মেকআপে প্রাইমার ব্যবহার কতটা জরুরি?

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
মেকআপের শুরুতেই প্রাইমার ব্যবহার করতে হয়

মেকআপের শুরুতেই প্রাইমার ব্যবহার করতে হয়

  • Font increase
  • Font Decrease

মেকআপের হরেক পণ্যের মাঝে প্রাইমারের ব্যবহার সম্পর্কে দ্বিধা থাকে সবচেয়ে বেশি।

নিয়মিত মেকআপ করলেও অনেকেই প্রাইমারের ধারেকাছেও ঘেঁষতে চান না। ময়েশ্চারাইজার, ফাউন্ডেশন, সেটিং পাউডারসহ অন্যান্য পণ্য ব্যবহার করার আগে কেন প্রাইমার ব্যবহার করতে হবে, সে বিষয় সম্পর্কে অনেকেই অবগত নন।

চলুন তাহলে এ বিষয়টা নিয়ে একটু আলোচনা করা যাক। প্রাইমারের নামটা খেয়াল করুন, প্রাইম থেকে এসেছে প্রাইমার। মূলত মেকআপের জন্য ত্বককে প্রস্তুত করতে প্রাইমারের ব্যবহার। ত্বককে কোমল করতে, ত্বকের আর্দ্রতাকে ধরে রাখতে ও মেকআপের জন্য ত্বককে প্রস্তুত করতে প্রাইমার ব্যবহৃত হয়। বলা যেতে পারে ত্বকের উপর প্রাইমার অনেকটা ডাবল সাইড টেপের মতো কাজ করে। সেটা কেমন?

আমাদের মুখের ত্বকে পোরস থাকে। কারোর ত্বকের পোরস বড় ও কারোর ত্বকের পোরস ছোট ও অল্প সংখ্যক হয়। প্রাইমার ব্যবহারে ত্বকের উপরিভাগ কোমল হয় এবং ফাউন্ডেশনে পোরসের ভেতরে প্রবেশের বাধাদান করে। ফলে ত্বকের উপর ফাউন্ডেশনের বিন্দু তৈরি করতে পারে না, বিশেষত যে সমস্যাটি মুখের টি-জোনে বেশি দেখা দেয়। ত্বক তৈলাক্ত হোক কি শুষ্ক, প্রাইমার ত্বককে একদম সঠিক মাত্রায় ম্যাট করতে ও একইসাথে ময়েশ্চারাইজ করতে সাহায্য করে।

প্রাইমার

যাদের ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক, ফাউন্ডেশনসহ অন্যান্য মেকআপ ত্বকের উপর আস্তরণ তৈরি করে ‘কেকি’ ভাব তৈরি করে। অর্থাৎ মেকআপ ত্বকে ফেটে যায় ও খসখসে হয়ে ওঠে। প্রাইমার সেটা হতে বাধা দেয় কারণ প্রাইমার ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতাকে ধরে রাখে।

শুধু শুষ্ক ত্বকের জন্যেই নয়, তৈলাক্ত ত্বকের ক্ষেত্রেও সমানভাবে কাজ করে প্রাইমার। তৈলাক্ত ত্বকের ক্ষেত্রে রোমকূপ থেকে বাড়তি তেল বা সিবাম নিঃসৃত হয়ে ত্বককে চটচটে করে ফেলে। প্রাইমার এই বাড়তি তেলকে শোষণ করে ত্বককে স্বাভাবিক রাখে। ফলে টি-জোনসহ পুরো মুখ থাকে রিফ্রেশিং।

প্রাইমারের আরও চমৎকার একটি বিশেষত্ব হলো, ত্বকের দাগ, লালচেভাব, ব্রণের ক্ষতকে সুন্দরভাবে ঢেকে ফেলতে প্রাইমারের ব্যবহার সবচেয়ে ভালো। কনসিলার এক্ষেত্রে একই কাজ করলেও প্রাইমার ত্বকের অসমান ভাব ও রঙকে অনেকখানি ঢেকে ফেলে। প্রাইমারের পর কনসিলারের ব্যবহার সবচেয়ে ভালো ফলাফল আনে।

এমনকি বেশ কিছু বিখ্যাত মেকআপ আর্টিস্টরা এটাও দাবি করে যে, প্রাইমার ব্যবহারের পর মেকআপ করার ফলে মেকআপের স্থায়িত্ব হয় বেশি। তাই মেকআপের সার্বিক সুযোগ সুবিধাকে সম্পূর্ণভাবে পেতে ও ত্বককে সুরক্ষিত রাখতে নজর দিতে হবে প্রাইমারের ব্যবহারের দিকে।

আরও পড়ুন: পারফেক্ট সাজে আকর্ষণীয় আপনি!

আরও পড়ুন: লিকুইড লিপস্টিক ব্যবহারের সঠিক ৫ ধাপ

আপনার মতামত লিখুন :