কিয়েভে ব্ল্যাক বক্স পাঠাল ইরান

  ইরান-আমেরিকা দ্বন্দ্ব

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ব্ল্যাকবক্স কিয়েভে পাঠাল ইরান, ছবি: রয়টার্স

ব্ল্যাকবক্স কিয়েভে পাঠাল ইরান, ছবি: রয়টার্স

  • Font increase
  • Font Decrease

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র দ্বারা বিধ্বস্ত ইউক্রেনের যাত্রীবাহী প্লেনের ব্ল্যাক বক্স কিয়েভে পাঠিয়েছে দেশটি। শনিবার (১৮ জানুয়ারি) ইরানের সরকারি কর্তৃপক্ষের বরাতে এ খবর জানিয়েছে দেশটির সংবাদ সংস্থা তাসনিম।

তাসনিম তাদের প্রতিবেদনে জানায়, ফ্র্যান্স, কানাডা এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞরা ব্ল্যাক বক্সটি পরীক্ষা করবেন। এছাড়া তারা বিভিন্ন তথ্যাদি ও ভয়েস রেকর্ডও শুনবেন।

ইরানের সিভিল এভিয়েশন অর্গানাইজেশনের প্রধান হাসান রেজাফার বলেন, ইউক্রেনের বিশেষজ্ঞদের অনুরোধে বিধ্বস্ত হওয়া প্লেনটির ব্ল্যাক বক্স দেশটির কাছে হস্তান্তর করা হচ্ছে। তাদের প্রচেষ্টা ব্যর্থ হলে ব্ল্যাক্স বক্স ফ্রান্সে পাঠানো হবে।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভাদিম প্রাইস্তাইকো এই সংবাদটির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেছেন, এটি আন্তর্জাতিক মানের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। আমরা এখনও দাবি করছি তদন্তের স্বাধীনতা এবং উদ্দেশে নিশ্চিত করার জন্য তাত্ক্ষণিকভাবে আমাদের দেওয়া উচিত।

এর আগে প্রাইস্তাইকো আমেরিকান সংবাদ মাধ্যম সিএনএনকে জানায়, দুর্ঘটনার তদন্তে তেহরান আমাদের সহযোগিতা করছে। এছাড়া দুর্ঘটনার জন্য একজন ইরানি কর্মকর্তা কিয়েভ সফর করবেন এবং আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চেয়ে দুর্ঘটনার ব্যাখ্যা প্রদান করবেন।

প্রসঙ্গত, ইরানের দ্বিতীয় শীর্ষ নেতা কাসিম সোলাইমানি মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হওয়ার পর প্রতিশোধ নিতে মার্কিন প্লেন ঘাঁটিতে হামলা চালায় দেশটি। ওই দিনই ভুলবশত ইউক্রেনের যাত্রীবাহী প্লেন ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র দ্বারা ভূপাতিত হয়।
ইরানের খোমেনি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়নের কিছু সময় বাদেই প্লেনটি বিধ্বস্ত হয়। এতে মারা যায় ১৭৬ জন। নিহতদের মধ্যে ৮২ জন ইরানি, ৬৩ জন কানাডিয়ান, ১১ জন ইউক্রেনের, ১০ সুইডিশ, চার আফগান ও তিনজন জার্মানির নাগরিক ছিলেন বলে জানা গেছে। প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে যেয়ে স্বীকার করে নেন ইরান।

আপনার মতামত লিখুন :

  ইরান-আমেরিকা দ্বন্দ্ব