বিকেল নাগাদ স্বাভাবিক হবে আবহাওয়া, সোমবার রৌদ্রজ্জ্বল দিন

  ঘূর্ণিঝড় বুলবুল


সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
সাংবাদিকদের ব্রিফ করছেন প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

সাংবাদিকদের ব্রিফ করছেন প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল এখনো বাংলাদেশেই অবস্থান করছে। তবে সেটা অত্যন্ত দুর্বল হয়ে যাওয়ায় রোববার (১০ নভেম্বর) বিকেলের মধ্যে আবহাওয়া স্বাভাবিক হয়ে যাবে। আর কালকে (সোমবার) আমরা একটা রোদ্রজ্জ্বল দিন পাব।

রোববার দুপুরে সচিবালয়ে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের সবশেষ পরিস্থিতি নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিং কালে প্রতিমন্ত্রী এ কথা বলেন।

বুলবুল দুর্বল হয়ে যাওয়ায় উপকূলীয় এলাকা ও সমুদ্রবন্দরগুলোর মহাবিপদ সংকেত ১০ থেকে ৩ নম্বরে নামানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এ সময় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ক্যাপটেন এ বি তাজুল ইসলাম, সচিব শাহ কামাল, আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক সামসুদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত ৫ নভেম্বর বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপটি ৭ নভেম্বর ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে রূপান্তিরত হয়। তারপর ৮ নভেম্বর ৪ নম্বর সর্তকতা সংকেত দেওয়া হয়। ৯ নভেম্বর সকাল ৬টায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেওয়া হয়। তারপর আমরা ঝড়ের গতি-প্রকৃতি পর্যবেক্ষণ করেছি। এটা ৯ নভেম্বর রাত ৯টার দিকে ৮৮ দশমিক ১ দ্রাঘিমাংশ এবং ২১ দশমিক ৩ অক্ষাংশ বরাবর আসার সময় পশ্চিম বাংলায় আঘাত হানার পর দুর্বল হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। ঝড়টি দুর্বল হয়ে বাংলাদেশের সুন্দরবন দিয়ে প্রবেশ করে সাতক্ষীরা, খুলনা, বাগেরহাটের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। এখনো এটা বাংলাদেশের মধ্যে আছে। বিকেল নাগাদ এটি শেষ হয়ে যাবে। এখন বুলবুলের বাতাসের গড় গতিবেগ ৪০-৯০ কিলোমিটার, এটা আসলে খুবই কম। সিডর-আইলায় ঘণ্টায় বাতাসের গতিবেগ ছিল ২২০ থেকে ২৫০ কিলোমিটার। যার ফলে এবার ক্ষয়ক্ষতি তেমন হয়নি।

তিনি আরো বলেন, ইতিহাসের সর্বোচ্চ সংখ্যক লোকজনকে আমরা আশ্রয় কেন্দ্রে সরিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছি। এবার ৫ হাজার ৫৮৮টি আশ্রয় কেন্দ্রে ২১ লাখ ৬ হাজার ৯১৮ জন আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নেয়। তাদের নিরাপত্তা দিতে পেরেছি। তাদের জন্য সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, খুলনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, বরগুনা, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, চাঁদপুর, চট্টগ্রাম, ফেনী, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর এ ১৪টি জেলায় যখনই ৪ নম্বর সতর্ক সংকেত পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ৫০০ মেট্রিক টন চাল, ১৫ লাখ টাকা এবং ২ হাজার প্যাকেট শুকনা খাবার প্রত্যেক জেলায় পৌঁছে দেওয়া হয়। লোকজন আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার আগেই সেগুলো জেলা প্রশাসনের সহায়তায় আশ্রয় কেন্দ্রে পৌঁছে দেওয়া হয়। হতাহতের খবর খুব বেশি পাওয়া যায়নি। এ পর্যন্ত অফিশিয়ালি প্রমিলা মণ্ডল (৫২) ও হামিদ কাজী (৬৫) নামে ২ জনের মৃত্যু খবর নিশ্চিত করেছি। প্রমিলা খুলনার দাকোপ উপজেলার সুভাষ মণ্ডলের স্ত্রী। তিনি বিনা অনুমতিতে আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফেরার পর রান্নাঘরে গাছচাপায় মারা গেছেন। আর পটুয়াখালীর হামিদ কাজীও আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর ঘরের ওপর গাছ পড়ে মারা যান। গণমাধ্যমে ৪ জনের কথা বলা হয়েছে। আর ৩০ জন আহত হয়েছে। ৪ থেকে ৫ হাজার ঘরবাড়ি আংশিক বিধ্বস্ত হয়েছে।

আশ্রয় কেন্দ্রে যে একজন মারা যাওয়ার খবর এসেছে, সে বিষয়ে সচিব বলেন, জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে জানতে পেরেছি, তিনি মারা যাননি, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

দুর্যোগ সরে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মন্ত্রী এবং মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে এসেই স্থানগুলো পরিদর্শন করে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। সে হিসেবে আগামীকাল আমরা হেলিকপ্টারে করে দুর্গত এলাকা পরিদর্শন করব। এছাড়া জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কাছ থেকে প্রতিবেদন নেওয়া শুরু হয়েছে। আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা ডেকে যার যার মন্ত্রণালয়ের ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ এবং ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

১৪টি জেলার মধ্যে শুধু পটুয়াখালীতে কিছু আমন আছে। সেখানেও আমনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তবে শীতের সবজির কিছু ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়ক বন্ধ করে ববি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, বরিশাল
বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়ক বন্ধ করে ববি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়ক বন্ধ করে ববি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

  • Font increase
  • Font Decrease

বৈষম্যমূলক কোটা পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে বরিশাল-কুয়াকাটা মহাসড়কে অবরোধ করেছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (ববি) শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (১৫ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ববি গেট সংলগ্ন মহাসড়ক অবরোধ করে লাঠি হাতে বিক্ষোভ করেন তারা।

এর আগে, ববির গ্রাউন্ড ফ্লোরে শিক্ষার্থীরা সংগঠিত হতে থাকেন। এরপর মহাসড়কে অবস্থান নেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এ কারণে মহাসড়কে দু’পাশে শতশত যানবাহন আটকা পড়ে।

এ সময় শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘চাইলাম অধিকার, হইলাম রাজাকার। প্রধানমন্ত্রী আমাদের রাজাকারের বাচ্চা বলতে পারেন না। এটা তার মুখে মানায় না। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ করছি।’

এ ব্যাপারে বৈষম্যমূলক কোটা বিরোধী আন্দোলন সমন্বয় কমিটির সদস্য সুজয় শুভ জানান, আমাদের যৌক্তিক দাবি আদায়ে শত বাঁধা উপেক্ষা করে হলেও মাঠে থাকবো। যতদিন পর্যন্ত সরকার আমাদের দাবি মেনে না নেবে, ততদিন পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রহমান মুকুল বলেন, শিক্ষার্থীরা কোটা বাতিলের দাবিতে মহাসড়কে অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেছে। তাদের সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ কাজ করছে।

  ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

;

সংঘর্ষ থামাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যা বলবে তাই করবো: বিপ্লব কুমার



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ডিএমপির যুগ্ম-পুলিশ কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার

ডিএমপির যুগ্ম-পুলিশ কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ থামাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যা বলবে তাই করবেন বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) যুগ্ম-পুলিশ কমিশনার (অপারেশনস) বিপ্লব কুমার সরকার।

সোমবার (১৫ জুলাই) সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান সংঘর্ষ থামানোর বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে তিনি এ মন্তব্য করেন।

সংঘর্ষ থামাতে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য প্রস্তুত রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ঢাবি প্রশাসনের অনুমতি পেলে আমরা ক্যাম্পাসে প্রবেশ করবো।

এদিন দুপুর থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় দফায় দফায় সংঘর্ষ চলছে। শেষ খবর অনুযায়ী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ হল এলাকায় কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ চলছে।

ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীরা হলের বাইরের সড়কে অবস্থান করে ইট–পাটকেল ছুঁড়ছেন। অন্যদিকে হলের ভেতরে অবস্থান করে আন্দোলনকারীরা ইটপাটকেল ছুঁড়ছেন। ওই এলাকায় অন্তত দুটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়।

জানা গেছে, ছাত্রলীগের হামলায় কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শতাধিক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। এছাড়া ছাত্রলীগের সাতজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

বৈষম্যবিরোধী ছাত্র আন্দোলনের অন্যতম সমন্বয়ক নাহিদ ইসলাম জানান, ছাত্রলীগের হামলায় আহত নারী শিক্ষার্থীসহ শতাধিক ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসা নিচ্ছে। আহতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, আমরা আমাদের অসুস্থ ভাই বোনদের চিকিৎসা শেষে আজ আবারও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাব। মিছিল করব। আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

  ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

;

কক্সবাজার সৈকতে গোসলে নেমে পর্যটক নিখোঁজ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, কক্সবাজার
কক্সবাজার সৈকতে

কক্সবাজার সৈকতে

  • Font increase
  • Font Decrease

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গোসলে নেমে ডুবে যান চার পর্যটক। পরে তিনজনকে উদ্ধার করা গেলেও মো. রাহাদ (১৮) নামের এক পর্যটক নিখোঁজ রয়েছেন।

সোমবার (১৫ জুলাই) দুপুরে সৈকতের সুগন্ধা ও কলাতলী পয়েন্টের মাঝামাঝি ডিভাইন ইকোরিসোর্ট সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজ রাহাদ ঢাকার কামরাঙ্গীরচর থানার আলহেরা কমিউনিটি সেন্টার এলাকার আলী আকবরের ছেলে।

ট্যুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার অঞ্চলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মনজুর মোরশেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সোমবার সকালে খালা-খালুর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে রাহাদ কক্সবাজার বেড়াতে আসেন। তারা হোটেলে ওঠার পর সৈকতে ঘুরতে বের হন। সৈকতে ঘুরাঘুরির এক পর্যায়ে খালাতো ভাই-বোনদের সঙ্গে কলাতলী ও সুগন্ধা পয়েন্টের মাঝামাঝি ডিভাইন ইকোরিসোর্ট সংলগ্ন এলাকায় সাগরে গোসলে নামেন। এতে স্রোতের টানে তারা ভেসে যেতে থাকে।

বিচকর্মীর সুপারভাইজার মাহাবুব আলম জানান, ৪ জন সমুদ্রে গোসল করতে নেমে ডুবে যান। তাদের মধ্যে তিনজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রাহাদ নামে একজন এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

বিচকর্মী ও লাইফ গার্ড কর্মীরা জানান, সাগরের বিভিন্ন পয়েন্টে তার সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতা চালানো হয়।

  ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

;

নোয়াখালীতে ঘরে ঢুকে যুবককে গুলি করে হত্যা



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, নোয়াখালী
ছবি: সোনাইমুড়ী থানা

ছবি: সোনাইমুড়ী থানা

  • Font increase
  • Font Decrease

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে পূর্ব শক্রতার জের ধরে মো.জসিম (৩৫) নামে এক যুবককে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। নিহত মো.জসিম উপজেলার আমিশাপাড়া ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের সাতঘরিয়া গ্রামের সর্দার বাড়ির মনু মিয়ার ছেলে।

সোমবার (১৫ জুলাই) বিকেল পৌনে ৪টার দিকে উপজেলার আমিশাপাড়া ইউনিয়নের ৩নম্বর ওয়ার্ডের সাতঘরিয়া গ্রামের সর্দার বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বখতিয়ার উদ্দিন। তিনি জানান, বিকেল পৌনে ৪টার দিকে ঘরে ঢুকে দুর্বৃত্তরা জসিমকে গুলি করে পালিয়ে যায়। পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় স্থানীয় বজরা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে ওসি বখতিয়ার উদ্দিন জানান, গত কয়েক দিন আগে এলাকা থেকে এক লোকের মোটরসাইকেল চুরি হয়। এটা নিয়ে নিহত জসিমের সাথে অপর একটি পক্ষের বিরোধ দেখা দেয়। যে ছেলে গুলি করেছে গতকাল রোববার সেই ছেলে নিহত জসিমকে তার বাড়িতে গিয়ে হুমকি ধামকি দিয়ে আসে। স্থানীয়দের ভাষ্যমতে মোটরসাইকেল চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

ওসি বখতিয়ার আরও জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করে মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। ঘটনায় জড়িতদের নাম ঠিকানা জানা গেছে। পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছে।

  ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

;