নাসিক নির্বাচন: নজিরবিহীন নির্বাচন, ঝড় নেট দুনিয়ায়

  নাসিক নির্বাচন



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

শেষ হল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ভোট গ্রহণ। কোনও প্রকার রক্তারক্তির ঘটনা ছাড়াই সকাল থেকে একটি সফল নির্বাচন দেখলো দেশবাসী। নেটিজেনরা বলছেন, এ সরকারের আমলে এমন ঘটনা নজিরবিহীন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করছেন ভোট প্রদান পরবর্তী ‘ভি ফিঙ্গার্ড’ ছবি।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) সকাল আটটা থেকে শুরু হয় নাসিকের ভোটগ্রহণ। সারাদিন বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনা ছাড়া বিকেল চারটায় উৎসবমুখরতা নিয়েই শেষ হয় ভোট। নাগরিকগণ সুষ্ঠুভাবেই ভোট দিতে পেরেছেন পছন্দের প্রার্থীকে।

উৎসাহের সাথে ভোট দিতে দেখা গেছে নেটিজান তরুণদের। প্রথমবারের মত ভোট দিতে যান তানভীর কারিম তরঙ্গ। কোনো রকম বাধার মুখে না পড়েই দিতে পেরেছেন নিজের ভোটটি। হাতে অঙ্কিত ভোট দেওয়ার চিহ্ন দেখিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন নিজের ছবি। অনেকেই ভোট শেষে লাইভে এসে ব্যক্ত করছেন সুষ্ঠুভাবে ভোটদানের অনুভূতি। অনেকেই ‘নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন-২০২২’ লিখেও ছবি পোস্ট করছেন ফেসবুকে। আতঙ্কিত নেই কেউ। মাঝে মাঝে কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা আর কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার উড়ো অভিযোগ ছাড়া সামনে আসছে না তেমন কিছু।

নেটিজান আল এমডি বিপ্লব চৌধুরী ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, সুষ্ঠু ভোটের মধ্যমে (মাধ্যমে) শেষ হলো নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন। এখন ফলাফলের অপেক্ষায়।

নারী ভোটারদের দীর্ঘলাইন

পূর্ব ঘোষিত ইশতেহার অনুযায়ী, পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী ও সংশ্লিষ্টদের সর্বোচ্চ সহযোগীতায় সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হতে যাচ্ছে এবারের নির্বাচন। নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন সর্বোত্তম একটি নির্বাচন। দেশবাসীর জন্য এটি একটি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

তবে বরাবরের মত এবারও ইভিএম বিড়ম্বনায় পড়েছেন ভোটারগণ। কেউ কেউ পারছিলেন না ইভিএমের সাথে তাল মিলাতে; আবার কারো কারো মিলছিল না আঙুলের ছাপ। মাঝে মাঝে যান্ত্রিক ত্রুটি থাকায় কিছু সময়ের জন্য বন্ধও রাখতে হচ্ছে ভোটগ্রহণ। তবে সব বিড়ম্বনা ছাপিয়ে সহিংসতা আর মারকাটের ঘটনা ছাড়াই নির্বাচন সম্পন্ন হতে যাচ্ছে অভিজাত চুনকা-ওসমানের এলাকায়।

তবে কে হাসবে শেষ হাসি! আর কার বাড়াতে হবে আরও জনসম্পৃক্ততা; তাই দেখার পালা। নবাগত মেয়রের মুখ দেখতে ফুলের মালা নিয়ে অপেক্ষা করছেন নাসিকবাসী। এর মধ্যেই নগরজুড়ে আগেই বিজয় মিছিল দিচ্ছে তৈমুর সমর্থকদল। নিজের প্রার্থীর জয়ের বিষয়ে শতভাগ আশাবাদী তারা।

নির্বাচন শেষ পর্যন্ত অবাধ ও সুষ্ঠু হলে তৃতীয় মেয়াদেও মেয়র পদে জয়ী হবেন বলে আশাপ্রকাশ করেছেন সরকার দলীয় প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। চুনকা কন্যা বলেন, আমি জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। তবে, নির্বাচনের ফলাফল যাই হোক আমি মেনে নেব।

উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিচ্ছেন ভোটাররা

পরিবেশ এখনও পর্যন্ত অনুকূল এবং শান্তিপূর্ণ বলে মনে করছেন আইভীর একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার।

হাতি মার্কার এ জায়ান্ট প্রার্থী বলেন, পরিস্থিতি এখন পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ বলে মনে হচ্ছে, ভোট গণনার পর পুরোপুরি বলতে পারবো।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার জানান, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে ভোট হয়েছে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে; গোলযোগবিহীন এ নির্বাচনে ভোটার উপস্থিতিও তুলনামূলক ভালো।

নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন, আমরা বেশ কয়েকটি কেন্দ্র পরিদর্শন করেছি। মানুষ অত্যন্ত সুশৃঙ্খলভাবে ভোট দিয়েছেন। শান্তিপূর্ণ ও নিরপেক্ষভাবে ভোটগ্রহণ হয়েছে। ভোটের ফলাফল প্রকাশের পরেও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা মাঠে থাকবেন।

  নাসিক নির্বাচন

আজ জাতীয় শিশু পুরস্কার দেবেন রাষ্ট্রপতি



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ

  • Font increase
  • Font Decrease

জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা-২০২০, ২০২১ পুরস্কার বিতরণ করবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

রোববার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এক অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন তিনি।

বিকেল সোয়া চারটায় এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন রাষ্ট্রপতি। এতে সভাপতিত্ব করবেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা অ্যাকাডেমির চেয়ারম্যান লাকি ইনাম। আলোচনায় অংশ নেবেন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. হাসানুজ্জামান কল্লোল।

এ উপলক্ষে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগকে অভিনন্দন জানিয়ে বাণী দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বাণীতে তিনি বলেন, শিশুদের সুপ্ত সম্ভাবনার বিকাশ, তাদের অধিকার রক্ষা এবং শিশুবান্ধব এক বাংলাদেশ গড়ে তোলার লক্ষ্যে এটি অবশ্যই মন্ত্রণালয়ের একটি বাস্তবোচিত উদ্যোগ।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের পথ অনুসরণ করে ডিজিটাল বাংলাদেশের মতো একটি ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ প্রতিষ্ঠার জন্য শিশুরা আগামী দিনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে সক্ষম হবে।

বাংলাদেশ শিশু অ্যাকাডেমি আয়োজিত ২০২০ এবং ২০২১ সালের জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতাটি সারাদেশের উপজেলা থেকে জেলা, জেলা থেকে বিভাগ এবং বিভাগ থেকে জাতীয় পর্যায়ে বিজয়ী শিশুদের অংশগ্রহণে ৩০টি বিষয়ে অনুষ্ঠিত হয়। এই প্রতিযোগিতায় প্রায় সাড়ে ৬ লাখ শিশু অংশগ্রহণ করে।

প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ৪৭৪ জন শিশু এ পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবে। ২০২০ সালের ছয়জন ও ২০২১ সালের ছয়জনসহ মোট ১২ জন রাষ্ট্রপতির হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণ করবে।

অনুষ্ঠানে শিশুর উন্নয়ন, বিকাশ ও সুরক্ষা বিষয়ে প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হবে। এ উপলক্ষে স্মারকগ্রন্থ ‘আলোর ফুল’ প্রকাশিত হবে। অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশ টেলিভিশন, বাংলাদেশ বেতারে সরাসরি সম্প্রচার করা হবে।

  নাসিক নির্বাচন

;

রাজশাহীতে শেখ হাসিনার জনসভা আজ, শহরজুড়ে উৎসবের আমেজ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, রাজশাহী
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

দীর্ঘ পাঁচ বছর পর আজ রাজশাহী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। তার আগমন ঘিরে গোটা রাজশাহীজুড়ে যেন উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে। বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে রাজশাহী নগরীকে।

রোববার (২৯ জানুয়ারি) বিকেলে রাজশাহীর মাদরাসা মাঠে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের জনসভায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় তিনি ১৬০০ কোটি টাকা ব্যয়ে রাজশাহীতে বিভিন্ন চলমান ৩১টি উন্নয়ন প্রকল্পের ফলক উন্মোচন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। জনসভকে ঘিরে আওয়ামী লীগের নেতাদের ছবি সংবলিত ব্যানার-ফেস্টুন ও তোরণে ভরে গেছে পুরো শহর। সড়ক বিভাজকগুলোতে করা হয়েছে রঙ।

এর আগে ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী সফরে এসে এ মাদরাসা মাঠে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর এ সফরকে সফল করতে সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় একাধিক নেতা। দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আজ শনিবার স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর সফরের বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরতে সংবাদ সম্মেলন করেন। তথ্যমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রীর এ জনসভায় বিপুল পরিমাণ মানুষ অংশ নেবে। শহরজুড়ে উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সাদরে বরণ করতে রাজশাহী মহানগরীকে সাজানো হয়েছে বর্ণিল সাজে। সর্বত্র শোভা পাচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি সংবলিত ব্যানার-ফেস্টুন। এসব ব্যানারে সরকারের উন্নয়নচিত্র বেশি ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

  নাসিক নির্বাচন

;

করোনার টিকায় ব্যয় ৪০ হাজার কোটি টাকা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, মানিকগঞ্জ
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক

  • Font increase
  • Font Decrease

বিনামূল্যে দেশের মানুষকে করোনাভাইরাসের টিকা দিতে সরকারের প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

শনিবার (২৮ জানুয়ারি) বিকেলে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার জাগীর উচ্চবিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন ও বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

জাহিদ মালেক বলেন, করোনাকালে আওয়ামী লীগ সরকার শুধু বিনামূল্যে চিকিৎসা ও টিকার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল না, গরিব ও দুস্থদের মধ্যে খাদ্য এবং টাকার ব্যবস্থাও করেছে। তবে এ সময়ে বিরোধী দলকে জনকল্যাণমূলক কোনো কাজ করতে দেখা যায়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের করোনা ভ্যাকসিনের জন্য প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করেছেন। প্রতিটি মানুষকে করোনার ভ্যাকসিন দিতে প্রায় ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা ব্যয় হয়েছে।

তিনি বলেন, বিএনপি শুধু ক্ষমতা চায়, তার জন্য দেশে বিশৃঙ্খলা করে। কিন্তু মুখে কখনো বলে না যে, আমরা ক্ষমতায় গেলে মানুষের জন্য রাস্তাঘাট, স্কুল-কলেজ, হাসপাতাল নির্মাণ করবো। তাদের শুধু ক্ষমতা দরকার। কারণ ক্ষমতায় আসলেই লুটপাট করা যায়। বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকাকালে সার, বিদ্যুৎ লুটপাট করেছে। তখন লোকজন বিদ্যুৎ পায়নি; বাংলাদেশের মানুষ তা জানে।

মন্ত্রী বলেন, আমরা রাজনীতি করি দেশের উন্নয়নের জন্য, আমরা আশা করি আপনাদের রাজনীতিও উন্নয়নের জন্যই হবে। আমরা আপনাদের শত্রু নই। শত্রুতা করে রাজনীতি করলে উন্নয়ন ব্যহত হবে, অর্থনৈতিক ক্ষতি হবে, বাংলাদেশের মানুষের ক্ষতি হবে। বেশি দেরি নাই প্রায় ১ বছর আছে নির্বাচনে আসুন। তার আগে আপনাদের দলের নেতা ঠিক করুন। কারণ নেতাবিহীন দলের কোনো ক্ষমতায় আসার সুযোগ নাই।

দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সামনের নির্বাচন আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশের মানুষের কাছে সরকারের উন্নয়নের কথা জানাতে হবে। আপনারা যদি এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চান; তাহলে নৌকা মার্কাকে পুনরায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ, পৌরসভার মেয়র রমজান আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুলতানুল আজম খান আপেল, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধরণ সম্পাদক সুদেব সাহা, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আরশেদ আলী বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ প্রমুখ।

  নাসিক নির্বাচন

;

দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিরলসভাবে কাজ করছে পুলিশ: প্রধানমন্ত্রী



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ পুলিশ দেশের অভ্যন্তরীণ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ দমন এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ দমন, মাদক নির্মূল এবং চোরাচালান দমনে পুলিশের ভূমিকা বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করেছে।

রোববার (২৯ জানুয়ারি) সারদায় ৩৮তম বিসিএস (পুলিশ) ক্যাডারের প্রশিক্ষণের সফল সমাপ্তি উপলক্ষে দেওয়া বাণীতে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, একটি গণতান্ত্রিক সমাজে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য একটি দক্ষ পুলিশ বাহিনী অপরিহার্য। তাই সরকার গঠনের পর থেকেই আমরা পুলিশের উন্নয়ন ও আধুনিকায়নে প্রয়োজনীয় সব পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি।

সরকারপ্রধান বলেন, বাহিনীর জনবল বৃদ্ধি, নতুন নতুন ইউনিট গঠন, ভৌত অবকাঠামোর উন্নয়ন, আধুনিক যানবাহন ও লজিস্টিক্স সুবিধা বৃদ্ধি, সর্বাধুনিক প্রশিক্ষণ সুবিধা নিশ্চিতকরণ, পুলিশ সদস্যদের সার্বিক কল্যাণের জন্য কল্যাণ ট্রাস্ট ও ব্যাংক গঠন, আবাসন ও চিকিৎসা ব্যবস্থার উন্নয়ন প্রভৃতি ক্ষেত্রে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশকে একটি আধুনিক, যুগোপযোগী, দক্ষ ও জনবান্ধব সার্ভিসে পরিণত করার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ, ট্যুরিস্ট পুলিশ, নৌ পুলিশ, পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন, এন্টি টেররিজম ও কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটসহ বেশ কয়েকটি রেঞ্জ, মেট্রোপলিটন ইউনিট, সাইবার পুলিশ সেন্টার, ব্যাটালিয়ন, ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টার থানা, তদন্ত কেন্দ্র, ফাঁড়ি এবং জাতীয় জরুরি সেবায় ৯৯৯ ইউনিট গঠন করেছি। আমরা নারী, শিশু, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী সার্ভিস ডেস্ক চালু করেছি, বিট পুলিশিং এর মাধ্যমে পুলিশ সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিচ্ছি।

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে সক্রিয় অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশের সাহসী সদস্যরা উল্লেখযোগ্য প্রশংসনীয় অবদান রেখে চলেছে। কোভিড-১৯ মোকাবিলায় পুলিশ সদস্যগণ নিজেদের জীবন বিপন্ন করে জনসেবার ক্ষেত্রে নজিরবিহীন ভূমিকা রেখেছে। নবীন কর্মকর্তারা মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও স্বাধীনতা সংগ্রামে তাদের পূর্বসূরিদের আত্মত্যাগকে হৃদয়ে ধারণ করে প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান ও অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে রূপকল্প-২০৪১ সফল বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ তথা স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবেন।

প্রিয় মাতৃভূমির স্বাধীনতার জন্য আত্মোৎসর্গকারী দেশপ্রেমক বীর পুলিশ সদস্যদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ পুলিশের রয়েছে গৌরবোজ্জ্বল আত্মত্যাগ ও বীরত্বের স্বর্ণোজ্জ্বল ইতিহাস। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদাত্ত আহ্বানে সাড়া দিয়ে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে অকুতোভয় বীর পুলিশ সদস্যরা গড়ে তুলেছিল প্রথম সশস্ত্র প্রতিরোধ।

বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের প্রশিক্ষণের সফল সমাপ্তি উপলক্ষে নবীন পুলিশ কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান এবং তাদের নিরাপদ জীবন, পেশাগত সাফল্য ও উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করেন।

  নাসিক নির্বাচন

;