Barta24

শনিবার, ১৭ আগস্ট ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬

English

ফেলনা টয়লেট পেপার রোলে তৈরি আকর্ষণীয় জিনিস

ফেলনা টয়লেট পেপার রোলে তৈরি আকর্ষণীয় জিনিস
ছবি: সংগৃহীত
ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
লাইফস্টাইল


  • Font increase
  • Font Decrease

প্রতিটি ঘরেই পাওয়া যাবে টয়লেট পেপার।

নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় এই অনুষঙ্গটি শেষ হয়ে গেলে, অবশিষ্ট থাকে টয়লেট পেপার রোল। যা অতি অবশ্যই ফেলে দেওয়া হয়।

অথচ একেবারেই ফেলনা এই একটি জিনিসটি থেকেই তৈরি করা যায় প্রয়োজনীয় ও আকর্ষণীয় দারুণ বিভিন্ন ধরনের জিনিস।

বিভিন্ন ধরনের কর্ড অর্গানাইজ করা

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553233179164.jpg

প্রতিটি ইলেকট্রনিক জিনিসের সঙ্গে থাকে বিভিন্ন ধরণের প্রয়োজনীয় কর্ড। প্রতিটি জিনিসের জন্য আলাদা কর্ডগুলো গুছিয়ে ঠিকভাবে রাখা বেশ ঝামেলাপূর্ণ। সেক্ষেত্রে টয়লেট পেপার রোলের উপর রঙিন কাগজ বসিয়ে নাম লিখে তার ভেতরে গুছিয়ে রাখা যাবে কর্ডগুলো। এতে করে কর্ড জট বাঁধবে না এবং প্রয়োজনের সময় সহজেই খুঁজে পাওয়া যাবে কাঙ্ক্ষিত কর্ডটি।

উল গুছিয়ে রাখা

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553233196883.jpg

অনেকেই শখের বশে উলের নানান ধরণের পণ্য তৈরি করেন। কাজের মাঝে বেখেয়ালে উলের বল সহজেই এলোমেলো হয়ে যায়। সেক্ষেত্রে টয়লেট পেপার রোলগুলো চমৎকার কাজে আসবে। ছবির মতোই খুব সহজে উল একসাথে গুছিয়ে রাখা যাবে।

ডেস্ক অর্গানাইজার

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553233228849.jpg

নিজের পড়ার টেবিল কিংবা অফিসের ডেস্কের নানানবিধ স্টেশনারি পণ্য গুছিয়ে রাখার জন্য নিজ হাতে তৈরি করে নিতে পারবেন ডেস্ক অর্গানাইজার। একেবারেই স্বল্প সময়, পরিশ্রম ও খরচে এই জিনিসটি তৈরি করে নেওয়া যাবে টয়লেট পেপার রোল দিয়ে। রঙিন কাগজ, আঠা ও রঙের প্রলেপেই চমৎকার ও পছন্দসই ডেস্ক অর্গানাইজার তৈরি করে হয়ে যাবে।

স্কার্ফ গুছিয়ে রাখা

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553233243487.jpg

যারা প্রতিদিন স্কার্ফ ব্যবহার করেন, তাদের সংগ্রহে একসাথে অনেক স্কার্ফ থাকবে, এটাই স্বাভাবিক। অনেকগুলো স্কার্ফ থাকার ফলে অগোছালো হয়ে যায় এবং কাঙ্ক্ষিত স্কার্ফটি সহজে খুঁজে পাওয়া যায় না। সেক্ষেত্রে টয়লেট পেপার রোলের মাঝে স্কার্ফটি গুটিয়ে রেখে দিলে সহজেই গোছানো থাকবে এবং খুঁজে পাওয়া যাবে।

র‍্যাপিং পেপার সংরক্ষণ করা

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553233256067.jpg

যাদের অনলাইনে ব্যবসা আছে, তাদের বিভিন্ন পণ্য প্যাকেট করার জন্য র‍্যাপিং পেপারের প্রয়োজন হয়। র‍্যাপিং পেপার সংরক্ষণ বেশ ঝামেলাপূর্ণ বিষয়। পেপারে ভাঁজ পড়ে গেলেই তার সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়। এক্ষেত্রেও টয়লেট পেপার রোল ব্যবহার করা যাবে এবং এতে করে র‍্যাপিং পেপার সুন্দরভাবে রাখাও যাবে।

বীজতলার বিকল্প হিসেবে টয়লেট পেপার রোল

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553233282972.jpg

গাছের বীজতলার বিকল্প পদ্ধতি হিসেবে টয়লেট পেপার রোল সবচেয়ে উৎকৃষ্ট একটি উপাদান। কাগজের এই রোলগুলোর ভেতরে পরিমাণমতো মাটিতে বীজ বুনে বীজ থেকে চারা গজানোর জন্য রেখে দেওয়া যাবে সহজেই।

ফ্যাশনেবল রিস্টব্যান্ড

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553233301846.jpg

ছোট সোনামণিদের জন্য খেলনা ও মজাদার রিস্টব্যান্ড বানাতে চাইলে এই রোলগুলো খুব ভালো কাজ করবে। মাপমতো কেটে রঙিন কাগজ ও টেপ দিয়ে ডেকোরেট করে বিভিন্ন ধরণের ব্যান্ড বানিয়ে নেওয়া যাবে।

টয়লেট এয়ার ফ্রেশনার

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Mar/22/1553233317161.jpg

টয়লেটকে একদম ফ্রেশ ও সুবাসিত রাখার জন্য ফেলনা এই জিনিসটিই সবচেয়ে দারুণ কাজ করবে। কীভাবে? প্রথমেই টয়লেট পেপারকে রঙিন কাগজে মুড়ে ডেকোরেট করে নিন। রোলের একটি মাথা কাগজ দিয়ে ঢেকে অন্য মাথা খোলা রাখুন। পরিমাণমতো তুলাতে পছন্দসই এসেনশিয়াল অয়েলের কয়েক ফোঁটা দিয়ে রোলে ঢুকিয়ে দিন। এই রোলটি টয়লেটের এক কোনায় শুষ্ক স্থানে রেখে দিন। টয়লেট সুবাসিত থাকবে।

আরও পড়ুন: অ্যালুমিনিয়াম ফয়েলের অজানা ৬ ব্যবহার

আরও পড়ুন: পপসকেটের অপ্রচলিত ব্যবহার

আপনার মতামত লিখুন :

কতখানি নিকোটিন থাকে একটি সিগারেটে?

কতখানি নিকোটিন থাকে একটি সিগারেটে?
ছবি: সংগৃহীত

প্রশ্নাতীতভাবে ধূমপান সবচেয়ে বাজে ও ক্ষতিকর একটি অভ্যাস।

এ বদভ্যাসের দরুন নিজের স্বাস্থ্য তো বটেই, পাশাপাশি অন্যের স্বাস্থ্যও ঝুঁকির মাঝে পড়ে যায়। ধূমপানের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে অবগত হওয়ার পরেও বেশিরভাগ ধূমপায়ী এই অভ্যাসটি বাদ দিতে চান না। তবে এর বিপরীত চিত্রও রয়েছে। অনেকেই চেষ্টা করেন স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ এই অভ্যাসটিকে পাশ কাটিয়ে উঠতে। তবে ধূমপায়ী, অধূমপায়ী ও ধূমপান ত্যাগ করার চেষ্টা করছেন যারা, প্রত্যেকেই একটি বিষয় সম্পর্কে জানার আগ্রহ প্রকাশ করেন- একটি সিগারেটে কতখানি নিকোটিন থাকে! চলুন এই বিষয়টি জানানো যাক।

প্রতিটি সিগারেটে থাকে ৭০০০ ভিন্ন ভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল। যার মাঝে সবচেয়ে ক্ষতিকর হলো নিকোটিন (Nicotine). হাজারো ধরনের কেমিক্যালের ভেতর এই নিকোটিন তৈরি হয় তামাক পাতা থেকে। তামাক পাতা থেকে তৈরি হওয়া এই উদ্ভিজ কেমিক্যাল নিকোটিনেই ধূমপায়ীদের আসক্তি তৈরি হয়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/17/1566042274926.jpg

মেডিকেশন অ্যাডভোকেট জেসন রিড জানান, প্রতিটি সিগারেটে গড়ে এক মিলিগ্রাম পরিমাণ নিকোটিন থাকে। এছাড়া এক গবেষণা থেকে দেখা গেছে সিগারেটের ধরনের উপর নির্ভর করে এক একটি সিগারেটে ১.২-১.৪ মিলিগ্রাম পরিমাণ নিকোটিন থাকে। স্বল্প নিকোটিনযুক্ত ‘সিগারেট লাইট’ এ ০.৬-১ মিলিগ্রাম পরিমাণ নিকোটিন থাকে। তবে সাধারণ সিগারেটের মতো সিগারেট লাইটেও একই ধরনের সিগারেট বুস্ট তথা সিগারেটের প্রভাব থাকে।

এছাড়া নিকোটিন গ্রহণের মাত্রা ধূমপায়ীর উপর নির্ভর করে। সিগারেটে কত জোরে টান দিচ্ছে এবং সিগারেট পাফের কতটা নিকটবর্তী স্থান পর্যন্ত সিগারেট পান করছে- এই দুইটি বিষয়ের উপর নির্ভর করেও নিকোটিন গ্রহণের মাত্রায় তারতম্য দেখা দেয়।

আরও পড়ুন: ধূমপানে অন্ধত্ব!

আরও পড়ুন: প্যাসিভ স্মোকিংয়ে ক্যানসার ঝুঁকিতে আমরা সবাই!

ছারপোকা দূর করবে এই জিনিসগুলো

ছারপোকা দূর করবে এই জিনিসগুলো
টি ট্রি অয়েল, লবণ ও ল্যাভেন্ডার পাতা ছারপোকা দূর করতে কার্যকরি উপাদান

ছারপোকা দেখা দেওয়ার সমস্যাটি একইসাথে খুব বিরক্তিকর ও সাধারণ।

যারপরনাই এ সমস্যায় ভোগান্তি পোহাতে হয় ছারপোকাযুক্ত আসবাব, বিছানা, সোফা প্রভৃতি ব্যবহারকারীকে। রাতের দিকে সাধারণত এদের উপদ্রব বেশি দেখা যায়।

মূলত স্যাঁতস্যাঁতে ও পর্যাপ্ত আলো-বাতাসহীন স্থানে ছারপোকা বেশি হয়। সেক্ষেত্রে বিছানা, বালিশ, কুশন, তোশকের মতো নরম স্থানে ছারপোকা হলে রোদের আলোতে কয়েকদিন এই জিনিসগুলো রাখা হলে ও পোকামাকড় দূর করার স্প্রে ব্যবহার করা হলে ছারপোকা বেশিরভাগ সময় দূর হয়ে যায়।

তবে ঢাকা শহরে বহু স্থানের বাড়িতেই রোদের আলো প্রবেশ করতে পারে না। এছাড়া অন্যান্য আসবাবে ছারপোকার প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে রোদের আলোতে দেওয়া কষ্টকর। সেক্ষেত্রে কিছু উপাদানের ব্যবহারে আসবাবসহ অন্যান্য জিনিসপত্র থেকে সহজেই ছারপোকা দূর করা যাবে।

টি ট্রি অয়েল

টি ট্রি অয়েলের গন্ধ ছারপোকা সহ্য করতে পারে না। ফলে উপকারী এই এসেনসিয়াল অয়েলের ব্যবহারে ছারপোকা দূর করা যাবে ঝামেলাহীনভাবে। ২০০ মিলিলিটার পানিতে ২০ ফোঁটা টি ট্রি অয়েল মিশিয়ে ছারপোকাযুক্ত আসবাবে স্প্রে করে কিছুক্ষণ রেখে দিতে হবে। এতে করে ছারপোকা দূর হবে এবং পুনরায় ছারপোকা যেন ফিরে না আসে, সেজন্য আসবাবে ১০ দিন পরপর টি ট্রি অয়েলযুক্ত পানি স্প্রে করতে হবে।

বেকিং সোডা

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/17/1566034457047.jpg

প্রতি রান্নাঘরেই এই উপাদানটি পাওয়া যাবে। শুধু রান্নার কাজে নয়, ছারপোকা দমনেও দারুণ কার্যকরি এই উপাদানটি। ছারপোকা আক্রান্ত আসবাবের উপর বেকিং সোডা ছিটিয়ে একদিনের জন্য রেখে দিতে হবে এবং একদিন পর পুনরায় বেকিং সোডা ছিটাতে হবে। এতে করে ছারপোকা মরে যাবে।

সাদা ভিনেগার

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/17/1566034474797.JPG

ভিনেগারের তীব্র গন্ধ ছারপোকার যন্ত্রণা দূর করতে খুবই ভালো কাজ করে। বিশেষত আসবাবপত্রে ছারপোকা দেখা দিলে, সেক্ষেত্রে সাদা ভিনেগারের ব্যবহার সবচেয়ে উপকার দেবে। সমপরিমাণ পানি ও সাদা ভিনেগার মিশিয়ে পরপর কয়েকদিন ছারপোকাযুক্ত আসবাব মুছলে ছারপোকা চলে যাবে। ছারপোকা দূর হয়ে যাওয়ার পর প্রতি সপ্তাহে একবার ভিনেগার মিশ্রিত পানিতে আসবাব মুছে নিতে হবে।

লবণ

সাধারন লবণ খুব ভালো ছারপোকা রিপ্যালেন্ট হিসেবে কাজ করে। বিছানা, বালিশের মতো জিনিসে ছারপোকার প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে লবণ মিশ্রিত পানি স্প্রে করে শুকাতে হবে। এতে করে ছারপোকা দূর হয়ে যাবে।

ল্যাভেন্ডার পাতা

ল্যাভেন্ডারের মতো উপকারী পাতার গন্ধে ছারপোকা খুব দ্রুতই পালায়। জামাকাপড়ে বা বালিশ ও কুশন কভারে ছারপোকার আনাগোনা দেখা দিলে ল্যাভেন্ডার পাতা রেখে দিতে হবে। ব্যস ছারপোকার জন্য আর দুশ্চিন্তা করতে হবে না।

আরও পড়ুন: কর্নস্টার্চ ও কর্নফ্লাওয়ারের মাঝে পার্থক্য কী?

আরও পড়ুন: সঠিক পরিচর্যায় সতেজ ক্যাকটাস

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র