লন্ডনের আদালতে অ্যাসাঞ্জের জামিন আবেদন খারিজ

  করোনা ভাইরাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ, ছবি: রয়টার্স

উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ, ছবি: রয়টার্স

  • Font increase
  • Font Decrease

উইকিলিকস প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের আইনজীবীর করা জামিন আবেদন প্রত্যাখ্যান করে দিয়েছে লন্ডনের ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। বুধবার (২৫ মার্চ) তার জামিন নামঞ্জুর করা হয়।

নভেল করোনাভাইরাসের কথা উল্লেখ করে অ্যাসাঞ্জের আইনজীবী এডওয়ার্ড ফিৎসগেরাল্ড জামিনের আবেদন করেন। তিনি আদালতকে বলেন, লন্ডনে ইকুয়াডোরিয়ান দূতাবাসে থাকার সময় অ্যাসাঞ্জ শ্বাস-প্রশ্বাসের সংক্রমণে ভুগেছিলেন। এছাড়া অ্যাসাঞ্জের হার্টের সমস্যাও রয়েছে। আর জেলে করোনার ঝুঁকি অ্যাসাঞ্জকে হুমকির মধ্যে ফেলছে বলে মন্তব্য করেন আইনজীবী।

এডওয়ার্ড ফিৎসগেরাল্ড আরও বলেন, এখানে অ্যাসাঞ্জের জীবনের ঝুঁকি রয়েছে। তাকে ছাড়লেও পালিয়ে যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। লন্ডনে অবস্থান করা তার কর্মজীবনের এক বন্ধুর বাসায় অবস্থা করবে। কিন্তু জেলে করোনা আক্রান্ত হন তাহলে তার জীবননাসের হুমকি থাকে।

কিন্তু ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক ভানেসা বারিস্তার ফিৎসগেরাল্ড'র যুক্তি প্রত্যাখ্যান করেন। তিনি অ্যাসাঞ্জের একটি অডিও বার্তার কথা উল্লেখ করে বলেন, আমেরিকাতে প্রত্যাবর্তনের চেয়ে আত্মহত্যা করা অ্যাসাঞ্জের কাছে শ্রেয়।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গোপন নথি ফাঁস করে ২০১০ সালে সবার সামনে আসেন উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। ২০১২ সালে দেশচ্যুত হন অস্ট্রেলিয়ার বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক অ্যাসাঞ্জ। দীর্ঘ সাত বছর তিনি যুক্তরাজ্যের ইকুয়েডর দূতাবাসে অবস্থান করেন। গত বছরের এপ্রিলে ধর্ষণ মামলায় তাকে দূতাবাস থেকে গ্রেফতার করে লন্ডন পুলিশ। বর্তমানে ৪৮ বছর বয়সী অ্যাসাঞ্জ লন্ডনের বেলমার্শ জেলে রয়েছেন।

লন্ডন থেক অ্যাসাঞ্জকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নেওয়ার জন্য জোর প্রক্রিয়া চলছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে তার বিরুদ্ধে ১৮টি মামলা দায়ের রয়েছে। যেখানে সরকারি কম্পিউটার হ্যাকড ও গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগ রয়েছে। মার্কিন আদালতে দোষী সাব্যস্ত হলে তার কয়েক দশকের জেল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

  করোনা ভাইরাস