Alexa

লবণ নয়, খাদ্য তালিকায় থাকুক বিট লবণ

লবণ নয়, খাদ্য তালিকায় থাকুক বিট লবণ

ছবি: সংগৃহীত

সাধারণ লবণ খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ভীষণ ক্ষতিকর, এই তথ্যটা নিশ্চয় অজানা নয়।

তবুও বাড়তি লবণ খাওয়া হয় নানানভাবে। সালাদ, চাটনি কিংবা আচার তৈরিতে, টক জাতীয় কোন ফলের সঙ্গে অথবা কোন শরবত তৈরিতে প্রয়োজন হয় লবণ। স্বল্প পরিমাণ লবণ খাওয়া হলেও, নিয়মিত সাদা লবণ খাওয়ার ফলে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে শরীরের ওপর।

প্রতিদিনের খাদ্য তালিকা থেকে ক্ষতিকর সাদা লবণ বাদ দিয়ে, খেতে হবে বিট লবণ। যাকে বলা হয়ে থাকে ‘রক সল্ট’ কিংবা ব্ল্যাক সল্ট’। যেখানে সাদা লবণে রয়েছে নানান ধরণের নেতিবাচক প্রভাব, সেখানে বিট লবণের রয়েছে নানান ধরণের স্বাস্থ্য উপকারিতা।

আয়ুর্বেদিক ওষুধে ব্যবহৃত হওয়া এই বিট লবণে আছে মিনারেল, কপার, আয়রন, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়ামসহ আরও নানান ধরণের পুষ্টি উপাদান। প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় বিট লবণ রাখার কিছু উপকারিতা তুলে ধরা হলো।

পেটের সমস্যা দূর করে

খাদ্য পরিপাকজনিত সমস্যা, পেটে গ্যাস হওয়া, বুক জ্বালাপোড়া করা এমনকি কোষ্ঠ্যকাঠিন্যের সমস্যা কমাতেও সাহায্য করে বিট লবণ।

ক্ষুধাভাব কমায়

ওজন কমানোর চেষ্টায় থাকলে বিট লবণ ভালো একটি সহায়ক হতে পারে। ঘনঘন ক্ষুধাভাব কমানোর জন্য বিট লবণ উপকারি।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Oct/15/1539601074740.jpg

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে

সাদা লবণ যেখানে রক্তচাপ বৃদ্ধির জন্য দায়ী, সেখানে বিট লবণ উচ্চরক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে আনতে কাজ করে। এমনকি রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্যে সাদা লবণের পরিবর্তে বিট লবণ খাওয়ার পরামর্শ দেন ডাক্তাররা।

ঘুমের সমস্যা কমায়

রাতে ভালো ঘুম না হলে অথবা ইনসমনিয়ার সমস্যা থাকলে নিয়মিত বিট লবণ খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। ঘুমের সমস্যা মূলত দেখা দেয় শরীরে মেলাটোনিনের মাত্রার তারতম্য দেখা দিলা। বিট লবণ এই মেলাটোনিনের মাত্রাকে স্থিতিশীল করতে সাহায্য করে।

ঠাণ্ডার সমস্যায় উপকারি

সাইনাসের সমস্যা, শুকনা কাশি, গলাব্যথ্যা কিংবা ঠাণ্ডা সর্দির সমস্যায় গরম পানির সঙ্গে বিট লবণ মিশিয়ে গার্গল করলে উপকার পাওয়া যাবে।

ক্লান্তি দূর করে

কর্মব্যস্ত সারাদিনের ক্লান্তি দূর করতে এক গ্লাস পানি বিট লবণ ও এক টুকরো লেবু মিশিয়ে পান করুন। দেখবেন মুহূর্তেই চাঙ্গা বোধ করছেন।

ত্বকের সুরক্ষায় বিট লবণ

স্বাস্থ্য উপকারিতার কথা তো জানানো হলো, এবার জানুন বিট লবণ ব্যবহারে ত্বকের উপকারিতা। এই লবণ ত্বকের উপরিভাগের ময়লা ও মরা চামড়া দূর করতে প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবে কাজ করে। এছাড়া, বন্ধ রোমকূপ খুলে ভেতরের ময়লা দূর করে ত্বকে প্রাকৃতিক উজ্জ্বলতা এনে দিতেও দারুণ কার্যকর বিট লবণ।

আপনার মতামত লিখুন :