টিসিবির পণ্য, গোপালগঞ্জে অনেক ক্রেতাই ফিরেছেন খালি হাতে

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, গোপালগঞ্জ
কোটালীপাড়ায় টিসিবির পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে।

কোটালীপাড়ায় টিসিবির পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে।

  • Font increase
  • Font Decrease

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) পণ্য ক্রয়ে ব্যাপক ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। করোনাভাইরাসের ভয়কে উপেক্ষা করে কর্মহীন মানুষ একটু কম দামের জন্য টিসিবির পণ্য ক্রয় করেছেন। তবে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে টিসিবির এই পণ্য ক্রয় করেন ক্রেতারা।

কিন্তু ক্রেতার থেকে পণ্যের পরিমাণ কম থাকায় অনেককে খালি হাতে ফিরে যেতে দেখা গেছে। এ জন্য কোটালীপাড়া উপজেলায় পণ্যের বরাদ্দ বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) উপজেলার ঘাঘর বাজারে টিসিবির পণ্য বিক্রি করতে দেখা গেছে।

জানা গেছে, কোটালীপাড়া উপজেলায় মেসার্স বাদশা এন্টারপ্রাইজ, মেসার্স মায়ের দোয়া এন্টারপ্রাইজ ও মেসার্স নাছরিন ট্রেডার্স নামে ৩টি প্রতিষ্ঠানকে টিসিবির ডিলার হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে শুধুমাত্র মেসার্স বাদশা এন্টারপ্রাইজের মালিক মোস্তফা কামাল টিসিবির পণ্য বিক্রি করেছেন। তবে চাহিদা অনুপাতে পণ্য পাচ্ছেন না বলে দাবি করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘সপ্তাহে ৫ দিন টিসিবির পণ্য বিক্রয়ের নির্দেশনা রয়েছে। এর মধ্যে আমাকে প্রতিদিন ১ হাজার কেজি চিনি, ৩শ কেজি ডাল, ২ হাজার লিটার তেল দেয়া হয়। কিন্তু, এখানে এর ৩ গুণ চাহিদা রয়েছে। প্রতিদিনই এই পণ্য কিনতে এসে অনেক ক্রেতা খালি হাতে ফিরে যাচ্ছেন। তাই পণ্য বাড়িয়ে দেয়ার অনুরোধ করছি আমি।’

কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘এ উপজেলায় বেশি পণ্য পাঠানোর জন্য আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলব। আশাকরি শিগগিরই এ উপজেলায় টিসিবির পণ্যের পরিমাণ বাড়বে।’

আপনার মতামত লিখুন :