করোনায় আক্রান্ত ৩ শিক্ষক, স্কুল বন্ধের নির্দেশ

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নীলফামারী
ভিড়াভিজা গোলনা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়

ভিড়াভিজা গোলনা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে প্রায় দেড় বছর বন্ধ ছিল দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে সারাদেশে স্কুল-কলেজের পাঠদান শুরু হলেও নীলফামারী জলঢাকা উপজেলার ভিড়াভিজা গোলনা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষক করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় স্কুলটি বন্ধের ঘোষণা করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জলঢাকা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার চঞ্চল কুমার ভৌমিক।

জলঢাকা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, গত (বুধবার) চিড়াভিজা গোলনা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের  সহকারী শিক্ষক সুশান্ত কুমার রায়ের জ্বর সর্দি সহ করোনা উপসর্গ দেখা দিলে করোনা নমুনা টেস্ট এর পরামর্শ দেন চিকিৎসক। পরে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনার পরীক্ষায় পজেটিভ হন তিনি। পরে সহকর্মী আব্দুল জলিল এবং জমিজুল ইসলাম সন্দেহের বশে করোনা নমুনা টেস্ট করলে তাদেরও করোনা পজিটিভ আসে।

এতে আতঙ্ক বিরাজ করছে শিক্ষার্থী অভিভাবকদের মাঝে।

চিড়াভিজা গোলনা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আহ হাসান জাহেদ নওরুজি বলেন, আমাদের স্কুলের সব শিক্ষকেই কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের দুইটি করে ডোজ গ্রহণ করেছেন। তবে ৩ জন শিক্ষক করোনা পজেটিভ হয়েছেন। এতে আমরা একটু বিচলিত। বাকিদের পরীক্ষা করার জন্য বলা হয়েছে। আমরা সকল স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করেছিলাম।

জলঢাকা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার চঞ্চল কুমার ভৌমিক জানান, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আপাতত আগামী দুই কার্যদিবসের জন্য বিদ্যালয়টি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সেখানকার অর্ধেক শিক্ষক এখনো করোনার টেস্ট করেনি। জরুরি ভিত্তিতে আজকের মধ্যে সবাইকে করোনার টেস্ট করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

শনিবার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

  বাংলাদেশে করোনাভাইরাস