বিএনপির রাজনীতিতে খোকার উত্থান

  সাদেক হোসেন খোকা আর নেই



নিউজ ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
সাদেক হোসেন খোকা

সাদেক হোসেন খোকা

  • Font increase
  • Font Decrease

সাদেক হোসেন খোকা মাওলানা ভাসানীর ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টিতে (ন্যাপ) যোগ দিয়ে রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। পরবর্তীতে আশির দশকে বামপন্থী রাজনীতি ছেড়ে বিএনপিতে যোগ দেন খোকা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র থাকাকালীন সময়ে সাদেক হোসেন খোকা ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন।

১৯৯১ সালের জাতীয় নির্বাচনে তিনি প্রথম বিএনপির প্রার্থী হয়ে ঢাকা-৭ আসন (সূত্রাপুর-কোতোয়ালি) থেকে প্রথমবারের মতো এমপি নির্বাচিত হন এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব লাভ করেন।

এ নির্বাচনে খোকা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পরাজিত করে আলোচনায় আসেন। এরপর থেকে তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

১৯৯৬ সালের জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি ঢাকার আটটি আসনের মধ্যে সাতটিতে পরাজিত হলেও ব্যতিক্রম ছিলেন শুধু খোকা। ২০০১ সালের জাতীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হন। এসময় তিনি পুরান ঢাকায় বিএনপির রাজনীতিতে একটি নিজস্ব শক্তিশালী বলয় তৈরি করেন।

বিএনপির এই নেতা অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের শেষ মেয়র ছিলেন। ২০০২ সালের ২৫ এপ্রিল সরাসরি নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন খোকা। ২৯ নভেম্বর ২০১১ সাল পর্যন্ত টানা ১০ বছর বিএনপি ও আওয়ামী লীগের শাসনামলে ঢাকা মহানগরের মেয়র ছিলেন তিনি।

বিএপির এই প্রভাবশালী নেতা আজ চলে গেলেন না ফেরার দেশে (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম’কে নিশ্চিত করেছেন বিএনপির মিডিয়া উইং শায়রুল কবির খান।

তিনি জানান, কিডনির ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন সাদেক হোসেন খোকা। বাংলাদেশ সময় সোমবার (৪ নভেম্বর) দুপুর ১টায় নিউইয়র্কের ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্লোন ক্যাটারিং ক্যানসার সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

তার পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, খোকার জীবনের শেষ ইচ্ছা ছিল অন্তিম সময়ে দেশে থাকার। তবে পাসপোর্ট না থাকায় দেশে ফেরত আনা সম্ভব হয়নি।

আরও পড়ুন: 

সাদেক হোসেন খোকা আর নেই

  সাদেক হোসেন খোকা আর নেই