জয় দিয়ে বিশ্বকাপ শেষ পাকিস্তানের

  ক্রিকেট কার্নিভাল


স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বকাপে নিজেদের সবশেষ ম্যাচে জয় পাক, সেটা হয়তো চেয়েছিলেন পাকিস্তানের সবাই। কিন্তু এভাবে হোক, তা নিশ্চয়ই কেউ চাননি! দুই গ্রুপের বৈতরণী পার হয়ে গেলে জয় দিয়ে শেষ করার সুযোগ তো একমাত্র চ্যাম্পিয়ন দলেরই থাকে! কিন্তু বাবর আজমের দল হলো তার ঠিক উল্টোটা। বনে গেল গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়া ১২ দলের একটা। শেষ ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের ৩ উইকেটের জয়টাকে তাই সান্ত্বনার জয় ছাড়া আর কিছুই বলা যাচ্ছে না।
পাকিস্তানের শুরুটা অবশ্য দুর্দান্ত হয়েছিল। দ্বিতীয় ওভারেই পাকিস্তান তুলে নিয়েছিল আইরিশদের ৩ উইকেট, দলের রান ছিল তখন মোটে ৪। এরপর শীর্ষ পাঁচ ব্যাটারের কেউই ২ অঙ্কে যেতে পারেননি। তবু আয়ারল্যান্ড ১০৬ পর্যন্ত গেছে গ্যারেথ ডেলানির ১৯ বলে ৩১ আর জশ লিটলের ২২ রানে ভর করে।
জবাবে পাকিস্তান শুরু করেছিল ভালোই। তবে পঞ্চাশ পেরোনোর পরই দশ রানের ব্যবধানে ৪ উইকেট খুইয়ে কাঁপতে থাকে বাবর আজমের দল। সেখান থেকে দলকে রক্ষা করলেন বাবর নিজেই। ৩২ রানের অপরাজিত ইনিংসটা হয়তো তার সেরা নয়, কিন্তু পরিস্থিতি বিচারে তিনি একে মনে রাখবেন অনেক দিন। শেষ দিকে পরিস্থিতিটা আরও কঠিন হতে দেননি শাহিন আফ্রিদি। দুই ছক্কায় ম্যাচটা শেষ করেন ৭ বল বাকি থাকতেই।
আইরিশদেরও বিশ্বকাপ বহু আগে শেষ হয়ে গিয়েছিল। পাকিস্তান নিজেদের অন্তত এই বলে সান্ত্বনা দিতে পারে যে, তারা তো শেষ ম্যাচে জয় পেয়েছে, আইরিশরা যে এই সান্ত্বনাটাও নিজেদের দিতে পারছে না!

কোপার ফাইনালে অপরিবর্তিত আর্জেন্টিনা, কলম্বিয়ায় ২ বদল



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কোপা আমেরিকার ফাইনালে আজ মুখোমুখি আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া। এই ম্যাচে আর্জেন্টিনা অপরিবর্তিত দল নিয়েই মাঠে নেমেছে। ওদিকে কলম্বিয়া নেমেছে একাদশে দুটো পরিবর্তন এনে।

এই ম্যাচের আগে আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি ভরসা রাখতে চলেছেন নিকলাস ওতামেন্দি আর লিয়ান্দ্রো পারেদেসের ওপর, এমন একটা গুঞ্জন ছিল। তবে সে গুঞ্জন সত্যি হয়নি। মাঠে নামানো হয়েছে অপরিবর্তিত একাদশই।

ওদিকে কলম্বিয়ার দানিয়েল মুনইয়োজ সেমিফাইনালে লাল কার্ড দেখেছিলেন। যার ফলে তাকে পাচ্ছে না কলম্বিয়া। ফাইনালে তার জায়গায় একাদশে সান্তিয়াগো আরিয়াস। রিচার্ড রিওস ফিরেছেন চোট কাটিয়ে।

আর্জেন্টিনা একাদশ–
এমি মার্তিনেজ
মন্তিয়েল, রোমেরো, লিসান্দ্রো, তালিয়াফিকো
দে পল, এনজো, ম্যাক অ্যালিস্টার
মেসি, আলভারেজ, দি মারিয়া

কলম্বিয়ার একাদশ–
কামিলো ভারগাস,
সান্তিয়াগো আরিয়াস, দাভিনসন সানচেজ, কার্লোস কুয়েস্তা, ইয়োহান মহিকা;
রিচার্ড রিওস, জেফারসন লারমা, জন আরিয়াস;
হামেস রদ্রিগেজ;
জন করদোবা, লুইস ডিয়াজ

  ক্রিকেট কার্নিভাল

;

ইতিহাস গড়ে ইউরো চ্যাম্পিয়ন স্পেন



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা ২৪
সংগৃহীত

সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

শেষ পর্যন্ত ইতিহাস গড়েই ইউরো ২০২৪ এর শিরোপা তুলে নিল লুইস দে লা ফুয়েন্তের স্পেন। ইংল্যান্ডকে ২-১ গোলে হারিয়ে টুর্নামেন্টের একমাত্র দল হিসেবে এখন চারটি শিরোপার মালিক এখন স্প্যানিশরাই।

১৯৬৬ সালের পর কোনো বৈশ্বিক বা মহাদেশীয় শিরোপা জিততে পারেনি ইংলিশরা। ২০২০ ইউরোর পর আজ আরও একবার ফাইনালের মঞ্চে শিরোপা খরা কাটানোর খুব কাছে ছিল ইংল্যান্ড। তবে আবারও হলো স্বপ্নভঙ্গ। ৫৮ বছরের শিরোপা খরা কাটানো এবং ইউরোতে নিজেদের প্রথম শিরোপা তুলে ধরা আর হলো হ্যারি কেইনদের।

অপরদিকে টুর্নামেন্টের শুরু থেকেই দারুণ ছন্দে থাকা স্পেন আসর শেষ করল অপরাজিত থেকেই। ইউরোর ইতিহাসে এই নজির নেই আর কোনো দলেরই। ইংল্যান্ডকে হারিয়ে শিরোপা তুলে ধরার মাধ্যমে রেকর্ডের খাতায়ও নাম লেখাল লা ফুয়েন্তের শিষ্যরা। একমাত্র দল হিসেবে চারটি ইউরো শিরোপার দখলদার এখন স্পেন।

বার্লিনের মাঠে আজ ফাইনালের শুরুটা ছিল কিঞ্চিত পানসে। দুই দলের কেউই প্রথমার্ধে বড় কোনো গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারেনি, গোলের দেখাও পায়নি। ১২তম মিনিটে প্রথম আক্রমণে যায় স্পেন, তবে ইংলিশ ডিফেন্ডারদের সুবাদে লক্ষ্যে শট করতে ব্যর্থ হন নিকো। ঠিক তার পরের মিনিটের প্রথমবারের মতো ক্রস করে গোলের সুযোগ বানিয়ে দেন ওয়াকার। তবে ডি-বক্সে তার সতীর্থ কেউই বল পায়ে পাননি। গোলশূন্য ড্র থেকেই শেষ হয় প্রথমার্ধ।

বিরতির পর যেন নতুন উদ্যমে মাঠে নামে স্পেন। নামার মিনিট দুয়েকের মধ্যেই ইয়ামালের বাড়ানো বল নৈপুণ্যের সঙ্গে জালে জড়ান উইলিয়ামস। এগিয়ে যায় স্পেন, একইসঙ্গে যেন জেগে উঠে তাদের মনোবল। পরপর কয়েকটি সুযোগ তৈরি করে তারা।

পাল্টা আক্রমণে যায় ইংল্যান্ড, একাধিকবার গোলের উদ্দেশ্যে এগিয়ে অবশেষে তারা সফল হয় ৭৩তম মিনিটে। ক্রস থেকে পাওয়া বল ডিফ্লেক্ট হয়ে ডি-বক্সের বাইরের দিকে চলে যায়। বেশ খানিকটা দূর থেকে দৌড়িয়ে এসে বল না থামিয়েই বা পায়ে মাটি ঘেষিয়ে দুর্দান্ত এক শট নেন ইংলিশ ডিফেন্ডার কোল পালমার। ব্যর্থ হন স্পেনের গোলরক্ষক। ১-১ সমতায় জমে ওঠে ম্যাচ!

দু'দলই এরপর পালাক্রমে আক্রমণ করতে থাকে। তবে ম্যাচের শেষভাগে যেন জ্বলে ওঠে স্পেন। একের পর এক আক্রমণে দিশেহারা করে তোলে ইংলিশ ডিফেন্ডারদের। ৮৬তম মিনিটে কুকুরেয়ার ক্রস থেকে জয়সূচক গোলটি করেন বদলি হিসেবে নামা ওয়ারজাবাল। শেষ কয়েক মিনিটে আর গোল শোধ দিতে না পারায় হারের হতাশা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় ইংল্যান্ডকে।

  ক্রিকেট কার্নিভাল

;

যেমন হতে পারে ইউরো ও কোপা ফাইনালের একাদশ



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

কয়েক ঘন্টার ব্যবধানেই ফুটবল বিশ্ব পেতে যাচ্ছে দুই মহাদেশীয় চ্যাম্পিয়নদের। উয়েফা ইউরোর ফাইনালে সোমবার রাত ১ টায় জার্মানির মাঠে মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড ও স্পেন। অপরদিকে কোপা আমেরিকার ফাইনালে ভোর ৬টায় যুক্তরাষ্ট্রের মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়া।

ইউরোর ফাইনালে দর্শকরা অপেক্ষা করছেন ইংলিশদের শিরোপা খরা কাটানো কিংবা স্পেনের ইতিহাস গড়তে দেখার। অপরদিকে কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনার সমর্থকরা আছেন টানা দ্বিতীয় শিরোপা তুলে ধরার অপেক্ষায়, পথের কাঁটা হিসেবে আছে কলম্বিয়া।

টানা দ্বিতীয় ইউরোর ফাইনালে এবারের ফেভারিট স্পেনের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা নিয়েই মাঠে নামবে গ্যারেথ সাউথগেটের দল। অপরদিকে আসরের একমাত্র দল হিসেবে চারটি শিরোপা নিজেদের নামে করে নেওয়ার মিশনে সেমিফাইনালের একাদশ নিয়েই মাঠে নামবে লুইস দে লা ফিয়েন্তের শিষ্যরা।

ইংল্যান্ড একাদশঃ জর্ডান পিকফোর্ড, কাইল ওয়াকার, জন স্টোন্স, মার্ক গেহি, বুকায়ো সাকা, ডেক্লান রাইস, লুক শ, কোবি মাইনু, জুড বেলিংহ্যাম, ফিল ফোডেন, হ্যারি কেইন

স্পেন একাদশঃ উনাই সিমন, দানি কারভাহাল, লে নরমান্দ, লাপোর্তে, কুকুরেয়া, রুইজ, দানি অলমো, রদ্রি, লামিনে ইয়ামাল, আলভারো মোরাতা, নিকো ইউলিয়ামস

কোপা আমেরিকার মঞ্চে নিজের দ্বিতীয় শিরোপা তুলে ধরতে সেরা দলতা নিয়েই মাঠে নামবেন মেসি। অপরদিকে দীর্ঘ ২৩ বছর পর কোপার ফাইনালে উঠে খালি হাতে ফেরত যেতে চায় না কলম্বিয়া, বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের নিশ্চয়ই ছেড়ে কথা বলবে না তারা।

আর্জেন্টিনা একাদশঃ এমি মার্টিনেজ, মন্তিয়েল, রোমেরো, লিসান্দ্র/ওতামেন্দি, তালিয়াফিকো, ডি পল, এনজো/পেরেদেস, ম্যাক অ্যালিস্টার, লিওনেল মেসি, আলভারেজ, ডি মারিয়া

কলম্বিয়া একাদশঃ কামিলো ভারগাস, সান্তিয়াগো আরিয়াস, দাভিনসন সানচেজ, কার্লোস কুয়েস্তা, ইয়োহান মহিকা, রিচার্ড রিওস, জেফারসন লারমা, জন আরিয়াস, জেমস রদ্রিগেজ, জন করদোবা, লুইস ডিয়াজ

  ক্রিকেট কার্নিভাল

;

জয় দিয়েই সিরিজ শেষ করল ভারত



স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

জিম্বাবুয়ের মাটিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে গতকাল (শুক্রবার) জয় তুলে নিয়ে ইতিমধ্যেই নিজেদের নামে সিরিজটি লিখে ফেলেছিল ভারত। আজ সিরিজের পঞ্চম ম্যাচেও জয় তুলে নিল শুবমান গিলরা। টানা চার জয়ের মাধ্যমে জিম্বাবুয়েকে তাদেরই মাটিতে সিরিজ হারিয়ে ট্রফি উঁচিয়ে ধরল তরুণ নির্ভর ভারত দলটি।

সিরিজের প্রথম ম্যাচটায় ধাক্কা খাওয়ার পর অনেকেই ভারতের তরুণ ও নতুন ক্রিকেটারদের সমালোচনা শুরু করেন। অভিজ্ঞ দল না হওয়ায় সিরিজটিও হেরে যেতে পারে তারা, এমন শঙ্কাও করা হচ্ছিল। কিন্তু দলটির নাম তো ভারত! দুর্দান্ত ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে স্বাগতিকদের পরপর চারটি ম্যাচে হারিয়ে দেখালেন অভিশেক-গিল-স্যামসনরা।

আজ টসে জিতে শুরুতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় স্বাগতিকরা। ব্যাট হাতে মারকুটে খেলা শুরু করলেও প্রথম ওভারেই সাজঘরে ফেরেন ভারতীয় ওপেনার যশস্বী জয়সওয়াল। আগের ম্যাচে দারুণ ছন্দে থাকা অভিষেক শর্মা ও অধিনায়ক শুবমান গিলও এদিন রানের পাল্লা ভারি করতে পারেননি।

এরপর দলের হাল ধরেন সাঞ্জু স্যামসন। তার অর্ধশতকের ওপর ভর করে নির্ধারিত ওভার শেষে জিম্বাবুয়েকে ১৬৮ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় ভারত।

জবাবে ব্যাট বরাবরের মতোই ব্যর্থ হন স্বাগতিক ব্যাটাররা। ধারাবাহিকভাবে সাজঘরের পথ ধরেন জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটাররা। ১৯তম ওভারে ১২৫ রানে সবকটি উইকেট হারায় তারা। জয়ের মাধ্যমেই সিরিজ নিজেদের নামে করে নেয় ভারত।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ভারতঃ ২০ ওভারে ১৬৭/৬; স্যামসন ৫৮; মুজারাবানি ২-১৯

জিম্বাবুয়েঃ ১৮.৩ ওভারে ১২৫; মায়ার্স ৩৪; মুকেশ ৪-২২

ফলাফলঃ ভারত ৪২ রানে জয়ী

ম্যাচসেরাঃ শিভম দুবে

সিরিজঃ ভারত ৪-১ ব্যবধানে জয়ী

সিরিজসেরাঃ ওয়াশিংটন সুন্দর

  ক্রিকেট কার্নিভাল

;