যেভাবে নতুনের মতো থাকবে কাঠের চামচ

ফাওজিয়া ফারহাত অনীকা, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইফস্টাইল
কাঠের চামচ, ছবি: সংগৃহীত

কাঠের চামচ, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

রান্নাবান্না কিংবা খাবার পরিবেশনের জন্য অ্যালুমিনিয়ামের লম্বা হাতলওয়ালা চামচের পাশাপাশি ইদানিং কাঠের চামচ ব্যবহারের প্রচলনও বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিশেষ করে নন-স্টিকি ফ্রাই প্যানে খাবার রান্না করার জন্যে কাঠের চামচই ভরসা।

শুধু তাই নয়, সুস্বাস্থ্যের প্রতি যারা বাড়তি খেয়াল রাখেন এবং সচেতন জীবনযাপন করেন তারাও অন্যান্য ধাতুতে তৈরি চামচের বদলে কাঠের চামচ ব্যবহার করতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন। কারণ আগুনের বাড়তি তাপে হরেক ধাতুর তৈরি চামচ থেকে স্বল্পমাত্রায় কেমিক্যাল ও ধাতুর অংশবিশেষ নিঃসৃত হয়ে খাবারের সাথে মিশে যায়। সেক্ষেত্রে কাছের চামচ ব্যবহার সম্পূর্ণ নিরাপদ ও স্বাস্থ্যবান্ধব।

এ সকল কারণে বিভিন্ন গঠনের ও ব্যবহারের কাঠের চামচের ব্যবহার বৃদ্ধি পাচ্ছে ক্রমাগত। তবে কাঠের চামচ পরিষ্কার করার বিষয়টি বেশ খানিকটা কৌশলের। কাঠের চামচ সঠিক উপায়ে পরিষ্কার না করা হলে তাতে খুব সহজেই খাদ্যাংশ রয়ে যায়, যা থেকে জন্মাতে পারে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া। এছাড়া নিয়মিত সঠিক উপায়ে কাঠের পরিষ্কার করা না হলে খুব দ্রুতই নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। দেখা যায় ব্যবহারের কিছুদিনের মাঝে নতুন ও প্রিয় কাঠের চামচটি পুরনো হয়ে গেছে। সেক্ষেত্রে নিত্যদিনের ব্যবহৃত কাঠের চামচটি নতুনের মতো রাখতে ও ভালোভাবে পরিষ্কার করার সঠিক উপায় জেনে রাখা জরুরী।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/25/1564044984288.jpg

হাতের সাহায্যে পরিষ্কার করা

রান্না শেষে কুসুম গরম পানি ও লিকুইড ডিশ ওয়াশারের সাহয্যে হাত দিয়ে চামচ ধুয়ে নিতে হবে। রান্না শেষে খুব বেশ সময় অপেক্ষা না করাই ভালো। নতুবা কাঠে সহজেই হলুদ, মরিচসহ অন্যান্য মশলার দাগ ও গন্ধ বসে যাবে। চামচ হাতের সাহায্যে ভালোভাবে কচলিয়ে ধোয়া শেষে বাড়তি পানি ঝরিয়ে শুষ্ক স্থানে রাখতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে, পানিযুক্ত স্থানে যেন চামচ না থাকে। নয়তো কাঠের চামচ পানি শোষণ করে ফুলেফেঁপে উঠবে এবং ফেটে যাবে।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/25/1564045001334.jpg

ঘষে দাগ ও গন্ধ দূর করা

প্রায় সময় সাধারণ ডিশ ওয়াশার চামচের দাগ ও গন্ধ দূর করতে পারে না। সেক্ষেত্রে ব্যবহার করতে হবে বাড়তি দুইটি জিনিস- লবণ ও লেবুর খোসা। প্রথমে সাবান পানিতে চামচ ধুয়ে ভেজা চামচে লবণ মাখিয়ে লেবুর খোসার সাহায্যে চামচ ভালোমতো ঘষতে হবে। মিনিট দুয়েক ঘষে এরপর কলের পানিতে চামচ ধুয়ে নিলেই দাগ ও গন্ধ দূর হয়ে যাবে।

এই নিয়মেই সাধারণত বেশিরভাগ ক্ষেত্রে চামচের দাগ ও গন্ধ উভয়ই চলে যায়। তবে মাছ বা আঁশটে গন্ধযুক্ত খাবারের ক্ষেত্রে অনেক সময় এতে কাজ হয় না। সেক্ষেত্রে বেকিং সোডা ও পানির পেস্ট তৈরি করে চামচে ঘষতে হবে। এতে করে চামচের গন্ধ দূর হবে।

আরও পড়ুন: ঘরে তৈরি সারে সতেজ গাছ

আরও পড়ুন: বেকিং সোডার চমৎকার ছয় ব্যবহার

আপনার মতামত লিখুন :