথা অতিবেগুনি রশ্মি।

রোদের প্রখর এই আলো ও ক্ষতিকর রশ্মি ত্বকের ক্যান্সার সহ ত্বকে পোড়াটে ভাব তৈরি করে। নিজেকে রোদের আলোর ক্ষতিকর প্রভাব থেকে দূরে রাখত সানস্ক্রিন ব্যবহার করা আবশ্যিক।

এখানে একটা বিষয়ে ছোট ‘কিন্তু’ রয়েই যায়। একদিকে রোদের আলোর ক্ষতিকর প্রভাব, অন্যদিকে এই রোদের আলো থেকেই পাওয়া যায় শারীরিক ও মানসিক সুস্বাস্থ্যের জন্য ভীষণ প্রয়োজনীয় ভিটামিন-ডি। এমনকি প্রাকৃতিকভাবে পর্যাপ্ত পরিমাণ ভিটামিন-ডি পাওয়ার প্রধান উৎসও হলো এই রোদের আলো।

এক্ষেত্রে দ্বিধাদন্দে পরে যাওয়া খুবই স্বাভাবিক। যে রোদের আলো সুস্বাস্থ্য আনে, সেই একই রোদের আলো ক্যান্সারের কারণ!

মূলত এ কারণেই ব্যবহার করতে হবে ভালো মানের সানস্ক্রিন। অনেকে ভাবতেই পারেন, সানস্ক্রিন ব্যবহারের ফলে ত্বকের মাধ্যমে শরীরে রোদের আলোর ভিটামিন-ডি প্রবেশে বাধা পাবে। ফলে শরীরে ভিটামিন-ডি এর অভাব রয়ে যাবে।

তবে সাম্প্রতিক সময়ে লন্ডন, অস্ট্রেলিয়ায় হওয়া তিনটি ভিন্ন গবেষণার ফলাফল জানাচ্ছে চমৎকার এক তথ্য। ব্রিটিশ জার্নাল অফ ডার্মাটোলজিতে প্রকাশিত হওয়া তথ্য থেকে জানা যায়, সানস্ক্রিন রোদের আলোর ক্ষতিকর অতিবেগুনি রশ্মিকে প্রতিরোধ করবে, কিন্তু তার উপকারি ভিটামিন-ডি শরীরে প্রবেশে কোনপ্রকার বাধা দান করবে না।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/10/1557466543270.jpg
সানস্ক্রিন ব্যবহারে রোদের ক্ষতিকর প্রভাব দূরে থাকে।

 

লন্ডনের কিংস কলেজের প্রফেসর ও গবেষণাটির প্রধান লেখক অ্যান্টনি ইয়াং বলেন, ‘রোদের আলো হলো ভিটামিন-ডি এর প্রধান উৎস। সানস্ক্রিন ব্যবহারে সানবার্ন ও স্কিন ক্যান্সার প্রতিরোধ করা সম্ভব। তবে শরীরে ভিটামিন-ডি প্রবেশের ক্ষেত্রে সেটা কোন বাধা প্রদান করে না। আমাদের গবেষণার কাজে একদম সঠিক আবহাওয়ায় সানস্ক্রিন রোদেপোড়াভাব তৈরিতে বাধা দেয়। তবে তা শরীরে ভিটামিন-ডি তৈরিতে কোন সমস্যা করে না’।

গবেষণাটির জন্য স্বেচ্ছাসেবীদের দুইটি ভিন্ন দল তৈরি করা হয়। সবাইকেই উজ্জ্বল রোদযুক্ত স্থানে পুরো এক সপ্তাহ কাটানোর জন্য পাঠানো হয়। এর মাঝে একটি দলের স্বেচ্ছাসেবীদের সঠিক মাত্রার ইউভিএ (UVA) প্রটেকশন সমেত সঠিক নির্দেশনা দেওয়া হয় সানস্ক্রিন ব্যবহারের জন্য। আরেকটি দলকে কোন ধরনের বিশেষ সানস্ক্রিন ও নির্দেশনা দেওয়া হয় না। তারা নিজেদের পছন্দমতো সানস্ক্রিন ব্যবহার করেছেন।

৪৮ ঘন্টা আগের ও পরের ফলাফল থেকে দেখা গেছে, উভয় দলের স্বেচ্ছাসেবীদের শরীরেই লক্ষণীয় মাত্রায় ভিটামিন-ডি তৈরি হয়েছে সানস্ক্রিন ব্যবহারের পরেও। তবে যারা সঠিক সানস্ক্রিন নির্দেশনা মাফিক ব্যবহার করেছেন তাদের শরীরে কোন রোদেপোড়া ভাব তৈরি হয়নি। অন্যদিকে যারা নিজেদের ইচ্ছামতো সানস্ক্রিন ব্যবহার করেছেন, তাদের শরীরের কিছু অংশে পোড়াভাব তৈরি হয়েছে।

ফলে বলা যায় সঠিক নিয়মে ও সঠিক ইউভিএ সমৃদ্ধ সানস্ক্রিন ব্যবহারে রোদের ক্ষতিকর প্রভাবের হাত থেকে নিজেকে খুব সহজেই রক্ষা করা সম্ভব এবং একইসাথে রোদের আলো থেকে পর্যাপ্ত ভিটামিন-ডি গ্রহণেও থাকবে না কোন সমস্যা।

আরও পড়ুন: সানস্ক্রিনের সাত-পাঁচ তথ্য

আরও পড়ুন: কফি পানের সঠিক সময় কোনটি?

আপনার মতামত লিখুন :