করোনায় এয়ারলাইন্সগুলোর আয় কমতে পারে ২৯ বিলিয়ন!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

চীনে উৎপত্তি হওয়া নতুন করোনাভাইরাসের (কভিড- ১৯) প্রাদুর্ভাবের কারণে চলতি বছরে বিশ্বব্যাপী এয়ারলাইন্সগুলোর আয় কমবে ২৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহন সংস্থা (আইটিএ) এ তথ্য জানিয়েছে।

আইটিএ জানায়, করোনার ফলে বিশ্বব্যাপী এয়ারলাইন্সগুলোর আয় কমতে পারে ২৯ বিলিয়ন ডলার। এর মধ্যে চীনের এয়ালাইন্সগুলোর আয় কমতে পারে ১২ দশমিক ৮ বিলিয়ন ডলার। এছাড়া সবচেয়ে বেশি ক্ষতির মুখে পড়বে এশিয় অঞ্চলে বিমান সংস্থাগুলো।

সংস্থাটি আরও জানায়, ২০০৯ সালের পর প্রথমবারের মতো বিশ্বব্যাপী প্লেনে ভ্রমণের চাহিদা হ্রাস পেয়েছে। করোনা আতঙ্কে এশিয় অঞ্চলে প্লেনে ভ্রমণের চাহিদা ১৩ শতাংশ পর্যন্ত কমে যেতে পারে। এই হ্রাস পাওয়াটা এমন সময় এসেছে যখন প্লেনে ভ্রমণের চাহিদা বাড়ছিল।

বিশ্বের বেশির ভাগ এয়ারলাইন্সের প্রতিনিধিত্ব করা সংস্থাটি আরও জানায়, ২০২০ সালে প্লেনের ভ্রমণের চাহিদা ৪ দশমিক ১ শতাংশ বাড়ার কথা ছিল। কিন্ত করোনার প্রাদুর্ভাবে তা ০.৬ শতাংশ কমে যেতে পারে। করোনার প্রাদুর্ভাব যদি চীনের বাইরে ছড়িয়ে পড়ে তাহলে প্লেন সংস্থাগুলোর ক্ষতি আরও বাড়তে পারে বলে হুঁশিয়ারি করেছে আইটিএ।

আইটিএ'র পরিচালক আলেক্সজ্যান্ডার দে জুনিকা বলেন, বৈশ্বিক এয়ারলাইন্সগুলো চ্যালেঞ্জিং সময় পার করছে। বর্তমানে করোনার বিস্তার বন্ধ করা সবার ওপরে রয়েছে। যাত্রীদের সুরক্ষার জন্য এয়ারলাইন্সগুলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা মেনে চলছে।

তিনি আরও বলেন, রুট বন্ধ করতে এয়ারলাইন্সগুলো কঠিন সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। তবে জ্বালানির দাম কম হলে ক্ষতি কিছুটা লাঘব হবে। এই বছরটা বৈশ্বিক এয়ারলাইন্সগুলোর জন্য অনেক কঠিন হবে।

গত বছরের শেষের দিকে চীনের উহানে উৎপত্তি হওয়া করোনায় দেশটিতে দুই হাজারের ওপর মানুষ মারা গেছে। আক্রান্ত হয়েছে ৭৫ হাজারেরও বেশি। চীন বাদেও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়েছে ভাইরাসটি।

করোনার ভয়ে বিশ্বের অনেক এয়ারলাইন্স চীনে তাদের ফ্লাইট বাতিল করেছে। গত সপ্তাহে জাতিসংঘের সহযোগী সংগঠন আন্তর্জাতিক সিভিল এভিয়েশন সংস্থা (আইসিএও) জানিয়েছিল, ৭০টি বিমান সংস্থা চীনে তাদের সমস্ত ফ্লাইট বাতিল করেছে। এছাড়া ৫০টি বিমান সংস্থা চীনে তাদের ফ্লাইটের পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছে। করোনার প্রাদুর্ভাবে ২০২০ সালের শুরুতে আকাশপথে ২০ মিলিয়ন যাত্রী হ্রাস পেয়েছে। আর করোনার প্রভাব ২০০২-২০০৩ সালের সার্স ভাইরাসের প্রভাবকে ছাড়িয়ে যাবে।

আরও পড়ুন: করোনায় আকাশ পথে ক্ষতি ৫ বিলিয়ন

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর