করোনায় মুখ থুবড়ে পড়েছে ভারতের শেয়ারবাজার

  করোনা ভাইরাস

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কলকাতা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ভারত সকল প্রকার ট্যুরিস্ট ভিসা স্থগিত করেছে। বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) ভারতের শেয়ারবাজার খোলার সাথে সাথেই মুখ থুবড়ে পড়ে শেয়ারের সূচক। এতে বেশ বড় ক্ষতির মুখে পড়েছে দেশটির শেয়ারবাজারে। গত দুবছরের মধ্যে এই প্রথমবার ন্যাশনাল শেয়ার সূচক ১০ হাজারেরও নিচে নেমে গিয়েছে।

এদিন বাজার খোলা মাত্র ১ হাজার ৭০০ পয়েন্ট পড়ে যায় সেনসেক্স। এরপর ধাপে ধাপে নেমে যায় শেয়ার সূচক। পড়ে যায় ২ হাজার ৬০০ পয়েন্ট। এর জেরে ডলারের তুলনায় রুপির দামেও রেকর্ড পতন দেখা দিয়েছে। ৮২ পয়সা কমে ডলার প্রতি টাকার দাম দাঁড়িয়েছে ৭৪ রুপি ৫০ পয়সা। করোনাভাইরাসের জেরেই বিশ্ব বাণিজ্য এবং শেয়ার বাজারে এই পতন।

ইতিমধ্যেই বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা করোনাকে প্যানডেমিক বলে ঘোষণা করেছে। মরণঘাতী এ ভাইরাস যাতে আমেরিকায় ছড়িয়ে না পড়ে এজন্য ট্রাম্প সরকার ইউরোপ থেকে আগত পর্যটকদের উপর এক মাসের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

এদিকে করোনা জেরে ভারতও আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত ট্যুরিস্ট ভিসা বাতিল করছে বলে জানা গিয়েছে। সবকিছু মিলিয়েই এর প্রভাব পড়েছে দেশের শেয়ারবাজারে।

সেনসেক্স সূচক নেমে পৌঁছেছে ৩৩ হাজারের নিচে। পতন প্রায় ৭ দশমিক ৫ শতাংশেরও বেশি। অন্যদিকে নিফটি পৌঁছে গিয়েছে ৯ হাজার ৬০০ পয়েন্টের নিচে। যা গত দু’বছরে সর্বনিম্ন। এদিনের শেয়ার বাজারে পতনের ফলে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে লগ্নিকারীদের মোট ১১ লাখ কোটি রুপির বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

ভারতের পাশাপাশি আমেরিকা, জাপানের মতো দেশেও শেয়ারবাজারে ধস দেখা দিয়েছে। করোনার জেরে লগ্নিকারীরা বাজার থেকে অর্থ তুলে নেওয়ার ফলেই এই ধস বলে দাবি করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

আপনার মতামত লিখুন :

  করোনা ভাইরাস