বাজেটকে মনগড়া ও অবাস্তব বলে মনে করছে জাপা

  বাজেট অর্থবছর ২০২১-২২



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
জিএম কাদের

জিএম কাদের

  • Font increase
  • Font Decrease

২০২১-২২ সালের প্রস্তাবিত বাজেট কল্পনাপ্রসূত, মনগড়া এবং অবাস্তব, আন্দাজে করা এই বাজেট বাস্তবায়নযোগ্য নয়। বাজেটে বিশাল ঘাটতি রয়েছে, তা পূরণ করতে যে ব্যবস্থার কথা বলা হয়েছে তা বাস্তবসম্মত নয় বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জিএম কাদের।

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) বাজেট অধিবেশন থেকে বের হয়ে জাতীয় সংসদের টানেলে গণমাধ্যম কর্মীদের সামনে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে এমন মন্তব্য করেন।

বাজেট ব্যপকভাবে সংশোধন বা রদবদল করার দাবি জানিয়ে বলেন, স্বাস্থ্যখাতে নামমাত্র বরাদ্দ বাড়ানো হয়েছে, সামাজিক বেষ্টনীখাতে যা দেয়া হয়েছে তা বাজেটের তুলনায় অত্যান্ত কম, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা খাতে অনেক কম বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ধারণার বশবর্তী হয়ে অর্থমন্ত্রী বাজেট তৈরী করেছেন। এই বাজেট এতটাই পরিবর্তন করতে হবে যে, তাতে প্রণীত বাজেটের প্রকৃত রুপ থাকবে না।

তিনি বলেন, বাজেটে খরচ বাড়িয়েছেন, বাড়ানো দরকারও আছে কিন্তু অর্থ আহরণের বিষয়ে তারা হোঁচট খেয়েছেন। গেলো বাজেটের লক্ষ্য অনুযায়ী ৬০ ভাগও রাজস্ব আদায় করতে পারেনি দশ মাসে। সামনের দুই মাসে কতটা আদায় করতে পারবেন তাও জানেন না। যেটা প্রাক্কলন করেছেন তাতে যথেষ্ট পরিমাণে ঘাটতি রয়েছে। জিডিপির ৬ দশমিক ২ ভাগ ঘাটতির বাজেট এর আগে আর হয়নি। ঘাটতির এই বাজেটে যত সুন্দর ভাবে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে এবং বলা হয়েছে তা ডিটেইলে দেখা গেছে অনেক কিছুই ফাঁক আছে।

তিনি বলেন, যারা করোনাকালে কর্মহীন হয়েছে এবং দারিদ্রসীমার নিচে চলে গেছেন তাদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি বা তাদের জন্য আর্থিক সহায়তার সুস্পষ্ট দিক নির্দেশনা নেই এই বাজেটে। স্বাস্থ্য খাতের জন্য সাধারণ মানুষের বিপুল আকাঙ্খা ছিলো, এবার স্বাস্থ্যখাতে বড় ধরনের একটা বরাদ্দ হবে এমন আশা ছিলো সাধারণ মানুষের। কিন্তু বাজেটে অত্যান্ত সামান্য বৃদ্ধি দেখানো হয়েছে। এটা সাধারণভাবে বলা যায় রুটিনবৃদ্ধি, কোন ক্রাইসিসের জন্য এই বৃদ্ধি সামান্য এবং অপ্রতুল।

বাজেটের ঘাটতি পূরণে বিদেশী ঋণ, স্বল্পসূদে ঋণ এবং বিভিন্ন খাত থেকে অর্থ প্রাপ্তির যে কথা বলা হয়েছে তা সম্পূর্ণ অনিশ্চিত। আগামীদিনের অর্থনৈতিক যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে তাতে এটা আদৌ অর্জন করা সম্ভব হবে কিনা তা বলা যাচ্ছেনা। তাই রাজস্ব প্রাপ্তিতে যেমন বিশাল সমস্যা হতে পারে, তেমনিভাবে বাজেট অনুযায়ী অর্থায়নেও সমস্যা হতে পারে। তাছাড়া যেসকল বিষয়ে অগ্রাধিকার দিতে হবে তা মুখে বলেছেন কিন্তু কাগজে মোটেই নেই বলে মন্তব্য করেছেন।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কো- চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশীদ, মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় চীফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও অতিরিক্ত মহাসচিব (ঢাকা বিভাগ) লিয়াকত হোসেন খোকা, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ এমপি, পনির উদ্দিন আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান পীর ফজলুর রহমান মিজবাহ।

  বাজেট অর্থবছর ২০২১-২২

বিকাশ বিশ্বকাপ কুইজে প্রতিদিন ২০০০ জন পাচ্ছেন ৫০ টাকা করে



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বিকাশ বিশ্বকাপ কুইজে প্রতিদিন ২০০০ জন পাচ্ছেন ৫০ টাকা করে

বিকাশ বিশ্বকাপ কুইজে প্রতিদিন ২০০০ জন পাচ্ছেন ৫০ টাকা করে

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বকাপজুড়ে ফুটবল প্রেমীদের জন্য বিকাশের কুইজ আয়োজন এরই মধ্যে যথেষ্ট সাড়া ফেলেছে। এই কুইজে অংশ নিয়ে ফুটবল সম্পর্কিত সহজ ৩টি প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিয়ে এবং অ্যাপ থেকে একটি নির্দিষ্ট লেনদেন করে প্রতিদিন ২০০০ জন পাচ্ছেন ৫০ টাকা পুরস্কার। ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই কুইজে অংশ নিতে পারবেন গ্রাহকরা।

কুইজে অংশগ্রহণ করতে গ্রাহককে বিকাশ অ্যাপের ‘সাজেশন’ অংশে অথবা হোমস্ক্রিনের নিচের দিকে ‘বিকাশ কুইজ’ আইকনে ট্যাপ করতে হবে। গ্রাহক চাইলে https://quiz.bkash.com/ - এই লিংকে ভিজিট করেও কুইজ খেলতে পারেন। শুরুতেই গ্রাহকের বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর দিয়ে কুইজে প্রবেশ করতে হবে। কুইজ প্ল্যাটফর্মে ‘কুইজের নিয়মাবলি’ আইকনে ট্যাপ করে শর্তাবলী দেখে নিতে পারেন গ্রাহক।

৫০ টাকা পুরস্কার পেতে গ্রাহককে দ্রুততম সময়ে সবগুলো প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিতে হবে এবং ক্যাম্পেইন চলাকালীন যেকোনো সময় বিকাশ অ্যাপ থেকে মোবাইল রিচার্জ, ক্যাশ আউট, সেন্ড মানি, পেমেন্ট, পে বিল এবং কার্ড টু বিকাশ– এই সেবাগুলোর যেকোনো একটিতে লেনদেন করতে হবে।

বিকাশ গ্রাহকরা যতবার খুশি কুইজ খেলতে পারবেন। তবে কুইজ চলাকালীন একজন গ্রাহক একবারই পুরস্কার জিততে পারবেন।

প্রতিদিনের বিজয়ীদের তালিকা পরবর্তী কার্যদিবসে দুপুর ২টা থেকে বিকাশ কুইজ প্লাটফর্মের ‘দৈনিক বিজয়ীদের তালিকা’ অংশে দেখা যাবে। পুরস্কারের টাকা ২ কার্যদিবসের মধ্যে বিজয়ীদের বিকাশ অ্যাকাউন্টে পৌঁছে যাবে।

  বাজেট অর্থবছর ২০২১-২২

;

ডিজিটাল সিস্টেম বিলাসিতার বিষয় নয়: বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এমপি

বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এমপি

  • Font increase
  • Font Decrease

ডিজিটাল পদ্ধতি কোন বিলাসিতার বিষয় নয়, জরুরি। এতে বিদ্যুৎ খাতের লোকসান কমে আসবে, সেবার মান বাড়বে বলে মন্তব্য করেছেন বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ এমপি।

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর ) রাজধানীর একটি হোটেলে নেসকো আয়োজিত স্মার্ট বিতরণ সিস্টেম সংক্রান্ত এক সেমিনারে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বিদ্যুৎ খাতের প্রধান চ্যালেঞ্জ হচ্ছে বিশাল এলাকা, ভিন্ন ভিন্ন বিতরণ ব্যবস্থা। অনেক কর্মী রয়েছেন যারা ডিজিটালে অভ্যস্ত নয়। নেসকোকে ধন্যবাদ তারা কাজটি শুরু করছেন। আমার বিশ্বাস অন্যান্য বিতরণ কোম্পানি তাদেরকে অনুসরণ করতে পারে। প্রত্যেকদিন আমরা কাজ করছি, কাজ করে যেতে হবে।

একটি সিস্টেম চালু করলাম আর ডিজিটালাইজড হয়ে গেল বিষয়টি এমন না, ধারাবাহিকভাবে কাজ করে যেতে হবে বলে মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ২০ বছর আগে বিদ্যুতে সিস্টেম লস ছিল ৪২ শতাংশ, এখন ৭ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। আমি মনে করি আরও ২ শতাংশ কমে আসবে জিআইএস এর মাধ্যমে। আমরা উদ্ভাবনী ভাবনাকে স্বাগত জানাই। সৌর বিদ্যুতের বিষয়ে আরও বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব হাবিবুর রহমান। তিনি বলেন, আমরা শতভাগ বিদ্যুতের কাজ শেষ করেছি।এখন মানসম্মত বিদ্যুতের লক্ষে কাজ করে যাচ্ছি। দিনদিন উন্নত হচ্ছে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা। আমরা স্মার্ট গ্রিডের দিকে যাচ্ছি এতে উন্নত গ্রাহকসেবা নিশ্চিত হবে।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন নেসকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকিউল ইসলাম, স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা এবং সেবার মান উন্নত হবে জিআইএস সিস্টেমের মাধ্যমে। কোথাও ত্রুটি দেখা দিলে এই সিস্টেম স্বয়ংক্রিয়ভাবে কন্ট্রোল রুম ও মেরামতকারি মোবাইল টিমকে বার্তা পৌঁছে দেবে। কোন গ্রাহক বিদ্যুৎ বিভ্রাটের শিকার হলে অফিসে বসেই জানা যাবে। এতে করে স্বল্প সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করা সম্ভব হবে।

বিদ্যুৎ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নুরুল আলম, এনআরইসিএ ইন্টারন্যাশনাল এর সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ড. ডানিয়েল বি ওয়াডেল বক্তব্য রাখেন।

  বাজেট অর্থবছর ২০২১-২২

;

অভিবাসন প্রত্যাশীদের সাথে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের মতবিনিময় সভা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
অভিবাসন প্রত্যাশীদের সাথে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের মতবিনিময় সভা

অভিবাসন প্রত্যাশীদের সাথে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের মতবিনিময় সভা

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রবাসী গ্রাহক সেবা পক্ষ উপলক্ষ্যে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের শরিয়তপুর  শাখার উদ্যোগে  শরিয়তপুরের অভিবাসন প্রত্যাশীদের সাথে এক মতবিনিময় সভা শরীয়তপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী জাফর আলম।

প্রধান আলোচক ছিলেন ব্যাংকের চীফ রেমিট্যান্স কর্মকর্তা মোঃ মোশাররফ হোসাইন এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র এ্যাড. পারভেজ রহমান জন ও শরীয়তপুর কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ স.ম. জাহাঙ্গীর আখতার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্যাংকের খুলনা অঞ্চলের আঞ্চলিক প্রধান মোঃ মহিবুল কাদির।

এ সময় ব্যাংকের শরীয়তপুর শাখার ব্যবস্থাপক সরদার তরিকুল ইসলাম সহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ এবং মধ্যপ্রাচ্য, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর সহ ইউরোপে অভিবাসন প্রত্যাশী ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাফর আলম বিদেশ গমনেচ্ছুকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা অবশ্যই বিদেশে যাবার আগে ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খুলবেন এবং ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে রেমিট্যান্স পাঠাবেন।

 

  বাজেট অর্থবছর ২০২১-২২

;

ব্যবসায়িক-সহযোগীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো নগদ ‘সিনে নাইট’



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ব্যবসায়িক সহযোগী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও কর্মীদের নিয়ে ‘সিনে নাইট’ উপভোগ করেছে বাংলাদেশ ডাক বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস নগদ। ঢাকার একটি সিনেপ্লেক্সে রায়হান রাফি পরিচালিত মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক খেলাধুলাবিষয়ক চলচ্চিত্র ‘দামাল’ উপভোগ করেন সবাই।

এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন ‘দামাল’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করা বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া। এ ছাড়া নগদ-এর চিফ বিজনেস অফিসার শেখ আমিনুর রহমান এবং চিফ সেলস অফিসার শিহাবউদ্দিন চৌধুরী, হেড অব পেমেন্ট মাহবুব সোবহানসহ নগদ-এর অন্যান্য কর্মকর্তারা এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস হিসেবে শুরু থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করে আসছে নগদ। তাদের সাথে প্রতিষ্ঠানটির যে দীর্ঘ সম্পর্ক তৈরি হয়েছে, সেটাকেই উদযাপন করতে আয়োজন করা হয়েছিল ব্যতিক্রমী এই সিনে নাইটের।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়া সকল প্রতিষ্ঠানের সাফল্যও কামনা করেন। নগদ-কে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে নগদ-এর চিফ বিজনেস অফিসার শেখ আমিনুর রহমান বলেন, ‘আমি ভবিষ্যত নিয়ে কথা বলতে চাই। আরও অনেক নতুন প্রযুক্তি, নতুন প্রোডাক্ট ও ইউনিক কিছু প্রোডাক্ট আনা হচ্ছে। এসব প্রোডাক্ট আপনাদের ব্যবসাকে সহজ করবে ও ব্যবসাকে আরো বড় করবে। আমরা আশা করি, আপনারা যেভাবে আমাদের পাশে ছিলেন, সেভাবেই থাকবেন।’

চলচ্চিত্র শুরুর আগে অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত একটি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন অনুষ্ঠান করা হয়। সেখানে নগদ-এর চিফ সেলস অফিসার শিহাবউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘নগদ আজ এখানে এসেছে মূলত আপনাদেরই চেষ্টায় এবং সহযোগিতায়। আমরা চলার পথে আপনাদের আমাদের সহযোদ্ধা বলে মনে করি। নগদ বিশ্বাস করে, আপনাদের ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি হলেই আমাদের প্রবৃদ্ধি হবে। তাই আমরা আপনাদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমরা একসাথে সুন্দর একটা সময় কাটানোর জন্য এই আয়োজন করেছি।’

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভুঁইয়াকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন নগদ-এর চিফ বিজনেস অফিসার শেখ আমিনুর রহমান, চিফ সেলস অফিসার শিহাবউদ্দিন চৌধুরী, হেড অব পেমেন্ট মাহবুব সোবহান এবং হেড অব কর্পোরেট হেদায়েতুল বাশার।

  বাজেট অর্থবছর ২০২১-২২

;