করোনা প্রতিরোধে সরকার কী ব্যবস্থা নিয়েছে জানতে চান হাইকোর্ট

  করোনা ভাইরাস

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকার কী ব্যবস্থা নিয়েছেন তা জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

সোমবার (৯ মার্চ)মধ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে এ সংক্রান্ত তথ্য হাইকোর্টে উপস্থাপন করতে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৫ মার্চ) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে তিনটি মৌখিক নির্দেশনা দেয়।

আদালত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে দেওয়া মৌখিক নির্দেশনা তিনটি হলো -

এক. স্থল বন্দর, নৌ বন্দর, বিমানবন্দর, বিশেষ করে বিমান বন্দর দিয়ে যখন বিদেশিরা বাংলাদেশে ঢুকছেন, তখন তাদের কী ধরনের পরীক্ষা করা হচ্ছে। যারা পরীক্ষা করছেন তারা প্রশিক্ষিত কিনা। যে যন্ত্রপাতি দিয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছে সেগুলোর সক্ষমতা কেমন। এসব তথ্য আদালতকে জানাতে হবে।

দুই. সারাদেশে সরকারি হাসপাতালগুলোতে করোনাভাইরাস রোগীদের রাখার জন্য পৃথক কেবিনের ব্যবস্থা করতে হবে। সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি সব বেসরকারি হাসপাতালেও করোনা ভাইরাসের জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা (পৃথক কেবিনসহ চিকিৎসা সরঞ্জাম) নিতে হবে।

তিন. করোনাভাইরাস পরীক্ষা বা শনাক্তের জন্য দেশে পর্যাপ্ত সরঞ্জাম আছে কিনা। যদি না থাকে, জরুরি ভিত্তিতে আমদানি করতে হবে।

এ বিষয়ে কেউ যেন ভীতি সঞ্চার না করে সে বিষয়ে সচেতন থাকতে আদালত জোর তাগিদ দিয়েছে বলেও জানান ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বাশার।

আপনার মতামত লিখুন :

  করোনা ভাইরাস